নাটোর সরকারি গুদামে খালাসের সময় ৪১৭ বস্তা নষ্ট চাল জব্দ

নাটোরে সরকারি গুদামে নিম্নমানের সরবরাহের সময় ৪১৭ বস্তা পচা চালসহ একটি ট্রাক জব্দ করা হয়েছে।

নাটোর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 12 August 2021, 03:48 PM
Updated : 12 August 2021, 03:48 PM

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে সদর উপজেলার বুড়া দরগা মসজিদ সংলগ্ন গুদামে ট্রাক থেকে চাল আনলোড করার সময় এসব পচা ও নিম্নমানের চাল জব্দ করেন সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার আফরোজা খাতুন বলেন,“প্রাথমিকভাবে চালগুলো নষ্ট ও পচা বলে মনে হওয়ায় জব্দ করা হয়েছে। সিলগালা করে ডিসি ফুডের জিম্মায় রাখা হয়েছে।”

বিষয়টি খাদ্য বিভাগের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানানো হবে বলেন তিনি।

জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক রবীন্দ্র লাল চাকমা বলেন, খারাপ চাল ঢোকানের ক্ষেত্রে গুদাম কর্মকর্তা জড়িত থাকলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নাটোর সদর উপজেলা খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মফিজ উদ্দিন জানান, চালকল মালিক বেলাল উজ্জামান বেলু বৃহস্পতিবার সকালে নাটোরের মেসার্স রহমান চালকল, মেসার্স তৈয়ব চালকল এবং মেসার্স মান্নান চালকলের নামে এক ট্রাকে ৫৯১ বস্তা চাল নিয়ে খাদ্য গুদামে আসেন। তার তত্ত্বাবধানে ওই ট্রাক থেকে চাল খালাস করা হচ্ছিল।

তবে নাটোর পৌর সভার ৭ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বেলাল উজ্জামান বলছেন, এসব চাল তার না। অন্য তিন চালকল মালিকের নামে বরাদ্দ করা চাল।

রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য হয়তো তার নামে অপবাদ দেওয়া হচ্ছে বলে দাবি তার।

গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মফিজ উদ্দিন জানান, খারাপ চাল বুঝতে পারার পরপরই তিনি চাল খালাস বন্ধ করে দেন।

কীভাবে এ নষ্ট চাল গুদামে ঢোকানো হল জানতে চাইলে তিনি বলেন, “বস্তায় ভাল-খারাপ মিশ্রিত ছিল। তাই প্রথমে বুঝতে পারিনি।”

নাটোর সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল মতিন বলেন, গোডাউনের নিম্ন মানের চালের ব্যাপারে পুলিশের উদ্যোগে কিছু করার নাই। তবে প্রশাসন থেকে অভিযোগ করা হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক