বলধার বিরল ফুলের রাজ্যে

  • নীল পদ্মের দর্শন পেতে যেতে হবে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নীল পদ্মের দর্শন পেতে যেতে হবে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • রানি মুকুট নামে পরিচিত এই ফুলের একটি মাত্র গাছ রয়েছে দেশে। পশ্চিম আফ্রিকার এই গাছ সৌন্দর্য বাড়িয়েছে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনের। বেনিন, নাইজেরিয়া, ক্যামেরুন, কঙ্গো, গ্যাবন, অ্যাঙ্গোলার মতো দেশে রয়েছে এই গাছ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    রানি মুকুট নামে পরিচিত এই ফুলের একটি মাত্র গাছ রয়েছে দেশে। পশ্চিম আফ্রিকার এই গাছ সৌন্দর্য বাড়িয়েছে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনের। বেনিন, নাইজেরিয়া, ক্যামেরুন, কঙ্গো, গ্যাবন, অ্যাঙ্গোলার মতো দেশে রয়েছে এই গাছ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • ঝুমকো লতা ফুল অনেক রঙের হয়, তার মধ্যে লাল ঝুমকো লতা বেশ বিরল। রাজধানীর বলধা গার্ডেনে রয়েছে লাল ঝুমকো লতার কয়েকটি গাছ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    ঝুমকো লতা ফুল অনেক রঙের হয়, তার মধ্যে লাল ঝুমকো লতা বেশ বিরল। রাজধানীর বলধা গার্ডেনে রয়েছে লাল ঝুমকো লতার কয়েকটি গাছ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • নীল পদ্মের দর্শন পেতে যেতে হবে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নীল পদ্মের দর্শন পেতে যেতে হবে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • কণ্টক লতার মাত্র দুটি গাছ আছে দেশে, দুটিই বলধা গার্ডেনে। এ ফুলকে সকাল ও বিকালে ভিন্ন রঙে দেখা যায়। সকালে তাজা ফুলের পাপড়ি সাদার মধ্যে হলুদ বর্ণের হয়, আর বিকালে পাপড়ির মধ্যে হলুদ বর্ণটি লালচে রূপ ধারণ করে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    কণ্টক লতার মাত্র দুটি গাছ আছে দেশে, দুটিই বলধা গার্ডেনে। এ ফুলকে সকাল ও বিকালে ভিন্ন রঙে দেখা যায়। সকালে তাজা ফুলের পাপড়ি সাদার মধ্যে হলুদ বর্ণের হয়, আর বিকালে পাপড়ির মধ্যে হলুদ বর্ণটি লালচে রূপ ধারণ করে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • নীল পদ্মের দর্শন পেতে যেতে হবে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নীল পদ্মের দর্শন পেতে যেতে হবে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • বাংলাদেশে যে কয় ধরনের অশোক দেখা যায়, তার মধ্যে রাজ অশোক বেশ দুর্লভ। ঢাকায় বলধা গার্ডেনের সাইকি ও সিবিলি অংশে কয়েকটি রাজ অশোক আছে। এর বাইরে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণেও এ গাছ দেখা যায় । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    বাংলাদেশে যে কয় ধরনের অশোক দেখা যায়, তার মধ্যে রাজ অশোক বেশ দুর্লভ। ঢাকায় বলধা গার্ডেনের সাইকি ও সিবিলি অংশে কয়েকটি রাজ অশোক আছে। এর বাইরে সাভার জাতীয় স্মৃতিসৌধ প্রাঙ্গণেও এ গাছ দেখা যায় । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • কমলা রঙের এই ফুলের নাম আফ্রিকান টিউলিপ। আফ্রিকার জঙ্গলের এই ফুলের দেখা মিলবে বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    কমলা রঙের এই ফুলের নাম আফ্রিকান টিউলিপ। আফ্রিকার জঙ্গলের এই ফুলের দেখা মিলবে বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • কমলা রঙের এই ফুলের নাম আফ্রিকান টিউলিপ। আফ্রিকার জঙ্গলের এই ফুলের দেখা মিলবে বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    কমলা রঙের এই ফুলের নাম আফ্রিকান টিউলিপ। আফ্রিকার জঙ্গলের এই ফুলের দেখা মিলবে বলধা গার্ডেনে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • এটি যে একটি ক্যাকটাস, বড় বড় পাতা থাকায় তা বোঝার উপায় নেই। কমলা রঙের ফুলের এই রোজ ক্যাকটাস দেশে খুব বেশি নেই। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    এটি যে একটি ক্যাকটাস, বড় বড় পাতা থাকায় তা বোঝার উপায় নেই। কমলা রঙের ফুলের এই রোজ ক্যাকটাস দেশে খুব বেশি নেই। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • হিমালয়ান বার্চ নামের গাছটিকে বাংলায় বলে ভূর্জপত্র। কাগজ প্রচলনের বহু আগে এই ভূর্জপত্রের ছাল বা বাকলের ওপরে লেখা হতো। ভোজপত্রের পাণ্ডুলিপি শত শত বছর ধরে সংরক্ষণ করা যায়। বর্তমানে দেশে শুধু বলধা গার্ডেনে এমন একটি গাছ আছে, সেটির অবস্থাও ভালো নয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    হিমালয়ান বার্চ নামের গাছটিকে বাংলায় বলে ভূর্জপত্র। কাগজ প্রচলনের বহু আগে এই ভূর্জপত্রের ছাল বা বাকলের ওপরে লেখা হতো। ভোজপত্রের পাণ্ডুলিপি শত শত বছর ধরে সংরক্ষণ করা যায়। বর্তমানে দেশে শুধু বলধা গার্ডেনে এমন একটি গাছ আছে, সেটির অবস্থাও ভালো নয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • এটি যে একটি ক্যাকটাস, বড় বড় পাতা থাকায় তা বোঝার উপায় নেই। কমলা রঙের ফুলের এই রোজ ক্যাকটাস দেশে খুব বেশি নেই। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    এটি যে একটি ক্যাকটাস, বড় বড় পাতা থাকায় তা বোঝার উপায় নেই। কমলা রঙের ফুলের এই রোজ ক্যাকটাস দেশে খুব বেশি নেই। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • কণ্টক লতার মাত্র দুটি গাছ আছে দেশে, দুটিই বলধা গার্ডেনে। এ ফুলকে সকাল ও বিকালে ভিন্ন রঙে দেখা যায়। সকালে তাজা ফুলের পাপড়ি সাদার মধ্যে হলুদ বর্ণের হয়, আর বিকালে পাপড়ির মধ্যে হলুদ বর্ণটি লালচে রূপ ধারণ করে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    কণ্টক লতার মাত্র দুটি গাছ আছে দেশে, দুটিই বলধা গার্ডেনে। এ ফুলকে সকাল ও বিকালে ভিন্ন রঙে দেখা যায়। সকালে তাজা ফুলের পাপড়ি সাদার মধ্যে হলুদ বর্ণের হয়, আর বিকালে পাপড়ির মধ্যে হলুদ বর্ণটি লালচে রূপ ধারণ করে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • ঝুমকো লতা ফুল অনেক রঙের হয়, তার মধ্যে লাল ঝুমকো লতা বেশ বিরল। রাজধানীর বলধা গার্ডেনে রয়েছে লাল ঝুমকো লতার কয়েকটি গাছ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    ঝুমকো লতা ফুল অনেক রঙের হয়, তার মধ্যে লাল ঝুমকো লতা বেশ বিরল। রাজধানীর বলধা গার্ডেনে রয়েছে লাল ঝুমকো লতার কয়েকটি গাছ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • হিমালয়ান বার্চ নামের গাছটিকে বাংলায় বলে ভূর্জপত্র। কাগজ প্রচলনের বহু আগে এই ভূর্জপত্রের ছাল বা বাকলের ওপরে লেখা হতো। ভোজপত্রের পাণ্ডুলিপি শত শত বছর ধরে সংরক্ষণ করা যায়। বর্তমানে দেশে শুধু বলধা গার্ডেনে এমন একটি গাছ আছে, সেটির অবস্থাও ভালো নয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    হিমালয়ান বার্চ নামের গাছটিকে বাংলায় বলে ভূর্জপত্র। কাগজ প্রচলনের বহু আগে এই ভূর্জপত্রের ছাল বা বাকলের ওপরে লেখা হতো। ভোজপত্রের পাণ্ডুলিপি শত শত বছর ধরে সংরক্ষণ করা যায়। বর্তমানে দেশে শুধু বলধা গার্ডেনে এমন একটি গাছ আছে, সেটির অবস্থাও ভালো নয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • রানি মুকুট নামে পরিচিত এই ফুলের একটি মাত্র গাছ রয়েছে দেশে। পশ্চিম আফ্রিকার এই গাছ সৌন্দর্য বাড়িয়েছে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনের। বেনিন, নাইজেরিয়া, ক্যামেরুন, কঙ্গো, গ্যাবন, অ্যাঙ্গোলার মতো দেশে রয়েছে এই গাছ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    রানি মুকুট নামে পরিচিত এই ফুলের একটি মাত্র গাছ রয়েছে দেশে। পশ্চিম আফ্রিকার এই গাছ সৌন্দর্য বাড়িয়েছে পুরান ঢাকার বলধা গার্ডেনের। বেনিন, নাইজেরিয়া, ক্যামেরুন, কঙ্গো, গ্যাবন, অ্যাঙ্গোলার মতো দেশে রয়েছে এই গাছ। ছবি: মাহমুদ জামান অভি