গ্রেপ্তারের পর ‘বন্দুকযুদ্ধে’ খুনের আসামি নিহত

ঝিনাইদহের মহেশপুরে হত্যা মামলার এক আসামি গ্রেপ্তার হওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছেন।

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 Feb 2016, 04:24 AM
Updated : 23 Feb 2016, 05:33 AM

মহেশপুর থানার এসআই সোহরাব হোসেন জানান,সোমবার রাত ৩টার দিকে হলদিপাড়া গ্রামে একটি ক্ষেতে গোলাগুলিরএ ঘটনা ঘটে।

নিহত সন্টু (২৮)উপজেলার লালপুর গ্রামের রওশন আলীর ছেলে। মহেশপুর থানার আকিমুলইসলাম হত্যা মামলার এক নম্বর আসামি ছিলেন তিনি।

ওই মামলার এজাহারের বরাত দিয়ে ঝিনাইদহেরপুলিশ সুপার মো.আলতাফ হোসেন বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “গত১৪ ফেব্রুয়ারি সন্টু ও তার সহযোগীরা একই উপজেলার গোপালপুর গ্রামের আনু মোল্লারছেলে আকিমুল ইসলামকে তার মোটরসাইকেলসহ অপহরণ করে। চার দিন পরে ১৮ ফেব্রুয়ারিদুপুরে সাজিয়া গ্রামের একটি গম ক্ষেতে তার লাশ পাওয়া যায়।”

ওই মামলায়সন্টুকে সোমবার কুষ্টিয়া থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদেতিনি হলদীপাড়াগ্রামের মাঠে ‘অস্ত্রলুকিয়ে রাখার তথ্য দিলে’গভীর রাতে পুলিশ তাকে নিয়ে সেখানেঅভিযানে যায় বলে এসপির ভাষ্য।

“ওই মাঠেআগে থেকে অবস্থান নিয়ে থাকা সন্টুর সঙ্গীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে। পুলিশও জবাবদেয়। এভাবে৭/৮ মিনিট বন্দুকযুদ্ধের মধ্যে সন্টু পালানোর চেষ্টা করলে গুলিবিদ্ধ হয়।”

তাকে উদ্ধারকরে উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নেওয়া হলে চিকিৎসক সন্টুকেমৃত ঘোষণা করেন বলে পুলিশ সুপার জানান।

তিনি বলেন, ঘটনাস্থলেএকটি পাইপগান ও কয়েকটি গুলি পাওয়া গেছে।বন্দুকযুদ্ধের সময় মাসুদ আহমেদ ও আহসান আলী নামেরদুই কনস্টেবলও আহত হয়েছেন।তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক