জয়পুরহাটে ‘ঋণ দিয়ে কিডনি বেচতে বাধ্য করে’ আটক ৭

জয়পুরহাটে ‘ঋণ দিয়ে কিডনি বেচতে বাধ্য করার’ অভিযোগে সাতজনকে আটক করা হয়েছে।

জয়পুরহাট ‍প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 May 2022, 12:03 PM
Updated : 14 May 2022, 12:03 PM

গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে প্রমাণসহ তাদের আটক করা হয়েছে বলে জেলার পুলিশ সুপার মাছুম আহম্মদ ভূঁঞা জানিয়েছেন।

জেলা পুলিশ লাইন্সে শনিবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, “আটককৃতরা দীর্ঘদিন ধরে অভাবে থাকা মানুষকে চড়া সুদে ঋণ দিতেন। ঋণ পরিশোধে ব্যর্থ হলে তাদের কিডনি বিক্রি করতে ফুঁসলাতেন এবং শেষে বাধ্য করতেন।”

তদন্ত শেষে শুক্রবার রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয় বলে তিনি জানান।

আটককৃতরা হলেন জেলার কালাই উপজেলার থল গ্রামের সিরাজের ছেলে সাহারুল ইসলাম (৩৮), উলিপুর গ্রামের ফরিদুল ইসলামের ছেলে ফরহাদ হোসেন চপল (৩১), জয়পুর বহুতি গ্রামের মফিজ উদ্দিনের ছেলে মোশাররফ হোসেন (৫৪), মোবারক হোসেনের ছেলে মোকাররম হোসেন (৫৪), ভেরেন্ডি গ্রামের জাহান আলমের ছেলে শাহারুল ইসলাম (৩৫), দূর্গাপুর গ্রামের বছির উদ্দিন ফকিরের ছেলে সাইদুল ফকির (৪৫) ও সদর উপজেলার হানাইল বম্বু গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (৪০)।

পুলিশ সুপার বলেন, “গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে প্রমাণসহ তাদের আটক করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা কিডনি বেচাকেনার কথা স্বীকার করেছেন।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক