রূপপুরে কাজাখ নাগরিক খুন: আটক ৩ জন জেলহাজতে

পাবনার ঈশ্বরদীতে নির্মাণাধীন রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে কাজাখ নাগরিক ভ্লাদিমির শভেটসকে হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে।

পাবনা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 March 2022, 01:37 PM
Updated : 28 March 2022, 01:37 PM

ঈশ্বরদী থানার ওসি আসাদুজ্জামান জানান, নিকিমথ এটমস্ট্রয় কোম্পানির ঈশ্বরদীর পরিচালক আইউরি ফেডোরভ রোববার রাতে বেলারুশের তিন নাগরিকের নামে এই মামলা করেন, যাদের আগেই আটক করেছে পুলিশ।

নিহত ভ্লাদিমির নিকিমথ এটমস্ট্রয়ে কাজ করতেন। শনিবার সন্ধ্যায় রূপপুর প্রকল্পের আবাসিক এলাকা গ্রিন সিটির ৬ নম্বর বিল্ডিংয়ের ১০ তলায় ১০৬ নম্বর কক্ষে ছুরিকাঘাতে খুন হন ভ্লাদিমির। তাছাড়া সে সময় আহত হন তার ভাই ব্রেজনয় অ্যান্ডে।

ঘটনার পর পুলিশ আরবানভিচুস ভিটালি (৪৪), ফেদারোভিচ হেনাডজ (৪২) ও মাতসভেইউ উলাদজিমির (৪৩) নামে তিন বেলারুশি নাগরিককে আটক করে।

ওসি আসাদুজ্জামান বলেন, মামলায় এই তিনজনকে আসামি করা হয়েছে। তারা সবাই বেলারুশের নাগরিক। রূপপুর প্রকল্পে রোসেম নামে একটি রাশিয়ান প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ছিলেন তারা। সোমবার সকালে আদালতের মাধ্যমে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

নিহত শভেটসের মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। পরে মরদেহ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গের হিমাগারে পাঠানো হয়েছে বলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ঈশ্বরদী থানার এসআই রায়হান পারভেজ জানিয়েছেন।

তবে হত্যাকাণ্ডের কারণ দায়িত্বশীল কেউ এখনও বলতে পারেনি।

পুলিশ কর্মকর্তারা বলছেন, শভেটসের ভাই ব্রেজনয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ‘রোসেমে’ চাকরি করেন। কোম্পানিতে তার পাওনা নিয়ে কিছুদিন ধরে জটিলতা চলছে। এ নিয়ে কথা বলার জন্য শনিবার সন্ধ্যায় শভেটস ও ব্রেজনয় রোসেমের তিন বেলারুশীয় কর্মকর্তার সঙ্গে কথা বলতে গ্রিন সিটি ভবনের ওই কক্ষে যান। এর কিছু সময় পর ওই কক্ষে মারামারি ও ধস্তাধস্তি হয়। তখন ছুরিকাহত হন শভেটস। সেখানে তার মৃত্যু হয়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক