খালেদার মুক্তির নথি এখন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে

দুর্নীতির মামলায় দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার দণ্ডের কার্যকারিতা স্থগিত করে শর্তসাপেক্ষে তাকে মুক্তির সিদ্ধান্ত হলেও বুধবারের আগে তার বন্দিত্বের অবসান ঘটছে না।

কামাল তালুকদার জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 24 March 2020, 02:10 PM
Updated : 24 March 2020, 02:11 PM

আইনমন্ত্রণালয় সিদ্ধান্ত জানিয়ে মঙ্গলবার এই সংক্রান্ত নথি পাঠিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে; স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে তা যাবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে।

সেখানেচূড়ান্ত অনুমোদনের পর তা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে যাবে কারা কর্তৃপক্ষেরকাছে, তারপরই বিএসএমএমইউ থেকে মুক্তি মিলবে বিএনপি চেয়ারপারসনের।

আইনমন্ত্রীআনিসুল হক মঙ্গলবার দুপুরে এক ব্রিফিংয়ে জানান, খালেদা জিয়ার বয়স বিবেচনায় মানবিককারণে সরকার ‘সদয় হয়ে’ দণ্ডের  কার্যকারিতা স্থগিত রেখেশর্ত সাপেক্ষে ছয় মাসের জন্য তাকে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

শর্ত হল-এই সময়ে খালেদা জিয়াকে ঢাকায় নিজের বাসায় থেকে চিকিৎসা নিতে হবে। তিনি বিদেশে যেতেপারবেন না।

বিকালেঢাকার জেলার মাহবুবুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোরডটকমকে বলেন, তারা এখনও কোনো নির্দেশনা পাননি।

জানতেচাইলে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু বিকালে বিডিনিউজটোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, আইন মন্ত্রণালয় থেকে মুক্তি সংক্রান্ত নির্দেশনা তারাপেয়েছেন।

“স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এখন আইন দেখে একটি সামারি তৈরিকরে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে পাঠাবে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে সে সামারিঅনুমোদন হয়ে আবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে ফিরে আসবে।”

মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা সেবা বিভাগের সচিব মো.শহীদুজ্জামান সন্ধ্যায় বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আইন মন্ত্রণালয়ের পাঠানো কাগজ পাওয়ার পর আমরা তা ঠিককরে রেখেছি। এখন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী স্যার স্বাক্ষর করার পর সেই কাগজ মাননীয়প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে  পাঠানো হবে।”

কখন পাঠানো হবে- জানতে চাইলে তিনি বলেন, “এটা তো আমি বলতে পারব না, আগে তো মন্ত্রী স্যারেরস্বাক্ষর লাগবে।”

কত সময় লাগতে পারে- এই প্রশ্নে তিনি বলেন, “যা প্রক্রিয়া রয়েছে তা শেষ করতে বুধবার পর্যন্ত লাগবে।”

মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তেবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল আজ  তার গ্রামের বাড়ি দোহার গিয়েছিলেন।”

এদিকে খালেদা জিয়ার মুক্তির খবরে বিকালে বিএসএমএমইউতেজড়ো হয়েছিলেন বিএনপির একদল নেতা। তবে তারাও জানেন না, কখন মুক্তি পাবেন তাদেরনেত্রী।

বিএনপি নেতা ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন সাংবাদিকদের বলেন,“পুলিশ কর্তৃপক্ষ, জেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরাএখনও এ বিষয়ে জানি না।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক