৪ এপ্রিল, ২০২২

  • পয়ঃনিষ্কাশন লাইনের কাজ করার জন্য খোড়া হয়েছিল ঢাকার আজিমপুর কবরস্থান সড়ক। সেই কাজ শেষ হলেও সড়কটি মেরামত না করায় এ পথে চলতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মানুষকে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    পয়ঃনিষ্কাশন লাইনের কাজ করার জন্য খোড়া হয়েছিল ঢাকার আজিমপুর কবরস্থান সড়ক। সেই কাজ শেষ হলেও সড়কটি মেরামত না করায় এ পথে চলতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মানুষকে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • পয়ঃনিষ্কাশন লাইনের কাজ করার জন্য খোড়া হয়েছিল ঢাকার আজিমপুর কবরস্থান সড়ক। সেই কাজ শেষ হলেও সড়কটি মেরামত না করায় এ পথে চলতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মানুষকে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    পয়ঃনিষ্কাশন লাইনের কাজ করার জন্য খোড়া হয়েছিল ঢাকার আজিমপুর কবরস্থান সড়ক। সেই কাজ শেষ হলেও সড়কটি মেরামত না করায় এ পথে চলতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মানুষকে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • পয়ঃনিষ্কাশন লাইনের কাজ করার জন্য খোড়া হয়েছিল ঢাকার আজিমপুর কবরস্থান সড়ক। সেই কাজ শেষ হলেও সড়কটি মেরামত না করায় এ পথে চলতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মানুষকে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    পয়ঃনিষ্কাশন লাইনের কাজ করার জন্য খোড়া হয়েছিল ঢাকার আজিমপুর কবরস্থান সড়ক। সেই কাজ শেষ হলেও সড়কটি মেরামত না করায় এ পথে চলতে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে মানুষকে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • রাজধানীর চানখারপুল এলাকায় দমকা হাওয়ায় ধুলোয় ছেয়ে গেছে চারপাশ। হঠাৎ ধুলো থেকে রেহাই পেতে হাত দিয়ে চোখ মুখ ঢাকছেন পথচারীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    রাজধানীর চানখারপুল এলাকায় দমকা হাওয়ায় ধুলোয় ছেয়ে গেছে চারপাশ। হঠাৎ ধুলো থেকে রেহাই পেতে হাত দিয়ে চোখ মুখ ঢাকছেন পথচারীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • রাজধানীর চানখারপুল এলাকায় দমকা হাওয়ায় ধুলোয় ছেয়ে গেছে চারপাশ। হঠাৎ ধুলো থেকে রেহাই পেতে হাত দিয়ে চোখ মুখ ঢাকছেন পথচারীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    রাজধানীর চানখারপুল এলাকায় দমকা হাওয়ায় ধুলোয় ছেয়ে গেছে চারপাশ। হঠাৎ ধুলো থেকে রেহাই পেতে হাত দিয়ে চোখ মুখ ঢাকছেন পথচারীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • ঢাকার গুলিস্তানে সড়কের পাশে চলছে ড্রেন মেরামতের কাজ। এজন্য সড়কের উপরে রেখে দেওয়া বালি দমকা হাওয়ায় উড়তে শুরু করলে বিপাকে পড়েন পথচারীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    ঢাকার গুলিস্তানে সড়কের পাশে চলছে ড্রেন মেরামতের কাজ। এজন্য সড়কের উপরে রেখে দেওয়া বালি দমকা হাওয়ায় উড়তে শুরু করলে বিপাকে পড়েন পথচারীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি