ভ্যাঙ্কুভারে মাল্টিকালচারাল হেল্পিং হাউজ সোসাইটির সঙ্গে জিভিবিসিএর চুক্তি

কানাডার একটি অভিবাসীদের সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আনুষ্ঠানিক অংশীদারি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে গ্রেটার ভ্যাঙ্কুভার বাংলাদেশ কালচারাল অ্যাসোসিয়েশন।

প্রবাস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 16 Sept 2015, 12:04 PM
Updated : 17 Sept 2015, 01:34 PM

শুক্রবার আনুষ্ঠানিকভাবে ‘কম্যুনিটি পার্টনার’ হিসেবে যাত্রা শুরু হয়েছে মাল্টিকালচারাল হেল্পিং হাউজ সোসাইটি এবং গ্রেটার ভ্যাঙ্কুভার বাংলাদেশ কালচারাল এসোসিয়েশনের (জিভিবিসিএ)।

আনুষ্ঠানিকভাবে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেন মাল্টিকালচারাল হেল্পিং হাউজ সোসাইটির চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার ও প্রেসিডেন্ট টমাস আভেনডানো এবং জিভিবিসিএর প্রেসিডেন্ট মোঃ আবু আলী খান।

আভেনডানো তার বক্তব্যে বলেন, ‘আমরা নিজের নিজের জায়গা থেকে চেষ্টা করছি অভিবাসীদের যথাসাধ্য সহযোগিতা করার। সেজন্য কানাডা সরকারেরর নানা রকম সহযোগিতা এবং পরিকল্পনা আছে। কিন্তু আমরা যদি এক সঙ্গে কাজ করি তবে তা আরও সুফল বয়ে আনবে প্রবাসীদের জন্য। যদি বাংলাদেশেই তথ্য ও ওরিয়েন্টেশন দিয়ে অভিবাসীদের যথাসম্ভব প্রস্তুত করে আনা যায়, তবে এখানে এসে বাস্তবতার সঙ্গে খাপ খাওয়ানোটা তাদের জন্য অনেক সহজ হবে।তারা জানবেন, এখানে আসবার পর তাদের কী কী চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে হবে- এবং কীভাবে সেই সব চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করতে হবে।’

জিভিবিসিএর প্রেসিডেন্ট মো. আবু আলী খান বলেন, ‘কানাডায় আমরা মোটামুটি সবাই অভিবাসী। যেদেশ থেকে, যে সমাজ থেকেই আসি না কেন, আমাদের প্রথম প্রজন্মের বেদনাবোধ প্রায় একই রকম।প্রবাসের জীবনকে অর্থবহ করতে, নিজেদেরকে সমৃদ্ধ করে তুলতে পারস্পারিক সহযোগিতার কোনও বিকল্প নেই। মাল্টিকালচারাল হেল্পিং হাউজ সোসাইটির সেবা  সবার জন্যই উম্মুক্ত কিন্তু বাংলাদেশি প্রবাসীরা যেন প্রতিষ্ঠানটির অবিচ্ছেদ্য একটি অংশ।এই বন্ধনকে দৃঢ় করতেই আমরা আজ আনুষ্ঠানিকভাবে পার্টনার অর্গানাইজেশন হিসাবে যাত্রা শুরু করতে চাই।’

গ্রেটার ভ্যাঙ্কুভারের বাঙালিদের কাছে ‘মাল্টিকালচারাল হেল্পিং হাউজ সোসাইটি’ পরিচিত একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। ১৯৯৬ সাল থেকে সংগঠনটি অভিবাসীদের ‘সেটেলমেন্ট সার্ভিস’ দিয়ে আসছে।

স্বদেশছেড়ে, শেকড় ছিঁড়ে মানুষ যখন পরবাসী হয়, নতুন জায়গায় এসে তারা নতুভাবে অবলম্বন খোঁজে। খোঁজে নিজ ভাষায় কথা বলার স্বাচ্ছন্দ্য এবং কম্যুনিটির মানুষদের। প্রয়োজন হয় চাকুরির, তথ্যের।

মাল্টিকালচারাল হেল্পিং হাউজ সোসাইটি এই সেবা দিয়ে আসছে।প্রবাসে এসে মানুষ যেন নিজেদের শিক্ষা, অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে বিদেশের মাটিতেও সাফল্যের বীজ বপন করতে পারে-সেজন্য যথাসাধ্য সহযোগিতা করে আসছে এই প্রতিষ্ঠানটি। বাংলাদেশি প্রবাসীদের সঙ্গে বোঝাপড়া থাকলেও আনুষ্ঠানিক কোনো চুক্তি ছিল না।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন জিভিবিসিএ‘র সহ-সভাপতি রাশেদুল মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক হারুণ রশীদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এহতেশাম আজাদ, কোষাধ্যক্ষ মোহাম্মদ আবু তাহের এবং সদস্য শাকিল আহমেদ।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন মাল্টিকালচারাল হেল্পিং হাউজ সোসাইটির নির্বাহী পরিচালক মারিয়াস আলপারাকে। সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন শাহানা আকতার মহুয়া।

প্রবাস জীবনের গল্প ও অভিজ্ঞতা এখন থেকে আমাদের সরাসরি জানাতে পারেন। পুরো নাম ও সংশ্লিষ্ট ছবিসহ লেখা পাঠিয়ে দিন এই ঠিকানায়  probash@bdnews24.com

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক