বান্দরবানে পোশাককর্মীর কোভিড-১৯, কারখানা অবরুদ্ধ

বান্দরবানে একমাত্র পোশাক কারখানার এক শ্রমিকের করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ায় কারখানাটি অবরুদ্ধ করা হয়েছে। একই সঙ্গে কারখানার সব কর্মচারীকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

বান্দরবান প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 May 2020, 01:15 PM
Updated : 26 May 2020, 01:15 PM

বান্দরবানের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এডিএম) শামীম হোসেন জানান, জেলার একমাত্র রপ্তানিমুখী পোশাক কারখানা লুম্বিনী রিমিটেডের এক কর্মী এবং শহরের আরেক ব্যক্তির করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে সোমবার।

“ওইদিনই ওই কারখানা এবং এর আশপাশের সব দোকানপাট অবরুদ্ধ করা হয়েছে। একই সঙ্গে ওই কারখানায় কর্মরত ৫৪১ জন শ্রমিক-কর্মচারীকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।”

বান্দরবানের সিভিল সার্জন অংসুইপ্রু মারমা বলেন, জেলা শহরের কাছে মেঘলায় অবস্থিত লুম্বিনী লিমিটেড নামের পোশাক কারখানার এক শ্রমিক (৩৮) ও বালাঘাটার স্বর্ণমন্দির এলাকায় একজন ফেরিওয়ালার কয়েকদিন আগে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেয়।

“নমুনা নিয়ে কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে পাঠানোর পর রিপোর্টে তাদের শরীরে কোভিড-১৯ পজিটিভ আসে।”

“কারখানার ওই শ্রমিককে সদর হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিটে নেওয়া হয়েছে। ফেরিওয়ালা তার নমুনা দিয়ে নিজ এলাকায় চট্টগ্রামে পটিয়া এলাকায় চলে যান। তাকেও সেখানকার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেশন ইউনিটে রাখা হয়েছে।”

এ নিয়ে বান্দরবানে মোট করোনাভাইরাস শনাক্ত ১৯ জনে হলো বলে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ আরও জানায়, জেলার প্রথম কোভিড-১৯ পজিটিভ ধরা পড়ে নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার সীমান্ত এলাকা ঘুমধুমে, যিনি নারায়ণগঞ্জের তবলীগ থেকে এসেছিলেন।

বর্তমানে ১৯ জন আক্রান্তের মধ্যে নয় জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। তবে এখন পর্যন্ত কেউ মারা যায়নি বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন অংসুইপ্রু মারমা।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক