রাবিতে সাংস্কৃতিক জোট নেতাকে ছাত্রলীগের ‘মারধর’

বিজয় দিবসের র‌্যালিতে না যাওয়ায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোটের এক নেতাকে মারধরের অভিযোগ পাওয়া গেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Dec 2015, 11:10 AM
Updated : 16 Dec 2015, 11:10 AM

বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় সাংকৃতিক জোটের সভাপতি সোহেল রানা জানান, মঙ্গলবার রাত পৌনে ১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মাদার বখশ হলে সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক আবু বকর সিদ্দিক শিমুলকে মারধর করে ছাত্রলীগ কর্মীরা।

আবু বকর সিদ্দিক বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে ছাত্রলীগের কয়েকজন কর্মী রুমে এসে আমাকে র‌্যালিতে যেতে বলে।আমার পরীক্ষা থাকায় র‌্যালিতে যেতে পারবো না জানালে তারা জোরাজুরির এক পর্যায়ে রুম থেকে চলে যায়।

“তারা চলে যাওয়ার পর রাত পৌনে ১টার দিকে ছাত্রলীগ কর্মী রাজ্জাক, মেহেদী, ইমরান, নাঈমসহ কয়েকজন এসে আমাকে অশালীন ভাষায় গালাগাল করতে থাকে। প্রতিবাদ করলে রাজ্জাক আমাকে বেশ কয়েকটি চড় মারে।”

এ সময় তাকে হল থেকে বের করে দেওয়ার হুমকি দেয় বলেও অভিযোগ করেন সাংস্কৃতিক জোটের এ নেতা।

মারধরের কোনো ঘটনা ঘটেনি জানিয়ে হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা বলেন, “অনেক ডাকাডাকি করা হলেও শিমুল ভাই র‌্যালিতে না যাওয়ায় একটু রাগারাগি হয়েছে।”

তবে ঘটনা স্বীকার করে ছাত্রলীগ কর্মী মেহেদী বলেন, “শিমুল ভাইয়ের দোষ ছিল।তিনি আমাদের সঙ্গে খারাপ আচরণ করেছেন।”

সোহেল রানা বলেন, ছাত্রলীগ কর্মীদের শাস্তির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও হল প্রভোস্টের কাছে লিখিত অভিযোগ দিব।

হল প্রভোস্ট মো. সেরেজ্জামান বলেন, এ বিষয়ে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি।