অর্থাভাবে উন্নয়ন নেই ঠাকুরগাঁও পৌরসভার: মেয়র ফয়সল

সরকারিভাবে অর্থ না পাওয়ায় ঠাকুরগাঁও পৌরসভার যথাযথ উন্নয়ন সম্ভব হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছেন মেয়র মির্জা ফয়সল আমীন।

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধিশাকিল আহমেদ, বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 June 2017, 01:47 PM
Updated : 28 June 2017, 02:05 PM

বুধবার পৌরভবনে ব্লগ ডট বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের নাগরিক সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ভাই এ মেয়র।

তিনি বলেন, “আমি গত দেড় বছর যাবৎ ঠাকুরগাঁও পৌরসভার মেয়র পদে রয়েছি। কিন্তু এ দেড় বছরে পৌরসভার উন্নয়নের জন্য সরকারিভাবে কোনো বরাদ্দ পাইনি।”

উন্নয়ন না হওয়ায় পৌরসভার রাস্তাঘাট, ড্রেনেজ ব্যবস্থাসহ নানা সমস্যা চরম আকার ধারণ করেছে বলে জানান তিনি।

“পৌরকরের টাকায় পৌরসভার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন পরিশোধ করতে আমরা হিমশিম খাচ্ছি। তারপরও কর-টেক্সের টাকায় যতটুকু পারছি পৌরসভার উন্নয়ন করছি।”

সিটি গভর্ন্যান্স বাস্তবায়ন বিষয়ে জানতে চাইলে মেয়র ফয়সল বলেন, মেয়রদের অনেক সীমাবদ্ধতা রয়েছে। যেমন এখানে অনেক অবৈধ স্থাপনা রয়েছে, যা উচ্ছেদ করতে গেলে জেলা প্রশাসককে চিঠি লিখতে হয়।

“এছাড়ও সংসদ সদস্যরা উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে সরাসরি অংশগ্রহণ করেন। অথচ সাংবিধানিকভাবে তারা আইন প্রণয়ন করবেন; উন্নয়নমূলক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করবেন না।”

কিন্তু বাংলাদেশের ভোটের রাজনীতির জন্য এই চর্চাটি চলে এসেছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, এতে মেয়রদের কাজের অংশগ্রহণগুলো সীমিত হচ্ছে। মেয়রদের কাজে সাফল্যগুলো জনগণের কাছে পৌছাচ্ছে না।

সকল রাজনৈতিক দল ক্ষমতায় যাওয়ার আগে কেন্দ্রীয় সরকার বাস্তবায়নের কথা বলে; কিন্তু ক্ষমতায় যাওয়ার পর তা বাস্তবায়ন করে না বলে অভিযোগ মেয়রের।

ঠাকুরগাঁও টাঙ্গন নদীর নাব্যতা ফিরিয়ে আনার বিষয়ে মেয়র ফয়সল আমীন বলেন, ভূমিদস্যুরা টাঙ্গন নদীর অনেক অংশ দখল করে দোকানপাট ও ঘরবাড়ি নির্মাণ করেছে।

তবে পৌরসভার মধ্যে যতটুকু নদী রয়েছে তা তিনি ভূমিদস্যুদের হাত থেকে রক্ষা করবেন বলে জানান।  

নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে পৌরসভা তৎপর। তবে পৌরসভার বাইরে নদীর জমি ভূমিসদ্যুদের হাত থেকে রক্ষা করতে পারবে সরকার। এজন্য তিনি সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

সুগার মিলের কিছু স্লোগান সম্বলিত পুরনো ফলক ও সাইনবোর্ড জঙ্গলে ঢাকা পড়ে আছে।

এ ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, সুগার মিল একটি স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান। এখানে পৌরসভার কিছু করার নেই।

তবে সেগুলোর সংস্কার করার জন্য তিনি নিজ উদ্যোগে সুগার মিলের ব্যবস্থাপনা পরিচালকে পত্র পাঠাবেন বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

বিভিন্ন সিটি করপোরেশন ও পৌরসভার নাগরিক সমস্যা সংক্রান্ত ২৫টি লেখা নিয়ে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের বিপিএল প্রকাশিত ‘নগর নাব্য-মেয়র সমীপেষু’ মেয়রের হাতে তুলে দেন ব্লগ ডট বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমের পরিচালক আইরিন সুলতানা।

এ সময় ব্লগের নাগরিক সাংবাদিক আবুল কাশেম, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি শাকিল আহমেদ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক