পলাশবাড়ীর মুকিতকে নিয়ে তদন্তে আওয়ামী লীগের কমিটি

গাইবান্ধার পলাশবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান মুকিতের পরিবারের বিরুদ্ধে জামায়াতে ইসলামী সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ ওঠার পর তা তদন্তে কমিটি গঠন করা হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 26 April 2022, 12:24 PM
Updated : 26 April 2022, 03:35 PM

মহিবুল হাসান মুকিত

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নির্দেশে গত শনিবার পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করে জেলা আওয়ামী লীগ।

কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয়েছে জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সুলতান আলী মন্ডলকে। সদস্য হিসেবে রাখা হয়েছে জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক পিয়ারুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক জরিদুল হক ও দপ্তর সম্পাদক সাইফুল আলম সাকাকে।

আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে কমিটিকে প্রতিবেদন জমা দিতে অনুরোধ করে চিঠি দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সৈয়দ সামস-উল আলম হীরু ও সাধারণ সম্পাদক আবু বকর।

তদন্ত কমিটির প্রধান সুলতান আলী মন্ডল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমরা ইতোমধ্যে সবাই বসেছি। আগামীকাল পলাশবাড়ী এলাকায় যাব, পুরানো আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে কথা বলবো, আশা করি তদন্ত রিপোর্টে প্রকৃত ঘটনা আমরা তুলে ধরতে পারব।”

ঈদের কারণে তদন্তের জন্য সময় বেশি লাগতে পারে বলে ইঙ্গিত দেন তিনি।  

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের অনুমোদনে গত ১৩ মার্চ পলাশবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের পাঁচ সদস্যের কমিটি ঘোষণা করা হয়।

ওই কমিটিতে সভাপতি পদে শামিকুল ইসলাম লিপন, সহ সভাপতি সাইফুল্লাহ রহমান চৌধুরী তোতা, সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম মণ্ডল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বাবু, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান মুকিতের নাম ঘোষণা করা হয়।

কমিটি ঘোষণার পর পলাশবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. আমিনুল ইসলাম কেন্দ্রে চিঠি দিয়ে অভিযোগ করেন যে মুকিতের পরিবারের সঙ্গে জামায়াতে ইসলামের সংশ্লিষ্টতা রয়েছে।

তবে মুকিত এই অভিযোগ অস্বীকার করে বলে আসছেন, তিনি রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের ষড়যন্ত্রের শিকার।

অভিযোগ দেওয়ায় ‘হুমকি’

মুকিতের বিরুদ্ধে কেন্দ্রে অভিযোগ দেওয়ার পর থেকে নানাভাবে হত্যার হুমকি পাওয়ার কথা জানিয়ে থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন আমিনুল ইসলাম।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাদের অভিভাবক, আমি উনার কাছে এবং আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের কাছে অভিযোগ দিয়েছি। অভিযোগ দেওয়ার পর থেকে আমাকে নানাভাবে হুমকি দেওয়া হচ্ছে।

“তার (মুকিত) বন্ধুবান্ধব, আশপাশের লোকজন দিয়ে সরাসরি রাস্তাঘাট, বাজার, দোকানপাটে বিভিন্নভাবে ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। তার অনুসারী কিছু লোক সরাসরি আমাকে প্রাণনাশের হুমকিও দিয়েছে, এই মর্মে আমি পলাশবাড়ী থানায় জিডি করেছি।”

পলাশবাড়ী থানার মো. মাসুদ রানা বলেন, “একটি সাধারণ জায়েরি উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংস্কৃতিক সম্পাদক মো. আমিনুল ইসলাম করেছেন। তবে সেখানে সরাসরি কে বা কারা হুমকি দিচ্ছে, সেটা উল্লেখ করেননি। জিডিতে বলেছেন, পলাশবাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের নতুন সাংগঠনিক সম্পাদক মহিবুল হাসান মুকিতের আশপাশের লোকজন হুমকি দিচ্ছে।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক