উত্তর ও দক্ষিণের পথে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক, দুর্ঘটনা তদন্তে কমিটি

পাবনায় দুর্ঘটনাকবলিত বগি উদ্ধার শেষে ছয় ঘণ্টা পর ঢাকার সঙ্গে উত্তর ও দক্ষিণের ট্রেন যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে।

পাবনা প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Dec 2021, 06:11 PM
Updated : 2 Dec 2021, 06:11 PM

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার পর ট্রেন চলাচল আবার শুরু হয় বলে পশ্চিমাঞ্চলীয় রেল বিভাগ পাকশীর রেলওয়ের সহকারী প্রকৌশলী শিপন আলী জানান।

বিকাল ৪টার দিকে পাবনার বড়াল ব্রিজ রেল স্টেশনের পাশে মালবাহী ট্রেনের বগি লাইনচ্যুত হয়ে এই পথে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

প্রকৌশলী শিপন আলী জানান, সিরাজগঞ্জ থেকে রাজশাহীগামী মালবাহী ট্রেনটি বড়াল ব্রিজ স্টেশনের কাছে এসে হঠাৎ দুর্ঘটনায় পড়ে। এতে উভয় পাশের কয়েকটি আন্তঃনগর ট্রেন আটকে যায়।

“পরে ঈশ্বরদী লোকোসেড লোকোমোটিভ কারখানা থেকে রিলিফ ট্রেন নিয়ে রেলওয়ের উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে লাইনচ্যুত বগি লাইন থেকে সরিয়ে নেন।”

পশ্চিমাঞ্চলীয় রেলওয়ের পাকশীর বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা আনোয়ার হোসেন বলেন, লাইন সচল করা হয়েছে, তবে সিঙ্গেল লাইন হওয়ায় চলাচল স্বাভাবিক করতে একটু সময় লাগবে। কেননা সিঙ্গেল লাইন হওয়ায় মালবাহী ট্রেনটি উল্লাপাড়া স্টেশনে নিয়ে যেতে হবে। তারপর অন্যান্য ট্রেনগুলো চলাচল করতে পারবে এই রুটে। 

এদিকে, ট্রেনের বগি লাইনচ্যুতির ঘটনায় তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে পশ্চিমাঞ্চল পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের ব্যবস্থাপক (ডিআরএম) শাহিদুল ইসলাম বলেন, রাত ১০টার দিকে লাইনটি সচল করা সম্ভব হয়েছে, তবে দক্ষিণ ও উত্তরবঙ্গের সাথে রাজধানীর সাথে ট্রেনগুলোর চলাচল স্বাভাবিক হতে একটু সময় লাগবে।

শাহীদুল ইসলাম আরও বলেন, পাকশী বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা (ডিটিও) আনোয়ার হোসেনকে আহবায়ক করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য দুই সদস্য হলেন পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ের যান্ত্রিক প্রকৌশলী (ক্যারেজ) মমতাজুল ইসলাম ও পাকশী বিভাগীয় রেলওয়ে সহকারী নির্বাহী প্রকৌশলী শিপন আলী।

কমিটিকে আগামী তিন দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে, বলেন তিনি।

দুর্ঘটনার পর চাটমোটর স্টেশনে ঢাকাগামী লালমনি এক্সপ্রেস ও উল্লাপাড়া স্টেশনে রাজশাহীগামী বনলতা এক্সপ্রেস, দ্রুতযান এক্সপ্রেসসহ কয়েকটি ট্রেন আটকে পড়ে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক