ঝুঁকিপূর্ণ কাজে শিশুরা

  • বাংলাদেশের শ্রম আইন অনুযায়ী ১৪ বছরের নিচে কাউকে কারখানায় শ্রমিক হিসেবেনিযুক্ত করা যাবে না। কিন্তু কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে ১৪ বছরের কম বয়সের শিশুরাও কাজ করছে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    বাংলাদেশের শ্রম আইন অনুযায়ী ১৪ বছরের নিচে কাউকে কারখানায় শ্রমিক হিসেবেনিযুক্ত করা যাবে না। কিন্তু কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে ১৪ বছরের কম বয়সের শিশুরাও কাজ করছে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • বাংলাদেশের শ্রম আইন অনুযায়ী ১৪ বছরের নিচে কাউকে কারখানায় শ্রমিক হিসেবেনিযুক্ত করা যাবে না। কিন্তু কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে ১৪ বছরের কম বয়সের শিশুরাও কাজ করছে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    বাংলাদেশের শ্রম আইন অনুযায়ী ১৪ বছরের নিচে কাউকে কারখানায় শ্রমিক হিসেবেনিযুক্ত করা যাবে না। কিন্তু কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে ১৪ বছরের কম বয়সের শিশুরাও কাজ করছে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • বাংলাদেশের শ্রম আইনে বলা হয়েছে ১৪ বছরের নিচে কাউকে কারখানায় শ্রমিক হিসেবে নিযুক্ত করা যাবে না এবং ১৪ থেকে ১৮ বছর পর্যন্ত শিশুরা ঝুঁকিপূর্ণ নয় এমন হালকা কাজ করতে পারবে। ‍কিন্তু কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে অনেক ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে শিশুরা । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    বাংলাদেশের শ্রম আইনে বলা হয়েছে ১৪ বছরের নিচে কাউকে কারখানায় শ্রমিক হিসেবে নিযুক্ত করা যাবে না এবং ১৪ থেকে ১৮ বছর পর্যন্ত শিশুরা ঝুঁকিপূর্ণ নয় এমন হালকা কাজ করতে পারবে। ‍কিন্তু কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে অনেক ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে শিশুরা । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • বাংলাদেশের শ্রম আইনে বলা হয়েছে ১৪ বছরের নিচে কাউকে কারখানায় শ্রমিক হিসেবে নিযুক্ত করা যাবে না এবং ১৪ থেকে ১৮ বছর পর্যন্ত শিশুরা ঝুঁকিপূর্ণ নয় এমন হালকা কাজ করতে পারবে। ‍কিন্তু কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে অনেক ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে শিশুরা । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    বাংলাদেশের শ্রম আইনে বলা হয়েছে ১৪ বছরের নিচে কাউকে কারখানায় শ্রমিক হিসেবে নিযুক্ত করা যাবে না এবং ১৪ থেকে ১৮ বছর পর্যন্ত শিশুরা ঝুঁকিপূর্ণ নয় এমন হালকা কাজ করতে পারবে। ‍কিন্তু কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে অনেক ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে শিশুরা । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে অনেক শিশু। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে অনেক শিশু। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে কোনো রকম সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়াই জাহাজ মেরামতের কাজ করছে শিশুরা । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে কোনো রকম সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়াই জাহাজ মেরামতের কাজ করছে শিশুরা । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে কোনো ধরনের সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়াই লোহা গলানোর মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে শিশুরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে কোনো ধরনের সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়াই লোহা গলানোর মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে শিশুরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে কোনো ধরনের সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়াই লোহা গলানোর মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে শিশুরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    কেরানীগঞ্জ ডক ইয়ার্ডে কোনো ধরনের সুরক্ষা সরঞ্জাম ছাড়াই লোহা গলানোর মতো ঝুঁকিপূর্ণ কাজ করছে শিশুরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি