বাসদ নেতা মাহবুবুল হক আর নেই

একাত্তরের যোদ্ধা বাম নেতা আ ফ ম মাহবুবুল হক কানাডার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 Nov 2017, 07:21 AM
Updated : 10 Nov 2017, 11:53 AM

৬৯ বছর বয়সী মাহবুবুল হক ছিলেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের (মাহবুব) আহ্বায়ক। মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের কারণে তিনি অটোয়ার সিভিক হসপিটালে ভর্তি ছিলেন।

সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে তার মৃত্যু হয় বলে বাসদের (মাহবুব) কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মইন উদ্দিন চৌধুরী লিটন জানান। 

বাসদের অপর অংশের সাধারণ সম্পাদক খালেকুজ্জামান বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, ২০০৪ সালে ঢাকায় গাড়িচাপায় গুরুতর আহত হওয়ার পর মাহবুবুল হক কানাডা চলে যান। দীর্ঘদিন চিকিৎসা নিলেও পুরোপুরি সুস্থ হতে পারেননি। স্ত্রী ও একমাত্র মেয়েকে নিয়ে কানাডাতেই বসবাস করে আসছিলেন।

মইন উদ্দিন চৌধুরী লিটন জানান, ঢাকার ঘটনার কারণে মাহবুবুল হককে কানাডাতেও নিয়মিত চিকিৎসা নিতে হাচ্ছিল। এর মধ্যে গত ২৬ সেপ্টেম্বর স্ট্রোক করলে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানেই বৃহস্পতিবার রাতে তার মৃত্যু হয়। 

আ ফ ম মাহবুবুল হকের জন্ম ১৯৪৮ সালের ২৫ ডিসেম্বর নোয়াখালী জেলার চাটখিল উপজেলার মোহাম্মদপুর গ্রামে। ১৯৬২ সালে স্কুলে পড়ার সময়ই তিনি প্রতিক্রিয়াশীল শিক্ষানীতি বিরোধী ছাত্র আন্দোলনে যুক্ত হন। পরে সক্রিয় হন ছাত্র রাজনীতিতে। 

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগে পড়ার সময় ১৯৬৭ সালে তিনি পূর্ব পাকিস্তান ছাত্রলীগের সূর্যসেন হল শাখার সাধারণ সম্পাদক হন। ১৯৬৯-৭০ সালে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সহ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশ লিবারেশন ফোর্স (মুজিব বাহিনী) গঠন করা হলে সেখানে প্রশিক্ষকের দায়িত্ব পালন করেন তিনি।

দেশ স্বাধীন হওয়ার পর ছাত্রলীগ ভেঙে জাসদ ছাত্রলীগ প্রতিষ্ঠা পেলে মাহবুবুল হক হন প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক। ১৯৭৩ থেকে ১৯৭৮ পর্যন্ত তিনি সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৮ সালে জাসদের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হন।

ভারতের বামপন্থী দল সোশ্যালিস্ট ইউনিটি সেন্টার অফ ইন্ডিয়ার (এসইউসিআই) নেতা শিবদাস ঘোষের চিন্তা-চেতনার আলোকে ১৯৮০ সালে বাসদ প্রতিষ্ঠা হয়। মাহবুবুল হক হন  কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য।

তিন বছরের মাথায় আদর্শগত মতবিরোধে বাসদ দুই ভাগ হয়। একটি অংশের নেতৃত্ব পান খালেকুজ্জামান। অপর অংশের আহ্বায়কের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন মাহবুবুল হক।

মইন উদ্দিন চৌধুরী লিটন জানান, মাহবুবুল হকের মরদেহ দেশে আনার চেষ্টা করছেন তার মেয়ে ও স্ত্রী। সিদ্ধান্ত হলে পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানা যাবে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক