পোশাকের কারণে তরুণী লাঞ্ছিত: শিলা ৩ দিনের রিমান্ডে

নরসিংদী রেলওয়ে স্টেশনে তরুণীকে লাঞ্ছিত করার মামলার আসামি শিলা আক্তার ওরফে সায়মাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ডে পেয়েছে পুলিশ।  

নরসিংদী প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 May 2022, 02:33 PM
Updated : 30 May 2022, 02:33 PM

সোমবার নরসিংদীর জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম দেলোয়ার হোসাইন এ আদেশ দেন বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নরসিংদী জিআরপি ফাঁড়ির এসআই এইচ এম হারুনুজ্জামান রুমেল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, নরসিংদী স্টেশনে পোশাকের ‘আপবাদ’ দিয়ে তরুণীকে হেনস্তার মামলার আসামি শিলা আক্তার ওরফে সায়মাকে (৬০) বিকালে আদালতে হাজির করে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেওয়ার আবেদন করে পুলিশ। শুনানি শেষে বিচারক তিন দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে বিকালে র‍্যাব শিলাকে ভৈরব রেলওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। পরে তাকে আদালতে তোলা হয়।

রোববার রাতে র‌্যাব-১১ এর একটি দল নরসিংদীর শিবপুরের মুনছেপের চর এলাকায় শিলার খালার বাসা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে।

র‌্যাব জানিয়েছে, শিলা আক্তার ওরফে সায়মা নামের এই নারী মার্জিয়া নামেও পরিচিত। নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলার ডোকেরচর ইউনিয়নের আদিয়াবাদ গ্রামের বাসিন্দা তিনি।  

১৮ মে সকালে নরসিংদী রেলস্টেশনে ‘অশালীন পোশাক পরার অপবাদ’ দিয়ে এক তরুণীকে লাঞ্ছিত করা হয়, পরদিন যার ভিডিও ছড়ায় নেট দুনিয়ায়।

ভিডিওতে দেখা যায়, এক নারী ও কয়েকজন যুবক ওই তরুণীকে টানা-হেঁচড়া করছে। মেয়েটিকে এক তরুণ আগলে রাখার চেষ্টা করছেন। এক পর্যায়ে কয়েকজন লোকের সহায়তায় মেয়েটি দৌড়ে স্টেশন মাস্টারের কক্ষে ঢুকে যান।

এরপর কলাপ্সিবল গেট টেনে দেয় এক লোক। কিছুক্ষণ পর লোকজন চলে গেলে এবং পরিস্থিতি শান্ত হলে স্টেশন মাস্টার ওই তরুণীকে তার কক্ষ থেকে বের করেন।

আদালতের নির্দেশে এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে রেলওয়ের ভৈরব থানায় মামলা করে। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে করা মামলায় ওই নারী, এক যুবক ছাড়াও সঙ্গে থাকা অজ্ঞাত অনেককে আসামি করা হয়।  

ঘটনার তদন্তে নামে নরসিংদী জেলা প্রশাসনের তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল। তারা স্টেশনের সিসিটিভির ভিডিও দেখে ইসমাইল হোসেন নামে এক যুবককে শনাক্ত করে। আর গোয়েন্দা পুলিশ তাকে ২০ মে আটক করে থানায় দেয়। পরে ইসমাইল হোসেনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিনের রিমান্ডে পায় পুলিশ।

শিলাকে গ্রেপ্তারের পর র‌্যাব জানিয়েছিল, ঘটনার পর পরই শিলা আত্মগোপনে চলে যান। রোববার রাত ৩টার দিকে তাকে খালার বাসা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়। তখন তার কাছ থেকে একটি মোবাইল, একটি সিম ও এক হাজার ৯৮০ টাকা উদ্ধার করা হয়।

আরও পড়ুন:

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক