হজ নিয়ে বক্তব্য: তোপের মুখে লতিফ সিদ্দিকী

হজ নিয়ে কথা বলে জামায়াতে ইসলামী ও হেফাজতে ইসলামের তোপের মুখে পড়েছেন ডাক টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 Sept 2014, 05:52 PM
Updated : 29 Sept 2014, 05:52 PM

সোমবার এক বিবৃতিতেজামায়াতে ইসলামী মন্ত্রীর বক্তব্য প্রত্যাহার করে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছে।

অপর এক বিবৃতিতে হেফাজতে ইসলামও প্রশাসনিক ব্যবস্থা চেয়েছে মন্ত্রীর বিরুদ্ধে।

সংগঠনটি বলেছে, যথাযথব্যবস্থা নেওয়া না হলে মন্ত্রীর জন্য সালমান রুশদি ও তসলিমা নাসরিনের পরিণতি অপেক্ষাকরছে।

রোববার নিউ ইয়র্কেপ্রবাসী বাংলাদেশিদের এক অনুষ্ঠানে লতিফ সিদ্দিকী জানান, তিনি হজ ও তাবলিগ জামায়াতেরবিরোধী।

এই বক্তব্যের নিন্দাও প্রতিবাদ জানিয়ে জামায়াতের নায়েবে আমির অধ্যাপক মুজিবুর রহমান বলেন, “মন্ত্রী যেঅশালীন ও আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন আমি তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। তিনিআপত্তিকর ও অন্যায় মন্তব্য করে বিশ্বের সকল মুসলমানদের ঈমানে আঘাত দিয়েছেন।”

তিনি ওই বক্তব্য প্রত্যাহারএবং ক্ষমা প্রার্থনার জন্য লতিফ সিদ্দিকীর প্রতি আহ্বান জানান।

হেফাজতে ইসলাম তাদের বিবৃতিতে ক্ষোভ ও বিস্ময় প্রকাশ করে বলেছে, তার বিরুদ্ধে যথাযথব্যবস্থা না নেওয়া হলে তারা আন্দোলনের পথ বেছে নেবেন।

এতে বলা হয়, “আমরা অবিলম্বে তাকে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কারএবং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তারপূর্বক সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিজানাচ্ছি।”

লতিফ সিদ্দিকীকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে মন্ত্রিসভা থেকে বহিষ্কারনা করা হলে ২০১৩ সালের মতো সারাদেশে নাস্তিক-বিরোধী আন্দোলনে নামার হুমকিও দিয়েছেসংগঠনটি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক