চৌমুহনী বাজারে আবার অগ্নিকাণ্ড

নোয়াখালীর প্রধান বাণিজ্য কেন্দ্র চৌমুহনী বাজারেতে আবারও অগ্নিকাণ্ড হয়েছে।

নোয়াখালী প্রতনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 April 2022, 10:23 AM
Updated : 30 April 2022, 10:23 AM

শনিবার ভোরে হোসেন মার্কেটের নিচ তলার মিতালী বেকারিতে ভোর ৫টার দিকে লাগা এ আগুন ফায়ার সার্ভিসের পাঁচটি ইউনিট প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় নিয়ন্ত্রণে আনে বলে জেলা ফায়ার সার্ভস ও সিভিল ডিফেরেন্সর উপ সহকারী পরিচালক অতীশ চাকমা জানান।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে চৌমহনীতে হোসেন মার্কেটের পাশে দুটি মার্কেটে অগ্নিকাণ্ডে দুই শতাধিক দোকান পুড়ে যায়। ওই রাতেই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার পর ফায়ার সার্ভিসের একটি দলকে পরবর্তী পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণের জন্য সেখানে রাখা হয়েছিল।

অতীশ বলেন, “হোসেন মার্কেটে আগুন দেখে সঙ্গে সঙ্গে ওই টিম দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ শুরু করে দেয়। খবর পেয়ে চৌমুহনী ও মাইজদী থেকে ফায়ার সার্ভিসের আরও চারটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে সকাল ছয়টার দিকে আগুন পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়।”

বৈদ্যুতিক শটসার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত বলে ধারণা ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তার।

তিনি বলেন, ক্ষয়ক্ষতির হিসেব তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। তবে ফায়ার সার্ভিস দ্রুত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার কারণে খুব বেশি ক্ষতি হতে পারেনি।” 

এদিকে মিতালী বেকারিক মালিক শাহজাহান খন্দকার আগুনে মালামালসহ অর্ধ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন।

তিনি বলেন, “ঈদ উপলক্ষে বিস্কুট, কেকসহ বিভিন্ন বেকারি পণ্য তৈরি করে শোরুমে রাখা হয়েছিল। রাতে শোরুম বন্ধ করার পর কেউ ভেতরে ছিল না। আগুন লাগার পর বেশিরভাগ মালামাল নষ্ট হয়ে গেছে।”

জেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক এ এইচ এম খয়রুল আনম চৌধুরী সেলিম, যুগ্ম আহবায়ক শিহাব ও বেগমগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য মামুনুর রশিদ কিরণসহ আওয়ামী লীগের স্থানীয় নেতারা শনিবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

এ সময় তারা বার বার অগ্নিকাণ্ডের কারণ খতিয়ে দেখতে এবং পুকুর, জলাশয় ও সরকারি জায়গা দখলদারদের চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য প্রশাসনের কাছে দাবি জানান।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক