শ্রীলংকায় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের রহস্য তদন্তের নির্দেশ

শ্রীলংকাজুড়ে বহু  গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ও রান্নাঘরে আগুন লাগার রহস্যময় ঘটনা তদন্তে একটি বিশেষ কমিটি গঠনের আহ্বান জানিয়েছে দেশটির পার্লামেন্ট।

নিউজ ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Dec 2021, 10:37 AM
Updated : 1 Dec 2021, 10:37 AM

একদিনে ১৪টি বিস্ফোরণ নিয়ে গণমাধ্যম ও পুলিশের প্রতিবেদনের পর মঙ্গলবার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজপাকসে ঘটনা তদন্তে আট সদস্যের একটি কমিটি গঠন করে দুই সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলেছেন।

শ্রীলংকার ভোক্তা বিষয়ক মন্ত্রী লাসান্থা আলাগিয়াওয়ান্না প্রতিদিন গড়ে ১০টি বিস্ফোরণের খবর প্রকাশিত হচ্ছে বলে পার্লামেন্টকে জানিয়েছেন।

“আমরা স্বীকার করছি, শ্রীলঙ্কার ৫১ লাখ পরিবারের ৪০ শতাংশেরও বেশি এ নিয়ে আতঙ্কে আছে। এতে ব্যবসাও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। সরকার ভোক্তাদের পাশে আছে আর তদন্ত শেষ হওয়ার পর পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন এই হাউসে উপস্থাপন করা হবে,” মঙ্গলবার পার্লামেন্টকে বলেছেন তিনি।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, ২০ নভেম্বর রাজধানী কলম্বোতে গ্যাস লিক হয়ে সৃষ্ট অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ম্যাকডোনাল্ডসের একটি রেস্তোরাঁ পুড়ে যায়। তারপর থেকে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ ও আগুন লাগার বহু ঘটনা সংবাদপত্রের হেডলাইন হতে থাকে।

কিছু ভোক্তা গ্যাসের সিলিন্ডার ঘরের বাইরে নিয়ে যান বা বাগানে রান্না শুরু করেন। ‘ডু-ইট-ইয়োরসেলফ লিক টেস্ট’ ভিডিও দিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সয়লাব হয়ে যায়।

কলম্বোর একটি ছোট খাবারের দোকানে কুকার বিস্ফোরিত হয়ে গুরুতরভাবে দগ্ধ হন মিলিন্ডা প্রেমাচন্দর স্ত্রী।

“আমার স্ত্রী আর কখনো আগের মতো হবে না। আমার জীবন শেষ হয়ে গেছে,” বলেন তিনি।

“কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই দ্রুত কিছু করতে হবে। নিরীহ মানুষের সঙ্গে যা কিছু হচ্ছে এর জন্য কাউকে অবশ্যই জবাবদিহি করতে হবে।“

শ্রীলঙ্কার গৃহস্থালি ও বাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্য ব্যবহৃত তরল পেট্রলিয়াম গ্যাস সিলিন্ডারের ৮০ শতাংশেরও বেশি সরবরাহ করে রাষ্ট্রায়ত্ত প্রতিষ্ঠান লিট্রো গ্যাস।

চলতি বছরের শুরুর দিকে প্রবর্তিত সিলিন্ডারের প্রোপেন ও বিউটেনের মিশ্রণে পরিবর্তনের ফলে এসব বিস্ফোরণ ঘটছে বলে অভিযোগ ওঠে, কিন্তু লিট্রো গ্যাস অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। তারা নিয়ন্ত্রকদের অদক্ষতা ও ক্ষয় হয়ে যাওয়া পুরনো চুলাকে এর জন্য দায়ী করছে।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক