কেওক্রাডংয়ের ‘দার্জিলিং পাড়া’

  • বান্দরবানে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ কেওক্রাডং পাহাড়ের পাদদেশে রুমা সদর ও রেমাক্রিপ্রাংসা ইউনিয়নে বম জনগোষ্ঠীর ৩৫টি পরিবার নিয়ে গড়ে উঠেছে দার্জিলিং পাড়া। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    বান্দরবানে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ কেওক্রাডং পাহাড়ের পাদদেশে রুমা সদর ও রেমাক্রিপ্রাংসা ইউনিয়নে বম জনগোষ্ঠীর ৩৫টি পরিবার নিয়ে গড়ে উঠেছে দার্জিলিং পাড়া। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • দার্জিলিং পাড়ার পাশেই দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ কেওক্রাডং পাহাড়। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    দার্জিলিং পাড়ার পাশেই দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ কেওক্রাডং পাহাড়। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • সূর্যোদয়ের সময় মোহনীয় এক দৃশ্যের দেখা মেলে দার্জিলিং পাড়ায়। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    সূর্যোদয়ের সময় মোহনীয় এক দৃশ্যের দেখা মেলে দার্জিলিং পাড়ায়। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • বম জনগোষ্ঠী নিয়ে গড়ে উঠা দার্জিলিং পাড়ার একটি ঘরের জানালার পাশ দিয়ে উঁকি দিচ্ছে এক শিশু। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    বম জনগোষ্ঠী নিয়ে গড়ে উঠা দার্জিলিং পাড়ার একটি ঘরের জানালার পাশ দিয়ে উঁকি দিচ্ছে এক শিশু। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • কেওক্রাডং পাহাড়ের পাদদেশে বম জনগোষ্ঠী নিয়ে গড়ে উঠা দার্জিলিং পাড়ার সব ঘর এমন কাঠের তৈরি। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    কেওক্রাডং পাহাড়ের পাদদেশে বম জনগোষ্ঠী নিয়ে গড়ে উঠা দার্জিলিং পাড়ার সব ঘর এমন কাঠের তৈরি। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • দার্জিলিং পাড়ার মাঝখানে রয়েছে একটি খোলা কাঠের ঘর; দূর-দূরান্ত থেকে আসা মানুষের বিশ্রামের জন্য তৈরি করা হয়েছে এটি। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    দার্জিলিং পাড়ার মাঝখানে রয়েছে একটি খোলা কাঠের ঘর; দূর-দূরান্ত থেকে আসা মানুষের বিশ্রামের জন্য তৈরি করা হয়েছে এটি। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • বিকাল হলেই এ ছোট্ট উঠানে খেলায় মেতে উঠে দার্জিলিং পাড়ার শিশু-কিশোররা। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    বিকাল হলেই এ ছোট্ট উঠানে খেলায় মেতে উঠে দার্জিলিং পাড়ার শিশু-কিশোররা। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • দার্জিলিং পাড়ার মাঝের রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন একদল পর্যটক। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    দার্জিলিং পাড়ার মাঝের রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাচ্ছেন একদল পর্যটক। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • বিকাল হলেই এ ছোট্ট উঠানে খেলায় মেতে উঠে দার্জিলিং পাড়ার শিশু-কিশোররা। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    বিকাল হলেই এ ছোট্ট উঠানে খেলায় মেতে উঠে দার্জিলিং পাড়ার শিশু-কিশোররা। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • দার্জিলিং পাড়ার চারপাশ ঘন বনজঙ্গলে ঘেরা; যেখানে দেখা মেলে নানা প্রজাতির গাছের। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    দার্জিলিং পাড়ার চারপাশ ঘন বনজঙ্গলে ঘেরা; যেখানে দেখা মেলে নানা প্রজাতির গাছের। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • দার্জিলিং পাড়ার চারপাশ ঘন বনজঙ্গলে ঘেরা; যেখানে দেখা মেলে নানা প্রজাতির গাছের। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    দার্জিলিং পাড়ার চারপাশ ঘন বনজঙ্গলে ঘেরা; যেখানে দেখা মেলে নানা প্রজাতির গাছের। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

  • দার্জিলিং পাড়ার চারপাশ ঘন বনজঙ্গলে ঘেরা; যেখানে দেখা মেলে নানা প্রজাতির গাছের। ছবি: উসিথোয়াই মারমা

    দার্জিলিং পাড়ার চারপাশ ঘন বনজঙ্গলে ঘেরা; যেখানে দেখা মেলে নানা প্রজাতির গাছের। ছবি: উসিথোয়াই মারমা