• বাংলাদেশের হতাশার ব্যাটিংয়ের পর ব্র্যাথওয়েট-ক্যাম্পবেলের দৃঢ়তা
    ভালো শুরু পেয়েও বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা পারলেন না বড় ইনিংস খেলতে। উইকেট ছুঁড়ে আসার প্রতিযোগিতায় যেন নেমেছিলেন তারা। তাতে শক্ত ভিত পেলেও বড় সংগ্রহ গড়তে পারেনি দল। পরে সফরকারীদের হতাশ করলেন বোলাররাও। আত্মবিশ্বাসী ব্যাটিংয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ভালো শুরু এনে দিলেন দুই ওপেনার ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট ও জন ক্যাম্পবেল।
  • নতুন দায়িত্বেও লিটনের ‘মিশন’ একই
    লিটন কুমার দাসের বৃহস্পতি যে এখন তুঙ্গে, সেটির আরেকটি নমুনা দেখা গেল বৃহস্পতিবার। ব্যাট হাতে তো দুর্দান্ত ফর্মে আছেনই তিনি, এ দিন তাকে দায়িত্ব দেওয়া হলো বাংলাদেশের টেস্ট সহ-অধিনায়কের। নতুন দায়িত্বের রোমাঞ্চ স্পর্শ করছে তাকে। তবে এই কিপার-ব্যাটসম্যান জানালেন, লক্ষ্য তার বরাবরের মতোই দলকে জেতানো।
  • ‘লিটনের ক্রিকেট মস্তিষ্ক ক্ষুরধার, তবে সে অন্তর্মুখী’
    বাংলাদেশের পরবর্তী টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে লিটন কুমার দাসের সম্ভাবনা খুব একটা দেখছেন না খালেদ মাহমুদ। লিটনের ক্রিকেট বোধ নিয়ে কোনো সংশয় নেই তার। তবে এই কিপার-ব্যাটসম্যানের ব্যক্তিত্বের ধরন এখন অধিনায়ক হওয়ার মতো উপযুক্ত নন বলেই মনে করেন বাংলাদেশের টিম ডিরেক্টর।
  • তামিমকে ছাড়িয়ে লিটনের রেকর্ড রেটিং পয়েন্ট
    শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে দলের বিপর্যয়ে দুই ইনিংসেই ঢাল হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন লিটন কুমার দাস। দুর্দান্ত এক সেঞ্চুরির পর করেছিলেন ফিফটি। এমন উজ্জ্বল পারফরম্যান্সের প্রতিফলন পড়েছে তার র‍্যাঙ্কিংয়ে। উঠেছেন ক্যারিয়ার সেরা ১২তম স্থানে।
  • সেঞ্চুরি নয়, সাকিবের ভাবনায় তিন ঘণ্টা ব্যাটিং
    চার বছর পর টেস্টে পাঁচ উইকেটের স্বাদ পাওয়া হলো। এবার কি তবে পাঁচ বছরের সেঞ্চুরি খরা কাটানোর পালা? প্রশ্ন শুনে সাকিব আল হাসান বললেন, আগে ম্যাচ তো বাঁচাতে হবে! মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস যদি শেষ দিন লাঞ্চ পর্যন্ত কাটিয়ে দিতে পারেন, এরপর সাকিবের চাওয়া থাকবে নিজে যেন ঘণ্টা তিনেক সময় কাটানো পারেন ক্রিজে।
  • ৬ ধাপ এগোলেন তামিম, ৪ ধাপ মুশফিক, ৩ ধাপ লিটন
    দুই জনের সেঞ্চুরি, এক জনের ‘প্রায়’ সেঞ্চুরি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টে তামিম ইকবাল, মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের উজ্জ্বল পারফরম্যান্সের প্রতিফলন পড়েছে আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ে। ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন তিন জনই। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন সাকিব আল হাসান ও নাঈম হাসান।
  • সমালোচনাকে আর পাত্তা দেন না লিটন
    সমুদ্রে পেতেছি শয্যা, শিশিরে কী ভয়! সমালোচনার স্রোতে সাঁতরে সামনে এগোতে হয়েছে লিটন কুমার দাসকে। এখন আর তাই এসব স্পর্শ করতে পারে না তাকে। তিনি বরং মগ্ন থাকেন প্রস্তুতি আর প্রক্রিয়া নিয়ে, বুঁদ থাকেন নিজের ক্রিকেটে।
  • মুশফিকের সঙ্গে জুটির রসায়ন নিয়ে লিটন
    একজন মিডল অর্ডারে বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় ভরসা। ইনিংস মেরামতের নিপুণ কারিগর। আরেক জনের জন‍্য ক্রিকেট মাঠের বাইশ গজ যেন ক‍্যানভাস। কব্জির মোচড়ে আঁকছেন শৈল্পিক সব ছবি।  ধীরে ধীরে তিনি হয়ে উঠছেন ধারাবাহিকতার প্রতিশব্দ। দুই জনের জুটিতে নান্দনিকতা ও দায়িত্বশীলতা মিলে যায় এক বিন্দুতে। মুশফিকুর রহিমের সঙ্গে এই জুটির রসায়ন নিয়ে অনেক কথাই বললেন লিটন দাস। 
  • আড়ালের ছবিগুলো হৃদয় গহীনেই রাখছেন লিটন
    অনুশীলনে নিজেকে ভেঙে গড়া। নেটে নিমগ্ন থাকা। ঘণ্টার পর ঘণ্টা ঘাম ঝরানো। বিন্দু বিন্দু শ্রমের ফোঁটাগুলোই আজ ২২ গজে ফুটে উঠছে সাফল্যের ফুল হয়ে। নিজের সঙ্গে অনেক বোঝাপড়া করে, অনেক লড়াই করে এই নন্দনকানন গড়ে তোলার পালা চলছে, বলছেন লিটন কুমার দাস। তবে চাষবাসের গল্প তিনি আড়ালেই রাখতে চান।
  • ৬ শূন্যের পরও ৩৬৫ রান তুলে বাংলাদেশের রেকর্ড
    দুটি বিশ্বরেকর্ড। দুটি পরস্পর সম্পর্কিত। একটি হতাশার রেকর্ড। সেই হতাশার মাঝেও গৌরবের কীর্তি আরেকটি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মিরপুর টেস্টের প্রথম ইনিংসে এভাবেই রেকর্ড বইয়ে নাম উঠে গেছে বাংলাদেশের।
  • ৫০০ ছুঁয়েও রেকর্ড গড়া হলো না মুশফিক-লিটন জুটির
    রেকর্ড ছিল হাতছোঁয়া দূরত্বে। তবে সেই অভিযান থেমে গেল ৫ বল পেছনে থেকেই। বাংলাদেশের তৃতীয় জুটি হিসেবে ৫০০ বল খেলা হলো মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের। কিন্তু সবচেয়ে বেশি বল খেলার রেকর্ড হলো না লিটনের বিদায়ে।
  • মাহমুদউল্লাহকে ছাড়িয়ে সাতের সেরা লিটন
    রেকর্ড স্পর্শ করতে প্রয়োজন ছিল ১ রান, ছাড়িয়ে যেতে ২। দ্বিতীয় দিনের শুরুতেই ছোট্ট সেই দূরত্ব পাড়ি দিলেন লিটন দাস। বাংলাদেশের হয়ে টেস্টে সাত নম্বরে সর্বোচ্চ ইনিংস এখন লিটন দাসের।
  • লিটনকে জীবন দিয়ে আক্ষেপে পুড়ছে শ্রীলঙ্কা
    কোনো চেষ্টাই যখন কাজে আসছিল না তখন একটা সুযোগ তৈরি করেছিলেন আসিথা ফার্নান্দো। কিন্তু লিটন দাসের ক‍্যাচ জমাতে পারেননি বদলি ফিল্ডার কামিন্দু মেন্ডিস। জীবন পেয়ে আর পেছনে তাকাননি লিটন, সেঞ্চুরি ছুঁয়ে অপরাজিত ১৩৫ রানে। কামিন্দুর সেই ব‍্যর্থতা দিন শেষে পোড়াচ্ছে তার দলকে।
  • মুশফিক-লিটনের কাছে প্রথম ঘণ্টা চান বাংলাদেশ কোচ
    দিনের প্রথম ৪২ মিনিট ছিল কাসুন রাজিথা ও আসিথা ফার্নান্দোর। বাকি সময়ে মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের রাজত্ব। দুই জনেই সেঞ্চুরি করে অপরাজিত। তবে কাজ শেষ হয়নি। দলকে ভালো অবস্থানে নিতে দ্বিতীয় দিনের প্রথম ঘণ্টায় এই দুই জনকে অবিচ্ছিন্ন দেখতে চান বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।
  • শান্তর ফর্ম নিয়ে লিটনের উদাহরণ দিলেন ডমিঙ্গো
    দ্রুত তিন উইকেট হারিয়ে দল তখন খুব বিপদে। উদ্ধারের জন‍্য প্রয়োজন ঠাণ্ডা মাথার ব‍্যাটিং। ক্রিকেটের একদম মৌলিক বিষয়গুলো মেনে ক্রিজে পড়ে থাকা। তবে চোয়ালবদ্ধ প্রতিজ্ঞার কোনো ছাপ রাখতে পারেননি নাজমুল হোসেন শান্ত। উচ্চাভিলাষী ড্রাইভের চেষ্টায় বোল্ড হয়ে তিনি ফেরেন দলের বিপদ বাড়িয়ে। 
  • লিটনের ধ্রুপদী সেঞ্চুরি, মুশফিকের মাস্টারক্লাস
    টস জিতে ব‍্যাটিংয়ে নেমে ৪২ মিনিটের মধ‍্যে পাঁচ উইকেট হারিয়ে কাঁপছিল বাংলাদেশ। সহজাত নান্দনিক ব‍্যাটিংয়ে সেখান থেকে দলকে কক্ষপথে ফেরান লিটন দাস। মিডল অর্ডারের সবচেয়ে বড় ভরসা মুশফিকুর রহিম খেললেন আরেকটি মাস্টারক্লাস ইনিংস। তাদের জোড়া সেঞ্চুরিতে প্রথম ইনিংসে বড় সংগ্রহের পথে বাংলাদেশ।
  • ঢাকায় গড়া ৬৩ বছর আগের রেকর্ড ভাঙলেন মুশফিক-লিটন
    ২৪ রানে নেই ৫ উইকেট! সাম্প্রতিক সময়ে এমন ধ্বংসস্তুপে দাঁড়িয়ে সৌধ রচনা করতে পারেনি বাংলাদেশ। বরং ধসের টানে ইনিংস ৪৩, ৫৩ কিংবা ৮০ রানে গুটিয়ে যাওয়ার উদাহরণ আছে। ঢাকাতেই ৬৩ বছর আগে গড়া রেকর্ড ভেঙে এবার তেমন কিছু হতে দিলেন না মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাস।
  • ‘দল আমার কাছে অনেক কিছু চায়, আমাকে মূল্যবান মনে করে’
    টেস্টে কিপার-ব্যাটসম্যানদের কাজটি এমনিতেই কঠিন। উইকেটের পেছনে লম্বা সময় কাটানোর পর উইকেটের সামনেও বড় ইনিংস খেলার চ্যালেঞ্জ। স্কিল, মানসিকতা ও ফিটনেসে কঠিন পরীক্ষা দিতে হয় তাদের নিয়মিতই। সেটি যদি হয় চলতি চট্টগ্রাম টেস্টের মতো প্রচণ্ড গরমে, তাহলে তো জীবনীশক্তি প্রায় নিঃশেষ হয়ে যাওয়ার কথা। লিটন কুমার দাস এই চ্যালেঞ্জ জয়ের রসদ খুঁজে পান ড্রেসিং রুমেই। দল তাকে যেভাবে গুরুত্ব দেয়, তাতে দারুণ অনুপ্রাণিত তিনি।
  • বলে খোঁচা লেগেছে, বোঝেননি ম‍্যাথিউসও
    সৈয়দ খালেদ আহমেদের বল ব‍্যাটের কানা ঘেঁষে জমা গড়ল লিটন দাসের গ্লাভসে। আবেদন করলেন না বাংলাদেশ দলের কেউ। কিপার লিটন দাস কিংবা অন‍্য কেউই শোনেননি কোনো শব্দ। দিন শেষে জানা গেল তাদের শোনা দূরের কথা, স্বয়ং ব‍্যাটসম‍্যান অ‍্যাঞ্জেলো ম‍্যাথিউসও কোনো শব্দ শোনেননি। টের পাননি বলে ব‍্যাটের আলতো স্পর্শ।
  • লিড দূরের পথ, বাংলাদেশের লক্ষ‍্য ব্যবধান কমানো
    দ্বিতীয় দিনের লাঞ্চের পরই স্পষ্ট হতে শুরু করে, উইকেটে স্পিনারদের জন্য সহায়তা বাড়ছে। শেষ বেলায় সেটা আরও নিশ্চিত হয় সাইমন হার্মার ও কেশভ মহারাজের বোলিংয়ে। স্পিনাররা টার্ন পাচ্ছেন, কখনও কখনও বল নিচু হচ্ছে। দ্বিতীয় দিন শেষে খেলার যা চিত্র, এমন পরিস্থিতিতে লিড নেওয়া মেহেদী হাসান মিরাজের কাছে মনে হচ্ছে দূরের পথ।
  • ৪ ওভারে ৩৮ রান দিয়ে কী ভাবছিলেন মিরাজ?
    পঞ্চম বোলারের জন‍্য বিপদে পড়ে যাবে না তো বাংলাদেশ? মেহেদী হাসান মিরাজের প্রথম স্পেল শেষে ধীরে ধীরে প্রশ্ন উঠছিল। অধিনায়ক তামিম ইকবালের কপালেও নিশ্চয় পড়ছিল চিন্তার ভাঁজ। তবে বোলার মিরাজ নিজে কী ভাবছিলেন, ম‍্যাচের একদিন পর নিজেই জানালেন তরুণ এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার।
  • বাংলাদেশের স্মরণীয় জয়
    মাহমুদউল্লাহকে রিভার্স সুইপ করতে গেলেন কেশভ মহারাজ। বল আঘাত হানল তার প্যাডে। এলবিডব্লিউয়ের আবেদনে আম্পায়ারের সাড়া যদিও মিলল না। তামিম ইকবাল নিলেন রিভিউ। বদলে গেল আগের সিদ্ধান্ত। লেখা হলো নতুন ইতিহাস। বাংলাদেশ পেল অনির্বচনীয় এক স্বাদ। দক্ষিণ আফ্রিকায় স্বাগতিকদের বিপক্ষে ধরা দিল প্রথম জয়!
  • ভাবনার জগতে শান দিয়ে দ্যুতিময় লিটন
    টেস্ট ও ওয়ানডেতে দারুণ সময় কাটানো লিটন দাস নিজের ছায়া হয়ে ছিলেন টি-টোয়েন্টিতে। বিশ্বকাপে নিদারুণ ব‍্যর্থতায় জায়গাও হারিয়েছিলেন এই দলে। অন‍্যদের ব‍্যর্থতায় আবার ফিরে করলেন ঝকঝকে এক ফিফটি। আভাস দিলেন অন‍্য দুই সংস্করণের ছন্দটা নিয়ে আসছেন টি-টোয়েন্টিতেও।
  • অসময়ে সাকিব-মাহমুদউল্লাহর আউট নিয়ে লিটনের আফসোস
    শুরুতে বাংলাদেশের লক্ষ্য ছিল ১৫০ থেকে ১৬০ রানের মাঝে একটি সংগ্রহ গড়ার। তবে আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টি-টোয়েন্টিতে সুযোগ এসেছিল সেটি ছাড়িয়ে যাওয়ার। তবে সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহর বিদায়ে দুবার মোমেন্টাম হাতছাড়া হওয়ায় সেটি সম্ভব হয়নি বলে মনে করেন লিটন দাস।
  • লিটন-নাসুমের দ্যুতিতে কাটল খরা
    রঙিন পোশাকের এই সংস্করণে বাংলাদেশ বরাবরই ভীষণ সাদামাটা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে ক্রমেই ডুবে যাচ্ছিল অতলে। লিটন দাসের আলো ঝলমলে ফিফটির পর নাসুম আহমেদের দ‍্যুতিময় বোলিংয়ে কাটল সেই আঁধার। টানা আট হারের পর আফগানিস্তানকে উড়িয়ে জয়ে ফিরল বাংলাদেশ।
  • ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে লিটন, পেছালেন মুশফিক-মিরাজ
    আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছেন লিটন কুমার দাস। আইসিসি ওয়ানডে ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা অবস্থানে উঠেছেন বাংলাদেশের ওপেনার। অবনতি হয়েছে মুশফিকুর রহিম ও মেহেদী হাসান মিরাজের।
  • ‘ভুল সময়ে আউট হয়েছে লিটনও’
    লিটন দাস একাই করেন ৮৬ রান, দলে বাকি সবার ব‍্যাট থেকে আসে কেবল ৯৭। এরপরও দলের সংগ্রহ বড় না হওয়ায় ওপেনারেরও কিছুটা দায় দেখছেন তামিম ইকবাল। বাংলাদেশ অধিনায়কের মতে, ভুল সময়ে আউট হয়েছিলেন লিটন। ছন্দে থাকা এই ডানহাতি ব‍্যাটসম‍্যানও মনে করেন, তিনি আরও কয়েক ওভার ক্রিজে থাকলে খেলার চিত্রটা ভিন্নরকম হতে পারতো।
  • শেষের ব্যর্থতায় মিলিয়ে গেল আকাঙ্ক্ষার ১০ পয়েন্ট
    মাঠে বাংলাদেশের টানাটানির সংসার প্রকাশ্য হয় অনেক সময়ই। এটা থাকে তো ওটা থাকে না। এবার দেখা গেল চাল, ডাল, তেল, নুন, কিছুই নেই! সিরিজ জয়ের পর চাপমুক্ত হয়ে যেদিন পারফরম্যান্স হতে পারত পরিশীলিত, সেই দিনটিতেই ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং, সবকিছু যেন প্রতিযোগিতায় নেমে গেল, কোনটির চেয়ে কোনটি খারাপ। তবে দিনশেষে বিজয়ী সম্ভবত ‘শরীরী ভাষা’, খারাপের দৌড়ে এটিই সেরা!
  • ‘লিটন-মুশফিকের জুটি ছিল জয়ের ভিত’
    টানা দুই ম‍্যাচে দুটি রেকর্ড জুটি পেল বাংলাদেশ। আগের দিন আফগানিস্তানের মুঠো থেকে জয় কেড়ে নিয়েছিলেন আফিফ হোসেন ও মেহেদী হাসান মিরাজ। এবার লিটন দাস ও মুশফিকুর রহিম চমৎকার জুটিতে গড়ে দিলেন ম‍্যাচের ভাগ‍্য। তৃতীয় উইকেটে বাংলাদেশের প্রথম দুইশ ছোঁয়া জুটি উপহার দেওয়া দুই ব‍্যাটসম‍্যানকে প্রশংসায় ভাসালেন তামিম ইকবাল।
  • ‘টেস্ট ব্যাটিং করে’ লিটনের ওয়ানডে সেঞ্চুরি
    গায়ে রঙিন পোশাক। খেলা ৫০ ওভারের। বোলারের হাতে সাদা বল। কিন্তু ব্যাটসম্যান ঢুকে গেলেন অন্য এক জগতে। যেখানে তার গায়ের পোশাক সাদা। সামলাতে হবে চকচকে লাল বলের চ্যালেঞ্জ। রান ভুলে শুরুতে আঁকড়ে রাখতে হবে উইকেট। ভাবনার জগতে এভাবে ডুব দিয়েই আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচের সেঞ্চুরিটি করেছেন লিটন কুমার দাস।
  • ‘আমরা সিনিয়র হচ্ছি না? আমরাও উন্নতি করছি’
    উত্তরটা দেওয়ার শুরুতে এক চিলতে হাসি খেলে গেল লিটন কুমার দাসের মুখে, “আমরা সিনিয়র হচ্ছি না…!” হাসির রেশ মিলিয়ে যাওয়ার পর কণ্ঠের আত্মবিশ্বাসটা বোঝা গেল আরও স্পষ্ট করে, “আমরাও তো ম্যাচ খেলে খেলে উন্নতি করছি…।” মানসিকতায় উন্নতি ও পরিণত হওয়ার প্রমাণ যেমন ব্যাট হাতে দিচ্ছেন তিনি, তেমনি সরাসরি বলে দিলেন সংবাদ সম্মেলনে কথায়ও।
  • লিটন-মুশফিক জুটির রেকর্ড
    ব্যাটিং অর্ডারে দুজনের ব্যাটিংয়ে দূরত্ব খুব বেশি নয়। ওয়ানডেতে তবু বিস্ময়করভাবে লিটন কুমার দাস ও মুশফিকুর রহিমের শতরানের জুটি হলো এই প্রথম! সেই জুটিকে তারা এতটাই এগিয়ে নিলেন যে তা পৌঁছে গেল রেকর্ড উচ্চতায়।
  • লিটনের সেঞ্চুরিতে সিরিজ জিতে বাংলাদেশের ‘১০০’
    প্রথম ম্যাচের মতো জমজমাট লড়াই হলো না। জয়ের পর তাই উল্লাসও তেমন কিছু দেখা গেল না। তবে উদযাপনের উপলক্ষ কিন্তু এ দিন আরও বেশি! আফগানদের বিপক্ষে সিরিজ জয় হয়তো খুব বড় কিছু নয়। তবে দুই ম্যাচেই সিরিজ জয় তো বড় স্বস্তিই। সঙ্গে আছে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ সুপার লিগে প্রথম দল হিসেবে পয়েন্টের সেঞ্চুরি করার গৌরবও। প্রাপ্তিতে টইটম্বুর দিনটি এলো লিটন কুমার দাসের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির সৌজন্যে।
  • টি-টোয়েন্টিতে ফিরলেন মুশফিক-লিটন, প্রথমবার দলে মুনিম
    টি-টোয়েন্টি থেকে মুশফিকুর রহিমের বিশ্রাম পর্ব শেষ হলো একটি সিরিজ দিয়েই। আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দলে রাখা হয়েছে অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যানকে। ফিরেছেন ওপেনার লিটন কুমার দাসও। প্রথমবারের মতো সুযোগ পেয়েছেন সদ্যসমাপ্ত বিপিএলে ঝড়ো ব্যাটিংয়ে নজর কাড়া ওপেনার মুনিম শাহরিয়ার।
  • মইনের অলরাউন্ড ঝলকে ঝলসে গেল খুলনা
    চার ওভারের কোটার শেষ বলে উইকেট বঞ্চিত মইন আলি। লং অনে সহজ ক্যাচ নিতে ব্যর্থ বদলি ফিল্ডার ক্যামেরন ডেলপোর্ট। তাতে অবশ্য মইনের কোনো ভাবান্তর নেই, ফিল্ডারদেরও নেই তেমন ভ্রুক্ষেপ। বরং অধিনায়ক ইমরুল কায়েস ও আরও কয়েকজন ছুটে এসে পিঠ চাপড়ে দিলেন মইনের, জানালেন অভিবাদন। শেষ বলের আগেই ব্যাটে-বলে যা করেছেন ইংলিশ অলরাউন্ডার, ম্যাচ যে তাতেই মুঠোয় পেয়ে গেছে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স!
  • মুস্তাফিজের পাঁচ উইকেটের পর ইমরুল-লিটনের ব্যাটিং ঝলক
    আগের ম‍্যাচে হেরে তেতে থাকা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের আগুনে পুড়ল চট্টগ্রাম চ‍্যালেঞ্জার্স। জয়রথ থামার পরের ম‍্যাচে ইমরুল কায়েসের দল রান তাড়া করে ফেলল কেবল ১ উইকেট হারিয়েই। পাঁচ উইকেট নিয়ে জয়ের ভিত গড়ে দিলেন বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। আসরে প্রথমবারের মতো ওপেনিংয়ে নেমে চমৎকার এক ইনিংস খেললেন ইমরুল, ফিফটি পেলেন লিটন দাস। এই তিন জনের দারুণ পারফরম্যান্সে কুমিল্লার কাছে পাত্তাই পেল না চট্টগ্রাম।
  • আইপিএল নিলামের চূড়ান্ত তালিকায় বাংলাদেশের ৫ জন
    আইপিএলের মেগা নিলামের জন্য ক্রিকেটারদের চূড়ান্ত তালিকায় প্রত্যাশিতভাবে আছেন সাকিব আল হাসান ও মুস্তাফিজুর রহমান। ভারতের ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্টে নিয়মিত খেলা এই দুই ক্রিকেটার ছাড়া বাংলাদেশ থেকে জায়গা হয়েছে আরও তিন জনের।
  • দু-প্লেসি-ডেলপোর্ট-লিটনের ব্যাটে কুমিল্লার তিনে তিন
    বিশ্বকাপে ব্যর্থতার পর প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি খেলতে নেমে রান পেলেন লিটন দাস। প্রায় শুরু থেকেই শেষ পর্যন্ত দলকে টানলেন ফাফ দু প্লেসি। শেষটায় ঝড়ো ব‍্যাটিংয়ে ফিফটি করলেন ক‍্যামেরন ডেলপোর্ট। তিন জনের ব‍্যাটে যে উচ্চতায় পৌঁছল কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, সেটির ধারেকাছে যেতে পারল না চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।
  • ক্যারিয়ার সেরা র‍্যাঙ্কিংয়ে লিটন
    নিউ জিল্যান্ড সফরে দুর্দান্ত ব্যাটিং উপহার দিয়েছেন লিটন কুমার দাস। সিরিজের দুই টেস্টেই হেসেছে তার ব্যাট। এতে আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্যারিয়ার সেরা ১৫তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশের এই কিপার-ব্যাটসম্যান।
  • ‘লিটন যেন অনেক বেশি সময় পায়’
    নিল ওয়্যাগনারের যে বাউন্সার সতীর্থদের জন্য ছিল বিভীষিকা, সেটাই লিটন দাসের জন্য যেন ছিল চারের আমন্ত্রণ। অনায়াসে চমৎকার সব পুল শটে মারছিলেন একের পর এক বাউন্ডারি। বাইরে থেকে সতীর্থরা ভাবছিলেন, এত সহজে কীভাবে খেলছেন লিটন। তার সাবলীল ব্যাটিং দেখে অধিনায়ক মুমিনুল হকের মনে হচ্ছিল, বাড়তি সময় পাচ্ছেন এই সতীর্থ।
  • স্ট্রোকের ফুলঝুরি ছুটিয়ে লিটনের সেঞ্চুরি
    একটি সেঞ্চুরির জন্য কত অপেক্ষা। তবে সেটি পেয়ে যাওয়ার পর দ্বিতীয়টির জন্য খুব বেশি দিন অপেক্ষা করতে হলো না লিটন দাসের। স্ট্রোকের ফুলঝুরি ছুটিয়ে ছুঁলেন তিন অঙ্ক, দেখালেন নিউ জিল্যান্ডে রানের পথ।
  • বড় হারের আগে লিটনের চোখধাঁধানো সেঞ্চুরি
    নান্দনিকতা ও নিয়ন্ত্রণ, কতৃত্ব আর কাব্যিক শটের মহড়া, সবকিছুই ফুটে উঠল একটি ইনিংসে। দল বড় হারের পথে। ম্যাচ তিন দিনেই খতম হওয়ার দিকে। প্রতিপক্ষের পেস আক্রমণের একের পর এক থাবা। সবকিছু একদিকে, লিটন কুমার দাস যেন ভিন্ন এক ভুবনে। কখনও তিনি শিল্পী। হ্যাগলি ওভালের সবুজ ক্যানভাসে আঁকলেন তুলি আঁচড়। কখনও তিনি রাজা। প্রবল দাপটে আছড়ে ফেললেন ‘শত্রুর’ সব বাধা!
  • ‘ইবাদত প্রমাণ করেছে, সে ভালো বোলার’
    টেস্ট প্রতি উইকেট মোটে একটি করে। বোলিং গড় ভীষণ বাজে। ওভারপ্রতি রান অনেক বেশি। মাউন্ট মঙ্গানুই টেস্টের আগে ইবাদত হোসেন চৌধুরির টেস্ট রেকর্ড ছিল একদমই যাচ্ছেতাই। বোলিংয়ে স্কিল, কারুকাজ ও ধারাবাহিকতাও দেখা যায়নি আগে তেমন। সেই ইবাদতই দুর্দান্ত বোলিং করে বাংলাদেশকে নিয়ে গেছেন অভাবনীয় এক জয়ের কাছে।
  • জয়ের ভাবনায় ‘ওভার এক্সাইটেড’ নয় বাংলাদেশ দল
    মাউন্ট মঙ্গানুইতে রাতটি কেমন কাটবে বাংলাদেশ দলের? বাংলাদেশের ক্রিকেটে এমন মুহূর্ত খুব বেশি আসে না। নিউ জিল্যান্ডে গিয়ে এমন সম্ভাবনার হাতছানি নিয়ে রাতে ঘুমুতে যাওয়ার শিহরণও আগে কখনও পেতে হয়নি। রোমাঞ্চ-উত্তেজনার নানা অনুভূতিই তাই ক্রিকেটারদের মনে দোলা দেওয়ার কথা। লিটন দাস যদিও বলছেন, জয়-হার নিয়ে ভাবছেই না দলের কেউ।
  • লিড পাওয়ার দিনে তিন সেঞ্চুরি হাতছাড়ার হতাশা
    প্রত্যাশাকে ছাড়িয়ে যাওয়ার প্রাপ্তি আছে। আশা জাগিয়ে পূরণ করতে না পারার আক্ষেপও আছে। দিনজুড়ে এমনই হর্ষ-বিষাদের নানা রঙের খেলা। তবে দিন শেষের সমীকরণে ড্রেসিং রুমে হয়তো বসছে হাসিমুখের মেলা। নিউ জিল্যান্ডে আরও একটি দিন কাটাল বাংলাদেশ তৃপ্তির হিল্লোল জাগানিয়া সুন্দর।
  • লিটনের নান্দনিকতা ও মুমিনুলের দৃঢ়তায় দারুণ এক সেশন
    কাইলে জেমিসনের বলে লিটন দাসের নান্দনিক ড্রাইভে তিন রান। সেশনের প্রথম বলেই যে ইঙ্গিত, পরের সময়টায় সেটি রূপ পেল পূর্ণতার। প্রথম সেশনের সব অস্বস্তি আর জড়তা পরের সেশনে গেল মিলিয়ে। লিটনের চোখ জুড়ানো সব শটের মহড়া আর মুমিনুল হকের চোয়ালবদ্ধ দৃঢ়তায় নিউ জিল্যান্ডকে হতাশ করে বাংলাদেশ কাটাল দুর্দান্ত এক সেশন।
  • বাংলাদেশ ক্রিকেটের পেছন পানে হাঁটার বছর
    আলো ঝলমলে কিছু সংখ্যা। কিন্তু সেই আলোর গভীরে আঁধার। রেকর্ড ফুটিয়ে তুলছে উজ্জ্বল কিছু পরিসংখ্যান। কিন্তু সেসবের আড়ালে কেবলই অমানিশা। ২০২১ সালে হাতছানি ছিল অনেক অর্জন ও প্রাপ্তির, প্রতি বছরের মতোই সুযোগ ছিল সামনে এগিয়ে চলার। কিন্তু বাংলাদেশের ক্রিকেট এ বছর ছিল উল্টো রথের যাত্রী।
  • ছন্দে ফিরতে অনুশীলনে মনোযোগী বাংলাদেশ
    নিউ জিল্যান্ডে ১১ দিন ঘরবন্দি থেকে স্বাভাবিকভাবেই জড়তা চলে এসেছিল বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের মাঝে। টানা দুই দিন অনুশীলন করে তা অনেকটাই কেটে গেছে। লিটন দাস মনে করছেন, এভাবে কয়েক দিন অনুশীলন করতে পারলে আবারও ছন্দে ফিরতে পারবেন তারা।
  • ব্যাটসম্যান ও অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে সাকিবের উন্নতি
    পাকিস্তানের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্টে বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের পারফরম্যান্স ছিল যাচ্ছেতাই। দলের দুই ইনিংসেই সর্বোচ্চ রান করেন সাকিব আল হাসান। যার প্রভাব পড়েছে তার র‍্যাঙ্কিংয়ে। আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যান ও অলরাউন্ডারদের র‍্যাঙ্কিংয়ে এগিয়েছেন তিনি।
  • ব‍্যাটিংয়ের ধরন নিয়ে প্রশ্নে অবাক মুমিনুল
    টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ কিংবা পাকিস্তানের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজেও রানের জন‍্য এতটা মরিয়া দেখা যায়নি বাংলাদেশের ব‍্যাটসম‍্যানদের। মিরপুর টেস্টের চতুর্থ দিন শেষ বেলায় রানের জন‍্য যেন মরিয়া ছিলেন সবাই। নিচ্ছিলেন মস্ত বড় ঝুঁকি, এর মাশুল দিতে হয় উইকেট বিলিয়ে। বাংলাদেশের সেই ব‍্যাটিং বিস্মিত করেছে প্রায় সবাইকে। তবে তাদের ব‍্যাটিংয়ের ধরন নিয়ে প্রশ্নে অবাক বাংলাদেশ অধনায়ক মুমিনুল হক।
  • র‌্যাঙ্কিংয়ে ২৪ ধাপ এগোলেন লিটন, সেরা বিশে মুশফিক
    চট্টগ্রাম টেস্টে দুই ইনিংসেই দলের ব্যাটিং বিপর্যয়ে দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন লিটন কুমার দাস। সেঞ্চুরির পর দ্বিতীয় ইনিংসে করেন ফিফটি। ব্যাট হাতে দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের ছাপ পড়ল তার র‌্যাঙ্কিংয়ে। আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের তালিকায় বড় লাফ দিলেন বাংলাদেশের কিপার-ব্যাটসম্যান।
  • টেস্টের আঁধারে বাংলাদেশের ‘আলোর রেখা’ লিটন
    টেস্ট চ‍্যাম্পিয়নশিপের প্রথম চক্রে প্রাপ্তি ছিল কেবল একটি ড্র। দেশের মাটিতে ডুবতে হয়েছিল খর্ব শক্তির ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে হোয়াইওয়াশ হওয়ার হতাশায়। এত সব আঁধারের মধ্যে রাসেল ডমিঙ্গোর চোখে আলোর রেখা লিটন কুমার দাসের ব‍্যাটিং। এই কিপার-ব‍্যাটসম‍্যানের পারফরম‍্যান্সে বাংলাদেশ কোচ এতটাই খুশি যে, আগামী এক বছরের মধ্যে তাকে চার কিংবা পাঁচে খেলানোর কথা ভাবছেন।
  • লিটনের কণ্ঠে দুঃসময়কে পেছনে ফেলার স্বস্তি
    কী ভীষণ কঠিন পরিস্থিতেই না ছিলেন লিটন দাস। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে দুটি সুযোগ হাতছাড়া করে রীতিমত খলনায়ক হয়ে গিয়েছিলেন। ব‍্যাটেও ছিল না রান। সব মিলিয়ে কাটছিল ভীষণ অস্বস্তিকর সময়। দুঃসময়ের প্রহর পেরিয়ে দারুণ সেঞ্চুরির পর লিটনের উপলব্ধি, পূরণ হয়েছে বড় চাওয়া, পেরিয়ে এসেছেন কঠিন সময়।
  • বাংলাদেশের মতো পাকিস্তানের ব্যাটিংয়েও ধসের আশায় লিটন
    ম্যাচের পরিস্থিতিতে আশার ছবি খুব একটা নেই বাংলাদেশের জন্য। তবে ম্যাচের ফেলে আসা পথ থেকে প্রেরণার উপকরণ খুঁজে নিচ্ছেন লিটন দাস। বাংলাদেশ যেভাবে বড় স্কোরের সম্ভাবনা জাগিয়েও গুটিয়ে গেছে এক সেশনে, পাকিস্তানের ইনিংসও সেভাবে ভেঙে পড়তে পারে!
  • স্টান্স বদল আর পরিশ্রমের মিশেলে লিটনের সেঞ্চুরি
    ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্স বলেছিলেন স্টান্সে একটু বদল আনার কথা। লিটন দাস সেটি উল্লেখ করে কৃতিত্ব দিলেন বিকেএসপির কোচদেরও। তবে মাঠে কাজটা তো স্বয়ং লিটনকেই করতে হয়েছে! পাকিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পর এই ব্যাটসম্যান বললেন, অনেক ঘাম ও শ্রমের ফসল এই ইনিংস।
  • যে কারণে রিভিউ নেয়নি বাংলাদেশ
    ৫৭ ওভার বোলিংয়ে কেবল একটি সুযোগই তৈরি করতে পেরেছিল বাংলাদেশ। ব্যাটসম্যানকে পরাস্ত করা, বল প্যাডে লাগা এবং ইমপ্যাক্ট-লাইন, সবই ছিল ঠিকঠাক। আম্পায়ার আউট না দেওয়ার পর প্রয়োজন ছিল রিভিউ নেওয়া। সেটিই করতে পারেনি বাংলাদেশ। দিনের খেলা শেষে লিটন দাস জানালেন রিভিউ না নেওয়ার কারণ।
  • ছবিতে বাংলাদেশের স্বপ্নময় দিন
    দিনের শুরুটা হয় দুঃস্বপ্নের মতো, তবে শেষটা হয়েছে যেন স্বপ্নময়। লিটন কুমার দাস ও মুশফিকুর রহিমের ব্যাটে পাকিস্তানের বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথম দিন দারুণ কেটেছে বাংলাদেশের। ৪৯ রানে ৪ উইকেট হারানোর পর আর কোনো উইকেট না হারিয়ে শেষ করেছে দিন, রান ২৫৩। প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরিতে ১১৩ রানে খেলছেন লিটন, ৮২ রানে অপরাজিত মুশফিক। পঞ্চম উইকেটে তাদের অবিচ্ছিন্ন জুটি ২০৪ রানের। ছবি: সুমন বাবু।
  • মুশফিকের কথাও মনে করিয়ে দিলেন প্রিন্স
    দলের বিপর্যয়ে নেমে দুর্দান্ত সেঞ্চুরির পর লিটন কুমার দাসের চর্চা চারপাশে। সেই স্তুতির জোয়ারে অন্য সবকিছুই প্রায় ভেসে যাওয়ার জোগাড়। তবে বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্স মনে করিয়ে দিলেন, মুশফিকুর রহিমের ইনিংসটিও মহামূল্য!
  • ‘লিটন আজকে দেখিয়েছে, সে ক্লাস ব্যাটসম্যান’
    তুমুল প্রতিভাবান, কিন্তু চরম অধরাবাহিক। বাংলাদেশের ক্রিকেটে লিটন দাসের পরিচয় এক লাইনে বলতে গেলে এমনই। নিজের জাত তিনি নানা সময় দেখিয়েছেন। তবে সেই দিনগুলি এত লম্বা বিরতির পর আসে যে অনেকেই তা ভুলে যান। তেমন একটি দিন এলো আবার। যে দিনের শেষে বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ অ্যাশওয়েল প্রিন্স বললেন, লিটনের জাত নিয়ে আর কারও সংশয় থাকার কথা নয়।
  • শতরানের নন্দন কাননে নতুন আশার আবাহন
    লিটন দাস তাহলে হাসতেও পারেন! যদিও এক চিলতে, কিছুক্ষণ তবু ঝুলে রইল তার মুখে। একটু আগেই একটা সিঙ্গেল নিতে শেষ মুহূর্তে এমনভাবে ঝাঁপালেন, যেন ওই এক রানেই বেঁচে থাকা, না পারলেই মরন। এরপর মাঠেই পড়ে রইলেন কিছুক্ষণ। ব্যথা পেলেন না তো? হয়তো সুখের মতো কোনো ব্যথা। উঠে দাঁড়াতেই দেখা গেল ঠোঁটের কোণে সেই হাসির ঝিলিক।
  • রঙিনে বিবর্ণ লিটনের সাদার ঔজ্জ্বল্য থাকবে তো?
    এই বছর লিটন কুমার দাস ভুলে যেতে চাইবেন। বছরটা তিনি ধরে রাখতেও চাইবেন! এ বছর তিনি দেখিয়েছেন ক্যারিয়ার সেরা পারফরম্যান্স। সবচেয়ে বাজে বছরও তার এটিই! আলো-আঁধারের এই খেলা গোলমেলে ঠেকছে তো? সত্যি আসলে দুটি বাস্তবতাই। সাদা পোশাকে এবার ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ চূড়ায় পা রেখেছেন লিটন। এবারই তলানিতে আছড়ে পড়েছেন রঙিন পোশাকে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে।
  • ব্যর্থ লিটন, মজিদ-রনির ফিফটি
    ব্যর্থতার বৃত্তে এখনও বন্দি লিটন কুমার দাস। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিষ্প্রভ থাকা এই ব্যাটসম্যান চলতি মৌসুমে প্রথমবার জাতীয় লিগে খেলতে নেমে ভালো করতে পারেননি। ফিফটি করেছেন আব্দুল মজিদ ও রনি তালুকদার।
  • ‘লিটনের আউট ম্যাচের বড় টার্নিং পয়েন্ট’
    শেষ ৭ বলে প্রয়োজন ১৩। একটা বাউন্ডারিতে সমীকরণ হয়ে যেত সহজ। এক প্রান্ত আগলে রাখা লিটন দাস সেই চেষ্টাই করলেন। ডোয়াইন ব্রাভোকে লং অনের ওপর দিয়ে মারতে চাইলেন ছক্কা। কিন্তু সীমানায় এমন কিছুর অপেক্ষাতেই ছিলেন জেসন হোল্ডার। ৬ ফুট ৭ ইঞ্চি লম্বা ক্রিকেটার একটু লাফিয়ে মুঠোয় জমালেন ক্যাচ। বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর মতে, এই আউট ম্যাচের বড় টার্নিং পয়েন্ট।
  • ‘লিটন গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়, দলের সেরা ফিল্ডারদের একজন’
    লোকের চোখ যেমন নায়ককে খোঁজে, তেমনি খলনায়ককেও। এই যেমন লিটন কুমার। তিনি কী করছেন না করছেন, খুঁটিয়ে দেখা হচ্ছে সব। কারণটা বুঝে নিতে কারও অসুবিধা হওয়ার কথা নয়। এমনিতেই ব্যাটে নেই রান। সঙ্গে যোগ হয়েছে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে গুরুত্বপূর্ণ দুটি ক্যাচ হাতছাড়া করে দলের হার ডেকে আনা। তবে অন্য যে কোনো দিনের মতোই তিনি সারলেন তার প্রস্তুতি। পাশে পেলেন দলকে, যেটার কথা অনুশীলন শুরুর আগেই বলে যান ওটিস গিবসন।
  • শাস্তি পেলেন লিটন ও কুমারা
    ঘটনার সময়েই আঁচ করা গিয়েছিল সম্ভাব্য ফল। এবার এলো আনুষ্ঠানিক ঘোষণা। আইসিসির আচরণবিধি ভঙ্গের জন্য শাস্তি পেলেন বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাস ও শ্রীলঙ্কার ফাস্ট বোলার লাহিরু কুমারা।
  • লিটনকে দায় দিচ্ছেন না মুশফিক, কিন্তু…
    হারের দায় সরাসরি কোনো সতীর্থকে দিতে চান না মুশফিকুর রহিম। কিন্তু নানা কথায় ঘুরে ফিরে এলো সেই প্রসঙ্গ। লিটন দাসের হাতছাড়া করা দুটি ক্যাচের প্রভাব এমনই। চাইলেই এড়িয়ে যাওয়া কিংবা ভুলে থাকা সম্ভব নয়। ১৪ বছর পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূল পর্বে জেতার সুযোগ এভাবে হারিয়ে তা আড়াল করতে পারছে না বাংলাদেশও। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সম্ভাবনা জাগিয়ে হেরে যাওয়ার পর মুশফিকদের চোখে ভাসছে সেই দুটি ক্যাচ।
  • শারজাহর উইকেটে মিরপুরের ছবি দেখছেন ডমিঙ্গো
    একসময় শারজাহর উইকেটে রাজত্ব করতেন ব্যাটসম্যানরা। ওই ২২ গজে ব্যাট হাতে নামলেই রানের চাষ করতেন সাঈদ আনোয়ার, শচিন টেন্ডুলকার, সৌরভ গাঙ্গুলি, ইনজামাম-উল-হকরা। কিন্তু সেই দিনগুলি এখন রূপকথার মতো। উইকেট নতুন করে তৈরির পর বদলে গেছে ঐতিহ্যবাহী এই মাঠের উইকেটের চরিত্রও। সেই বদল এতটাই যে, মিরপুরের সঙ্গে শারজাহর উইকেটের মিল পাচ্ছেন বাংলাদেশ কোচ রাসেল ডমিঙ্গো।
  • তবু উদ্বোধনী জুটিতে পরিবর্তন আনবে না বাংলাদেশ
    শঙ্কা কাটিয়ে সুপার টুয়েলভের আলোয় যেতে পেরেছে দল, তবে উদ্বোধনী জুটি এখনও ডুবে আঁধারে। শুরুর জুটিতে রান নেই অনেক দিন ধরে। বিশ্বকাপেও বহমান সেই ভোগান্তি। তবে ওপেনিং জুটিতে বদল এনে চিত্র বদলানোর চেষ্টা এখনই করবে না দল। কোচ রাসেল ডমিঙ্গো জানালেন, টিকে যাচ্ছে মোহাম্মদ নাঈম শেখ ও লিটন দাসের জুটি।
  • ‘দলের সবাই লিটন-মুশফিকের পাশে আছে’
    অনেক দিন থেকে রান নেই দুজনের কারও ব্যাটে। তবে দুজনের ওপর ভরসার কমতিও নেই দলের ভেতরে। অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বললেন, লিটন কুমার দাস ও মুশফিকুর রহিমের সামর্থ্যে প্রবল আস্থা তার ও দলের সবার।
  • ‘নাঈম ভালো করছে, একটি-দুটি ডট হতেই পারে’
    টপ অর্ডারে অন্যদের ব্যাটে যখন মারাত্মক খরা তখনও রান আসছে মোহাম্মদ নাঈম শেখের ব্যাটে। বড় ইনিংস খেলতে না পারলেও সবশেষ সাত ইনিংসে ছয়বারই গেছেন দুই অঙ্কে। কিন্তু গোল পাকাচ্ছে তার স্ট্রাইক রেট। প্রতি ম্যাচেই ডট যাচ্ছে অনেক বল। তবে এ নিয়ে ভাবছেন না মাহমুদউল্লাহ। বাংলাদেশ অধিনায়কের মতে, নাঈম ভালোই করছে আর কিছু বল তো ডট হতেই পারে।
  • বিশ্বকাপেও ওমানের উইকেটে রান জোয়ারের আশা
    এবড়োখেবড়ো পথে পা ফেলতে হয় সাবধানে। পাকা সড়কে ছুটতে হয় গতিময়তায়। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের সামনে ছিল সেই চ্যালেঞ্জ। টানা দুটি সিরিজ ব্যাটসম্যানদের ভুগতে হয়েছে মিরপুরের মন্থর ও টার্নিং উইকেটে। সেখান থেকে গিয়ে নামতে হয়েছে ওমানের ব্যাটিং সহায়ক উইকেট। তবে প্রথম পরীক্ষায় সেই দাবি মেটাতে পেরেছেন ব্যাটসম্যানরা। আশা এখন বিশ্বকাপেও এই পারফরম্যান্সের পুনরাবৃত্তির।
  • লিটন-নাঈমের ফিফটি, সোহানের তাণ্ডব, ‘গোল্ডেন ডাক’ মুশফিক
    শতরানের উদ্বোধনী জুটি ও শেষ দিকের টর্নেডো মিলিয়ে ব্যাটিং প্রস্তুতি দারুণ হলো বাংলাদেশের। ওপেনিংয়ে ঝড়ো ফিফটি করলেন লিটন দাস, মোহাম্মদ নাঈম শেখ নিজের মতো ব্যাটিংয়েই পেলেন ফিফটি। ছক্কার স্রোতে নুরুল হাসান সোহান খেললেন বিধ্বংসী এক ইনিংস। তবে অস্বস্তির কাঁটা হয়ে রইল সৌম্য সরকার ও মুশফিকুর রহিমের ব্যর্থতা। পরে প্রত্যাশিত জয় ধরা দিলেও খুব ধারাল হলো না বোলিং।
  • দায়িত্ব নিয়ে খেলা উচিত ছিল, উপলব্ধি লিটনের
    প্রথম তিন ওভারে পাঁচটি বাউন্ডারি। এমন দারুণ শুরুর পর তৃতীয় ওভারে আউট হয়ে গেলেন লিটন দাস। দিক হারানোর সেই শুরু, এরপর আর কক্ষপথে ফিরতে পারেনি বাংলাদেশ। তৃতীয় টি-টোয়েন্টিতে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে বড় ব্যবধানে হারের পর নিজেদের ভুল বুঝতে পারছেন বাংলাদেশ ওপেনার।
  • ‘নাঈম ও লিটন খুব ভালো ব্যাট করেছে’
    ম্যাচের পর ম্যাচ ২-৩ ওভারেই শেষ উদ্বোধনী জুটির দৌড়। সেখানে এবার লিটন কুমার দাস ও মোহাম্মদ নাঈম শেখের জুটিতে ৯ ওভারেও উইকেট নেই! উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচে বাংলাদেশের জয়ের পর অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ বলছেন, শুরুর জুটিতেই গড়া হয়েছে দলের জয়ের ভিত।
  • ‘লিটন ও মুশফিকের ফেরা দলের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ’
    হাতের তালুর মতো চেনা মাঠ। বেশিরভাগ সময় এখানেই খেলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। তাই অস্ট্রেলিয়া সিরিজে না খেললেও মুশফিকুর রহিম ও লিটন দাসের মানিয়ে নিতে কোনো সমস্যা হবে না বলে মনে করছেন অ্যাশওয়েল প্রিন্স। ব্যাটিং কোচের মতে, এই দুই ব্যাটসম্যানের দলে ফেরা বাংলাদেশের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ।
  • ফিরলেন মুশফিক-লিটন-আমিনুল, বাদ মিঠুন
    নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের বাংলাদেশ দলে অনুমিতভাবেই জায়গা পেয়েছেন মুশফিকুর রহিম ও লিটন কুমার দাস। এই দুজনের পাশাপাশি দলে ফিরেছেন আমিনুল ইসলাম বিপ্লবও। সবশেষ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজের দল থেকে বাদ পড়েছেন কেবল একজন-মোহাম্মদ মিঠুন।
  • জনসমাগম থেকে ক্রিকেটারদের দূরে থাকতে বলছে বিসিবি
    অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের সিরিজ শেষ হওয়ার পরদিন থেকেই মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামে নিয়মিত মুখ মুশফিকুর রহিম। সিরিজটি খেলতে না পারা অভিজ্ঞ ক্রিকেটার নেটে ঘাম ঝরিয়ে যাচ্ছেন নিয়মিত। মিরপুরে অনুশীলন করছেন লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, শামীম হোসেন, ইবাদত হোসেনরাও। জাতীয় ক্রিকেটারদের অনেকেই এই সময়টায় ছুটি কাটাচ্ছেন ঢাকার বাইরে। যারা মাঠে আসছেন কিংবা যারা মাঠ থেকে দূরে, সবার জন্যই বিসিবির পরামর্শ, কোভিডের ঝুঁকি এড়াতে চলতে হবে জনসমাগম এড়িয়ে।
  • অস্ট্রেলিয়া সিরিজে নেই লিটন
    ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মাঠের লড়াই শুরুর আগে আরেকটি ধাক্কা খেল বাংলাদেশ। পাঁচ ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে কিপার-ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে পাচ্ছে না স্বাগতিকরা।
  • টেস্ট ব্যাটিং ভাবনায় রেখে লিটনের এই সেঞ্চুরি
    তিন ম্যাচের মধ্যে দুই সেঞ্চুরি। ওয়ানডেতে দেশের ইতিহাসের সর্বোচ্চ ইনিংস। সব মিলিয়ে যেন উড়ছিলেন লিটন দাস। এরপরই করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে পড়ল লম্বা বিরতি। তাতেই যেন কেটে গেল তাল-লয়। স্টাইলিশ এই ব্যাটসম্যানের ব্যাট বেজে উঠল না একই সুরে। কঠিন সময় পেরিয়ে আবার যখন পারলেন, তখন তাকে দেখা গেল অন্য ছন্দে।
  • জিম্বাবুয়ের সঙ্গে হলেও লিটনের এই সেঞ্চুরি অন্যরকম
    পাওয়ার প্লে শেষে স্ট্রাইক রেট ৩৫। ১৫ ওভারে বাউন্ডারি নেই একটিও। ফিফটি এলো ৭৮ বলে। লিটন দাসই তো? ব্যাটিংয়ের ধরনে ধন্দে পড়ে যাওয়া অস্বাভাবিক নয়। তবে সত্যিই তিনি লিটনই। এই সংস্করণে নিজের ফর্মের কারণে হোক বা এই ম্যাচের পরিস্থিতির দাবি মেটাতে, নিজেকে তিনি মেলে ধরলেন অন্য রূপে। চেনা প্রতিপক্ষের সঙ্গে আবির্ভূত হলেন অচেনা চেহারায়। ফলাফল অবশ্য তার জন্য স্বস্তির, দলের জন্য তৃপ্তির।
  • লিটনের সেঞ্চুরি, সাকিবের ৫ উইকেটে রেকর্ড গড়া জয়
    শুরু আর শেষে কত অমিল! ২২ ওভারের বেশি বাকি থাকতেই ম্যাচ শেষ, রেকর্ড ব্যবধানে জয়। এসবকিছুই বলবে, হেসেখেলে জয়। অথচ শুরুতে কী বিপাকেই না পড়েছিল বাংলাদেশ! পরিণত ব্যাটিংয়ে লিটন দাসের লড়িয়ে সেঞ্চুরি সেই বিপদ থেকে উদ্ধার করে দলকে। পরে বল হাতে জ্বলে ওঠেন সাকিব আল হাসান। শুরুটা নড়বড়ে হলেও তাই শেষটায় এক বিন্দুতে মিলে যায় বাংলাদেশের প্রত্যাশা আর প্রাপ্তি।
  • ‘একাদশে জায়গার শক্ত দাবিদার সোহান’
    ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত পারফর্ম করে স্কোয়াডে তো জায়গা করে নিলেন নুরল হাসান সোহান। একাদশে কি সুযোগ মিলবে? তামিম ইকবাল দেখালেন আশা। তবে করলেন না পুরোপুরি খোলাসা। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডেতে দলের সম্ভাব্য ব্যাটিং অর্ডার নিয়েও আগে থেকে কোনো ধারণা দিতে নারাজ বাংলাদেশ অধিনায়ক।
  • টেস্ট র‍্যাঙ্কিংয়ে মাহমুদউল্লাহ-মিরাজের উন্নতি
    দলের বিপদে হাল ধরেছেন শক্ত হাতে। খেলেছেন ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে মাহমুদউল্লাহর দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের ছাপ পড়েছে র‍্যাঙ্কিংয়ে। আইসিসির টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‍্যাঙ্কিংয়ে ১৯ ধাপ এগিয়েছেন তিনি। বাংলাদেশের হয়ে বিদেশের মাটিতে রেকর্ড গড়া বোলিং করা মেহেদী হাসান মিরাজেরও উন্নতি হয়েছে র‍্যাঙ্কিংয়ে।
  • রান বাড়াতে মাহমুদউল্লাহর দিকে তাকিয়ে বাংলাদেশ
    দিক হারানো দলকে কক্ষপথে ফেরাতে লিটন দাসকে যোগ্য সহায়তা দিয়েই কাজ শেষ হয়নি মাহমুদউল্লাহর। প্রথম ইনিংসে রান যতটা সম্ভব বাড়িয়ে নিতে অভিজ্ঞ এই মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যানের দিকেই তাকিয়ে বাংলাদেশ। ব্যাটিং পরামর্শক অ্যাশওয়েল প্রিন্স চান, ইনিংস আরেকটু বড় করতে শেষ দুই ব্যাটসম্যান যতটা সম্ভব সহায়তা করুক মাহমুদউল্লাহকে। 
  • লিটনের ব্যাটে উদ্ধার, লিটনেই হতাশা
    সাধারণ গতির একটি শর্ট বল, লেগ স্টাম্পের বাইরে। লেগ সাইডে কত জায়গা দিয়েই তো অনায়াসে খেলা যায়। লিটন দাস পুল শটে হাওয়ায় ভাসিয়ে বল পাঠালেন সীমানার একমাত্র ফিল্ডারের কাছেই! ফাঁদে পা দিয়ে সম্ভাব্য মাইলফলকের অপমৃত্যু। আরাধ্য প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি অধরাই রইল তার।
  • আশরাফুলের ম্যাচ জেতানো ইনিংসে আড়াল লিটন
    একজন দেশের ক্রিকেটের বর্তমান ও ভবিষ্যত, নিত্যই যাকে নিয়ে আশা-নিরাশার দোলাচল। আরেকজন বিষাদময় অতীত, যার নিবু নিবু বর্তমানে মিশে থাকে আক্ষেপের দীর্ঘশ্বাস। লিটন দাস ও মোহাম্মদ আশরাফুল, এক ম্যাচেই দুজন দেখালেন, কেন তাদেরকে নিয়ে এত আলোড়ন। দুজনের আলো ছড়ানোর দিনে শেষ হাসি আশরাফুলের।
  • তৃতীয় ওয়ানডের দলে নাঈম
    টানা ব্যর্থতার পরও দলে টিকে গেছেন লিটন দাস। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডের দলে আরেক জন ওপেনারকে যোগ করেছে বাংলাদেশ। ডাক পেয়েছেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ।
  • লিটনের বড় ইনিংস 'এই এলো বলে'
    সবশেষ দুই ওয়ানডে সিরিজে রান নেই লিটন দাসের ব্যাটে। তাতে অবশ্য উদ্বেগের বেশি কিছু দেখছেন না রাসেল ডমিঙ্গো। বাংলাদেশের প্রধান কোচের বিশ্বাস, তরুণ এই ওপেনারের ব্যাট থেকে বড় ইনিংস আসতে খুব দেরি নেই।
  • লিটন-সৌম্যর কাছে চাওয়া ‘মুশফিকের ধারাবাহিকতা’
    প্রতিভা নিয়ে সংশয় আছে সামান্যই। কিন্তু পারফরম্যান্স বলতে কেবল মাঝেমধ্যে কিছু ঝলক। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৬ বছর হতে চলল লিটন দাসের, সৌম্য সরকার তো অর্ধযুগ পেরিয়েই গেছেন। প্রত্যাশা মেটাতে পেরেছেন তারা কমই। তামিম ইকবালের মতে, লিটন-সৌম্যর সময় এখন দলের আস্থার প্রতিদান দেওয়ার। এই দুজনের ব্যাটে মুশফিকুর রহিমের মতো ধারাবাহিকতা দেখতে চান বাংলাদেশের ওয়ানডে অধিনায়ক।
  • স্মার্ট ক্রিকেট খেলতে হবে, উপলব্ধি লিটনের
    সীমিত ওভারের ক্রিকেটে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা দলের মধ্যে পার্থক্য খুব বেশি দেখেন না লিটন দাস। তবে নিজেদের কন্ডিশনে, চেনা আঙিনায় নিজেদেরকে অনেক ভালো দল বলেই বিশ্বাস তার। এখন এই ওপেনারের চাওয়া, মাঠে নেমে স্মার্ট ক্রিকেট খেলা।
  • লিটনের ভাবনায় ‘১০ ওভার খেলা’
    ভিত্তিটা শক্ত হলেই গড়ে তোলা যায় সুউচ্চ সৌধ্য। ক্রিকেটের চিরায়ত এই সত্যই এখন লিটন দাসের ভাবনা জুড়ে। সামনের শ্রীলঙ্কা সিরিজে তার চাওয়া, প্রথম ১০ ওভার উইকেটে কাটিয়ে দেওয়া। স্টাইলিশ ওই ওপেনারের বিশ্বাস, প্রথম লক্ষ্যে সফল হলেই ধরা দেবে আরও বড় প্রাপ্তি।
  • পিএসএলে সাকিব-মাহমুদউল্লাহ-লিটন
    আবার পিএসএলে খেলার সুযোগ পেয়েছেন সাকিব আল হাসান ও মাহমুদউল্লাহ। প্রথমবারের মতো পাকিস্তানের এই টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে দল পেয়েছেন লিটন দাস।
  • দুই পজিশন মিলিয়ে লিটনের ফিফটি, মিরাজের ৩ উইকেট
    ইনিংস ওপেন করে ২৭ রানে অপরাজিত, আবার সাতে নেমে ৬৪ রান করে স্বেচ্ছাবসর। দুই পজিশনে ব্যাটিং অনুশীলন সেরে নিলেন লিটন দাস। প্রথমে শূন্য রানে আউট হয়ে আবার ব্যাটিংয়ে নেমে রানের দেখা পেলেন মুমিনুল হক। বল হাতে ৩ উইকেট নিয়ে প্রস্তুতি খারাপ হলো না মেহেদী হাসান মিরাজেরও।
  • শেষ ম্যাচে নেই মাহমুদউল্লাহ, অধিনায়ক লিটন
    নিউ জিল্যান্ড সফরের শেষ ম্যাচে মাঠে নামার আগেই বড় এক ধাক্কা খেল বাংলাদেশ দল। ধুঁকতে থাকা দল এই ম্যাচে মাঠে পাচ্ছে না অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহকে। চোটের কারণে ছিটকে গেছেন তিনি। তার জায়গায় দলকে নেতৃত্ব দেবেন লিটন কুমার দাস।
  • ১১ ধাপ এগোলেন লিটন, ৫ ধাপ করে তামিম-তাইজুল
    ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেয়েছেন তামিম ইকবাল, লিটন দাস ও তাইজুল ইসলাম। আইসিসির টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে বাংলাদেশের এই তিন জনের।
  • তিনশর নিচে গুটিয়ে গেল বাংলাদেশ
    লিটন দাস ও মেহেদী হাসান মিরাজ দারুণ একটি সেশন কাটানোর পর রাকিম কর্নওয়ালের স্পিনে ধস নামল বাংলাদেশের ইনিংসে। স্বাগতিকদের তিনশ রানের নিচে থামিয়ে শতরানের লিড পেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। 
  • লিটন-মিরাজের ব্যাটে বাংলাদেশের দারুণ সেশন
    মোহাম্মদ মিঠুন ও মুশফিকুর রহিমের দুটি উইকেট উপহারের ফলে অনেক শঙ্কায় পড়ে যাওয়া বাংলাদেশকে টানছেন লিটন দাস ও মেহেদী হাসান মিরাজ। ফিফটি তুলে নেওয়া দুই ব্যাটসম্যান শতরানের জুটিতে এড়িয়েছেন ফলো অন। দলকে উপহার দিয়েছেন প্রথম উইকেটশূন্য সেশন।  
  • লাল বলে রঙিন সিরিজের আশায় লিটন
    ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোয়াইটওয়াশ করা ওয়ানডে সিরিজে বাংলাদেশের টুকটাক হতাশা যা আছে, তার একটি বড় অংশ হয়তো লিটন দাসের পারফরম্যান্স। রঙিন পোশাকের সেই বিবর্ণ সিরিজ ভুলে তিনি এখন তাকাচ্ছেন সামনে। স্টাইলিশ এই ব্যাটসম্যান সাফল্যে রাঙাতে চান টেস্ট সিরিজ।
  • গ্রানাইটের স্লাবে ব্যাটিং ও ‘লোয়ার অর্ডার কোচ’ লিটন
    একটি নেটে ব্যাট করছিলেন ইবাদত হোসেন চৌধুরি। আম্পায়ারের পজিশনে দাঁড়িয়ে ব্যাটিং কোচ জন লুইস তাকে টুকটাক পরামর্শ দিচ্ছিলেন। লুইসের পাশেই ছিলেন লিটন দাস। চিৎকার করে তিনি ইবাদতকে বললেন, ‘ইবা, স্টান্সে একটু নিচু হয়ে দাঁড়া।’ ঠিক পাশের নেটে তখন দুর্দান্ত একটি স্ট্রেট ড্রাইভ খেললেন সৈয়দ খালেদ আহমেদ। শট দেখে মুগ্ধতায় তালি দিয়ে উঠলেন সবাই। কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বললেন, “ফ্যান্টাস্টিক শট, মাই বয়…।” পাশের আরেকটি নেটে মুশফিকুর রহিম তখন ব্যস্ত গ্রানাইটের স্লাবে ‘থ্রো ডাউন’ খেলতে।
  • রাজশাহীকে মাড়িয়ে চট্টগ্রামের আটে সাত
    শীর্ষ চারে থাকার লড়াইয়ে টিকে থাকতে জয়টা ভীষণ জরুরি ছিল রাজশাহীর। কিন্তু প্রশ্নবিদ্ধ কৌশল আর ব্যাটে-বলে ধারহীন পারফরম্যান্সে সেই ম্যাচই তারা হেরে বসল বাজেভাবে। আগেই শীর্ষস্থান নিশ্চিত করে ফেলা চট্টগ্রাম দারুণ জয়ে আত্মবিশ্বাস আরও পোক্ত করে নিল ফাইনালের লড়াইয়ের জন্য।