একটি পরিবারের কাছে জিম্মি নারায়ণগঞ্জের মানুষ: আইভী

নারায়ণগঞ্জে অপহরণ-হত্যাকাণ্ডের ঘটনাগুলোর জন্য আবার আওয়ামী লীগ সংসদ সদস্য এ কে এম শামীম ওসমানের দিকে অভিযোগের আঙুল তুললেন মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী।

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 May 2014, 11:32 AM
Updated : 4 May 2014, 03:42 PM

কাউন্সিলর নজরুল ইসলামসহ সাতজনকে হত্যার প্রতিবাদে সিটি কর্পোরেশনে কর্মবিরতির মধ্যে রোববার এক সমাবেশে তিনি বলেছেন, “নারায়ণগঞ্জে একের পর এক হত্যাকাণ্ডে নারায়ণগঞ্জবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে।

“একটি পরিবারের কাছে নারায়ণগঞ্জবাসী জিম্মি হয়ে পড়েছে। গডফাদারদের কাছ থেকে মানুষ মুক্তি চায়।”

রোববারের সভায় নাম উল্লেখ না করলেও পরিবেশ আইনজীবী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসানের স্বামী নারায়ণগঞ্জে অপহৃত হওয়ার পর আইভী সরাসরি শামীমের নাম বলেছিলেন। 

গত ১৮ এপ্রিল এক সমাবেশে মেয়র আইভী বলেছিলেন,“আমি শামীম ওসমানদের অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলেছি ও ভবিষ্যতেও বলব। কিন্তু এসব করে আমার মুখ বন্ধ করা যাবে না।”

সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আইভীর কাছে হেরে যাওয়া শামীম ওসমান এসব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, তার বিরুদ্ধে ‘পরিকল্পিতভাবে অপপ্রচার’ চালাচ্ছেন মেয়র।

ফাইল ছবি

নারায়ণগঞ্জে সন্ত্রাসের জন্য বরাবরই
দায়ী করে আসছেন আওয়ামী লীগ নেতা আইভী।  কাউন্সিলর নজরুলসহ সাতজনকে অপহরণ করে হত্যার পরও একই কথা বলছেন তিনি।

নজরুলসহ সাতজনকে অপহরণ-হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরসহ কর্মকর্তা-কর্মচারীরা রোববার থেকে ৪৮ ঘণ্টার কর্মবিরতি পালন করছে।

কর্মবিরতির মধ্যে সকালে সিটি কর্পোরেশন ভবনে সমাবেশ হয়, যাতে বক্তব্য রাখেন আইভী।

তিনি বলেন, তানভীর মোহাম্মদ ত্বকী, আশিক, ভুলু, দিদারুল ইসলাম হত্যাকাণ্ডের বিচার না হওয়ায়ই আবার একই ধরনের ঘটনা ঘটছে।

“নারায়ণগঞ্জ গুম-হত্যা চায় না। নারায়ণগঞ্জের মানুষ শান্তি চায়,” বলে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে সবার প্রতি আহ্বান জানান আইভী।

সমাবেশে মেয়রের পাশাপাশি অন্য কাউন্সিলরাও বক্তব্য রাখেন। 

নজরুল হত্যাকাণ্ডে মূল সন্দেহভাজন নূর হোসেনও নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর। তিনি সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগেরও সহসভাপতি।

হত্যাকাণ্ডের পর থেকে নূর হোসেন পলাতক। তার বাড়িতে শনিবার অভিযান চালিয়ে ১২ জনকে আটক এবং একটি গাড়ি জব্দ করেছে পুলিশ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক