‘আমীর খসরুর অডিও’ ভাইরাল

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মধ্যে ‘মানুষজনকে নামতে’ বলার একটি অডিও ভাইরাল হয়েছে ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 4 August 2018, 01:57 PM
Updated : 4 August 2018, 01:57 PM

এই অডিও কথোপকথনে বিএনপি নেতা আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর কণ্ঠ রয়েছে বলে দাবি করা হচ্ছে; তবে আমীর খসরু দাবি করেছেন, এটি বানোয়াট।

গত এক সপ্তাহ ধরে চলা শিক্ষার্থীদের এই আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতে বিএনপি চেষ্টা চালাচ্ছে বলে আওয়ামী লীগ নেতাদের দাবি করার মধ্যে এই অডিওটি আসে ফেইসবুকে।

প্রধানমন্ত্রীপুত্র সজীব ওয়াজেদ জয় এই অডিওটি শেয়ার করে বলেছেন, এটা ‘বিএনপির শিক্ষার্থীদের আন্দোলন থেকে ফায়দা নেয়ার অপচেষ্টার দ্ব্যর্থহীন প্রমাণ’।

অডিওটিতে কুমিল্লা থেকে ‘নওমি’ নামের একজনের সঙ্গে ‘আমীর খসরু’র কথোপকথন শোনা যায়।

কথোপকথনটি নিচে তুলে ধরা হল:

‘আমীর খসরু’: হ্যালো

‘নওমি’: হ্যালো, স্ল্যামালাকুম আংকেল। আংকেল নওমি বলছিলাম

‘আমীর খসরু’: হ্যাঁ, হ্যাঁ ভালো আছো?

‘নওমি’: জি আংকেল, আলহামদুলিল্লাহ, আপনি ভালো আছেন?

‘আমীর খসরু’: হ্যাঁ, ভালো আছি। তোমরা কি একটু ইনভলবড-টিনভলবড হচ্ছ এগুলাতে, না কি?

‘নওমি’: জ্বি, জ্বি। আংকেল, আমি তো এই যে কুমিল্লায় আসলাম আরকি।

‘আমীর খসরু’: না না কুমিল্লায় না, নামায় দাও না। তোমাদের মানুষজন সব নামায় দাও না। বুঝছো। এগুলো ফিট করে দাও। কুমিল্লায় না, ঢাকায়ও দাও। মানুষজন নামায় দেও ভাল করে।

আর তোমরাও, তোমাদেরকে তো চেনে না। তোমাদের বন্ধু-বান্ধব নিয়ে সব নেমে পড় না ঢাকায়।   

‘নওমি’: জ্বি, জ্বি, জ্বি, কনট্যাক্ট করতেছি সবার সঙ্গে।

‘আমীর খসরু’: কন্ট্যাক্ট কর। কখন আর কন্টাক্ট করবা। এখনতো টাই। আর কবে?

‘নওমি’: জ্বি-জ্বি-জ্বি

‘আমীর খসরু’: এখন নামতে না পারলেতো এটা ডাই-ডাউন করে যাবে।

‘নওমি’: হ্যাঁ, হ্যাঁ, হ্যাঁ

‘আমীর খসরু’: তোমাদের তো অত পরিচিত মুখ না। তোমরা বন্ধু-বান্ধব নিয়ে নামে যাওনা সবার সাথে।

‘নওমি’: জ্বি-জ্বি, হাইওয়েতে নামছিল তো, ঢাকা-চিটাগাংয়ে। এখানে এসপি সাহেব ডাইরেক্ট এসে সবাইকে উঠায়ে দিছে...।

‘আমীর খসরু’: না না, ঠিক আছে। হাইওয়ে টাইওয়ে অসুবিধা নাই। ঢাকায় নামায়ে দাও। ঢাকায়।  ঢাকা হলে সারা দেশে এমনিই হবে। তোমরা ঢাকায় এসে...ওখানে তো কুমিল্লা দরকার নাই আমার। তোমরা ঢাকায় এসে তোমাদের বন্ধুবান্ধব নিয়ে দুই চারশো পাঁচশোজন নিয়ে জন ওদের সাথে জয়েন করে যাও।

‘নওমি’: জ্বি, জ্বি আংকেল, এমনি সবাই সংহতি জানাচ্ছে।

‘আমীর খসরু’: সংহতি দিয়ে কি লাভ হবে? রাস্তায়… তোমাদের মত যারা আছে ওদেরকে নিয়ে ন্যামে যাও না।

‘নওমি’: জ্বি আংকেল। আর আংকেল আরেকটা ওই ছোট বিষয়…

আমীর খসরু: আর ফেইসবুকে টেইসবুকে পোস্টিং টোস্টিং করো সিরিয়াসলি।

‘নওমি’: হ্যাঁ, এইটা করতেছি। এটাতে অ্যাকটিভ আছে সবাই। আমি আসতেছি। কালকে-পরশু..

‘আমীর খসরু’: এগুলো করো। কুমিল্লা বসে থেকে লাভ কি? এখানে এসে জয়েন করো। ঠিক আছে।

‘বানোয়াট’

অডিওটি শোনার পর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে, “এটি স্রেফ একটি বানোয়াট অডিও, মিথ্যা প্রচারণা। উদ্দেশ্য কিশোর-কিশোরী শিক্ষার্থীদের চলমান আন্দোলনকে স্তিমিত করা। এজন্য আমার নামে তারা এই বানোয়াট অডিও তৈরি করা হয়েছে।”

এই অডিওটি সরকারই তৈরি করেছে দাবি করে তিনি বলেন, “সরকারের এহেন অপকর্মের কৌশল জনগণ বুঝে গেছে। অতীতেও তারা (সরকার) এরকম বানোয়াট অডিও তৈরি করে বিএনপির নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে দোষারোপ করেছে।

“আমরা স্পষ্টভাষায় বলতে চাই, বিএনপি একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে শিক্ষার্থীদের এই ন্যায়সঙ্গত আন্দোলনকে সমর্থন দিয়েছে। এখন একে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে সরকার যে ষড়যন্ত্রে  লিপ্ত হয়েছে তাতে কোনো লাভ হবে না।”

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রীর তথ্য-প্রযুক্তি উপদেষ্টা জয় লিখেছেন, “এই ফোনালাপ থেকে জানা যাচ্ছে, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা আমীর খসরু তাদের নেতাকর্মীদের দিকনির্দেশনা দিচ্ছেন নিজেদের লোকজন নিয়ে এই আন্দোলনে যোগ দেয়ার জন্য। সাথে আরো বলছেন ফেসবুক সহ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বেশি বেশি করে অপপ্রচার চালানোর কথাও।”

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক