রংপুরে খাল সংস্কারে অনিয়মের অভিযোগ মেয়রের

রংপুরবাসীকে বাঁচাতে হলে শ্যামাসুন্দরী খালকে রক্ষা করতে হবে বলে মনে করেন সিটি করপোরেশনের মেয়র সরফুদ্দিন আহমেদ ঝন্টু।

রংপুর প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 June 2017, 01:17 PM
Updated : 29 June 2017, 01:17 PM

ছয় বছর আগে এ খাল খননে অর্ধশত কোটি টাকা বরাদ্দ হলেও তা ব্যাপক অনিয়মের মাধ্যমে লুটপাট করা হয়েছে বলে ঝন্টু অভিযোগ করেন।

বৃহস্পতিবার মেয়রের কার্যালয়ে  ব্লগ ডট বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের নাগরিক সাংবাদিকদের দেওয়া সাক্ষাতকারে ঝন্টু বলেন, সিটি করপোরেশন হওয়ার আগে এটি রংপুর পৌরসভা ছিল।

“২০১০ সালে শ্যামাসুন্দরী খাল সংস্কারের জন্য ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেয় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়।”

তিনি বলেন, সে সেময় স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিবের বাড়ি ছিল রংপুর নগরীতে। ওই  সচিবের সঙ্গে সুসম্পর্ক ছিল রংপুর পৌরসভার তৎকালীন মেয়রের। 

সচিব ও  মেয়র নিজস্ব ঠিকাদারদের দিয়ে শ্যামাসুন্দরী খাল সংস্কারের কাজ করান বলে দাবি বর্তামন মেয়র ঝন্টুর। 

“৫০ কোটি টাকা খরচ করে খালটি সংস্কার করা হলেও কিছুদিনের মধ্যেই খালের দুপাড় ভেঙে পড়ে। ফলে খালটি নর্দমায় পরিণত হয়। ৫০ কোটি টাকা খরচ করা হলেও রূপ ফেরেনি শ্যামাসুন্দরীর।”

এখন খালটিকে সংস্কার করতে গেলে আরও ৫০ কোটি টাকা খরচ করতে হবে বলে তিনি মনে করেন।

“আমি বলতে চাই সংস্কারের নামে যে ৫০ কোটি টাকার অনিয়ম হলো, সরকারের টাকা যারা ক্ষতি করল তাদের বিচার হওয়া দরকার।”

এ প্রসঙ্গে মেয়র আরও বলেন, ছয় কিলোমিটার দীর্ঘ খালটি বরাবর ওভারব্রিজ করা হলে চলাচলের একটি বিকল্প রাস্তার সৃষ্টি হবে। তখন একটি মাত্র প্রধান সড়কের উপর চাপ কমবে।

সিটি গভর্ন্যান্স নিয়ে নাগরিক সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মেয়র বলেন, “বিশ্বের বিভিন্ন দেশে সংসদে এমপিরা আইন প্রণয়ন নিয়ে কথা বলেন। তারা টিউবওয়েল চান না; চাল চান না। এসব সিটি গভর্নমেন্টের কাজ। সিটি গভর্নমেন্ট নিয়ে সারা বিশ্ব কথা বলছে, আমাদের দেশেও ধীরে ধীরে তা হবে। সিটি গভর্নমেন্ট ছাড়া দেশের উন্নয়ন, মানুষের উন্নয়ন সম্ভব না।”

নাগরিক সাংবাদিক ও নগর প্রধানের মতবিনিময় শেষে মেয়রের হাতে নাগরিক সমস্যা নিয়ে ব্লগ সংকলন ’নগর নাব্য’ তুলে দেন ব্লগ ডট বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডট কমের পরিচালক আইরিন সুলতানা, নাগরিক সাংবাদিক সজীব হোসাইন। 

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক