২৩ অগাস্ট, ২০২১

  • লকডাউন তুলে নেওয়ার পর আবার এমআরপি পাসপোর্ট দেওয়া শুরু হওয়ায় সোমবার ঢাকায় পাসপোর্ট প্রত্যাশীদের দীর্ঘ লাইন। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    লকডাউন তুলে নেওয়ার পর আবার এমআরপি পাসপোর্ট দেওয়া শুরু হওয়ায় সোমবার ঢাকায় পাসপোর্ট প্রত্যাশীদের দীর্ঘ লাইন। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • মহামারী নিয়ন্ত্রণের লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল এমআরপি পাসপোর্ট দেওয়া। সোমবার তা আবার শুরু হওয়ায় ঢাকার আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট অধিদপ্তরের সামনে ভিড় জমে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    মহামারী নিয়ন্ত্রণের লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল এমআরপি পাসপোর্ট দেওয়া। সোমবার তা আবার শুরু হওয়ায় ঢাকার আগারগাঁওয়ে পাসপোর্ট অধিদপ্তরের সামনে ভিড় জমে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • বৃষ্টি থেকে বাঁচতে মগবাজারে দুই উড়াল সড়কের মাঝখানে আশ্রয় নেওয়া মোটরসাইকেল আরোহীদের কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    বৃষ্টি থেকে বাঁচতে মগবাজারে দুই উড়াল সড়কের মাঝখানে আশ্রয় নেওয়া মোটরসাইকেল আরোহীদের কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • বৃষ্টি থেকে বাঁচতে মগবাজারে দুই উড়াল সড়কের মাঝখানে আশ্রয় নেওয়া মোটরসাইকেল আরোহীদের কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    বৃষ্টি থেকে বাঁচতে মগবাজারে দুই উড়াল সড়কের মাঝখানে আশ্রয় নেওয়া মোটরসাইকেল আরোহীদের কারণে যানজটের সৃষ্টি হয়। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • বৃষ্টি থেকে বাঁচতে সোমবার মগবাজারে দুই উড়াল সড়কের মাঝখানে আশ্রয়ে মোটরসাইকেল আরোহীরা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    বৃষ্টি থেকে বাঁচতে সোমবার মগবাজারে দুই উড়াল সড়কের মাঝখানে আশ্রয়ে মোটরসাইকেল আরোহীরা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • বৃষ্টি থেকে বাঁচতে সোমবার মগবাজারে দুই উড়াল সড়কের মাঝখানে আশ্রয়ে মোটরসাইকেল আরোহীরা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    বৃষ্টি থেকে বাঁচতে সোমবার মগবাজারে দুই উড়াল সড়কের মাঝখানে আশ্রয়ে মোটরসাইকেল আরোহীরা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • শিক্ষার্থীদের দ্রুততম সময়ের মধ্যে টিকা দিয়ে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবিতে সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনে বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    শিক্ষার্থীদের দ্রুততম সময়ের মধ্যে টিকা দিয়ে সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবিতে সোমবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মানববন্ধনে বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • পুরান ঢাকার আরমানিটোলা খেলার মাঠে মেয়াদোত্তীর্ণ ফায়ার এক্সটিংগুইশার খালি করছেন একজন। এগুলো আবার রিফিল করা হবে ব্যবহারের জন্য। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    পুরান ঢাকার আরমানিটোলা খেলার মাঠে মেয়াদোত্তীর্ণ ফায়ার এক্সটিংগুইশার খালি করছেন একজন। এগুলো আবার রিফিল করা হবে ব্যবহারের জন্য। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • নবাবপুর থেকে রিফিল করা এক্সটিংগুইশার ভ্যানে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    নবাবপুর থেকে রিফিল করা এক্সটিংগুইশার ভ্যানে করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে ঢাকার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি