১৭ জানুয়ারি, ২০২১

  • যাত্রামোহন সেনগুপ্তের বাড়ি ভাঙ্গচুরকারীদের গ্রেপ্তার ও ঐতিহাসিক স্থাপনার সংরক্ষনের দাবিতে রোববার চট্টগ্রাম চেরাগী পাহাড় এলাকা থেকে সর্বস্তরের সচেতন নাগরিকবৃন্দ মশাল মিছিল বের করে। ছবি: সুমন বাবু

    যাত্রামোহন সেনগুপ্তের বাড়ি ভাঙ্গচুরকারীদের গ্রেপ্তার ও ঐতিহাসিক স্থাপনার সংরক্ষনের দাবিতে রোববার চট্টগ্রাম চেরাগী পাহাড় এলাকা থেকে সর্বস্তরের সচেতন নাগরিকবৃন্দ মশাল মিছিল বের করে। ছবি: সুমন বাবু

  • যাত্রামোহন সেনগুপ্তের বাড়ি ভাঙ্গচুরকারীদের গ্রেপ্তার ও ঐতিহাসিক স্থাপনার সংরক্ষনের দাবিতে রোববার চট্টগ্রাম চেরাগী পাহাড় এলাকা থেকে সর্বস্তরের সচেতন নাগরিকবৃন্দ মশাল মিছিল বের করে। ছবি: সুমন বাবু

    যাত্রামোহন সেনগুপ্তের বাড়ি ভাঙ্গচুরকারীদের গ্রেপ্তার ও ঐতিহাসিক স্থাপনার সংরক্ষনের দাবিতে রোববার চট্টগ্রাম চেরাগী পাহাড় এলাকা থেকে সর্বস্তরের সচেতন নাগরিকবৃন্দ মশাল মিছিল বের করে। ছবি: সুমন বাবু

  • চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার পোস্টারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা। ছবি: সুমন বাবু

    চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার পোস্টারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা। ছবি: সুমন বাবু

  • চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার পোস্টারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা। ছবি: সুমন বাবু

    চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার পোস্টারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা। ছবি: সুমন বাবু

  • চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার পোস্টারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা। ছবি: সুমন বাবু

    চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার পোস্টারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা। ছবি: সুমন বাবু

  • চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার পোস্টারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা। ছবি: সুমন বাবু

    চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার পোস্টারে ছেয়ে গেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারসহ বিভিন্ন এলাকা। ছবি: সুমন বাবু

  • পারিবারিক ও সামাজিক নিরাপত্তার লক্ষ্যে রোববার ঢাকার বংশাল থানা আওতাধীন কে এম আজম লেনে বুথ বসিয়ে বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়ার তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ।

    পারিবারিক ও সামাজিক নিরাপত্তার লক্ষ্যে রোববার ঢাকার বংশাল থানা আওতাধীন কে এম আজম লেনে বুথ বসিয়ে বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়ার তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ।

  • পারিবারিক ও সামাজিক নিরাপত্তার লক্ষ্যে রোববার ঢাকার বংশাল থানা আওতাধীন কে এম আজম লেনে বুথ বসিয়ে বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়ার তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ।

    পারিবারিক ও সামাজিক নিরাপত্তার লক্ষ্যে রোববার ঢাকার বংশাল থানা আওতাধীন কে এম আজম লেনে বুথ বসিয়ে বাড়ির মালিক ও ভাড়াটিয়ার তথ্য সংগ্রহ করছে পুলিশ।

  • তিন বছর আগে ঢাকার কাকরাইলে মা-ছেলে খুনের ঘটনায় রোববার নিহত নারীর স্বামী, তার তৃতীয় স্ত্রী ও শ্যালকের ফাঁসির রায় দিয়েছে ঢাকার জজ আদালত। আদালতে আসামি আব্দুল করিমের তৃতীয় স্ত্রী শারমিন আক্তার মুক্তা।

    তিন বছর আগে ঢাকার কাকরাইলে মা-ছেলে খুনের ঘটনায় রোববার নিহত নারীর স্বামী, তার তৃতীয় স্ত্রী ও শ্যালকের ফাঁসির রায় দিয়েছে ঢাকার জজ আদালত। আদালতে আসামি আব্দুল করিমের তৃতীয় স্ত্রী শারমিন আক্তার মুক্তা।

  • তিন বছর আগে ঢাকার কাকরাইলে মা-ছেলে খুনের ঘটনায় রোববার নিহত নারীর স্বামী, তার তৃতীয় স্ত্রী ও শ্যালকের ফাঁসির রায় দিয়েছে ঢাকার জজ আদালতে। আদালতে দণ্ডিত দুই আসামি আব্দুল করিম ও তার শ্যালক আল-আমিন জনি।

    তিন বছর আগে ঢাকার কাকরাইলে মা-ছেলে খুনের ঘটনায় রোববার নিহত নারীর স্বামী, তার তৃতীয় স্ত্রী ও শ্যালকের ফাঁসির রায় দিয়েছে ঢাকার জজ আদালতে। আদালতে দণ্ডিত দুই আসামি আব্দুল করিম ও তার শ্যালক আল-আমিন জনি।

  • নিজেদের সংসারে ব্যস্ত দুই মেয়ে; এক ছেলেও স্ত্রীকে নিয়ে আলাদা হয়ে গেছে। নিজে ভুগছেন হৃদরোগে, তারপরও রিনা বেগম কারও কাছে হাত পাতেননি। বেঁচে থাকার জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় ফুটপাতে বসে পুরান কাপড় বিক্রি করেন তিনি। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নিজেদের সংসারে ব্যস্ত দুই মেয়ে; এক ছেলেও স্ত্রীকে নিয়ে আলাদা হয়ে গেছে। নিজে ভুগছেন হৃদরোগে, তারপরও রিনা বেগম কারও কাছে হাত পাতেননি। বেঁচে থাকার জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় ফুটপাতে বসে পুরান কাপড় বিক্রি করেন তিনি। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • নিজেদের সংসারে ব্যস্ত দুই মেয়ে; এক ছেলেও স্ত্রীকে নিয়ে আলাদা হয়ে গেছে। নিজে ভুগছেন হৃদরোগে, তারপরও রিনা বেগম কারও কাছে হাত পাতেননি। বেঁচে থাকার জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় ফুটপাতে বসে পুরান কাপড় বিক্রি করেন তিনি। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নিজেদের সংসারে ব্যস্ত দুই মেয়ে; এক ছেলেও স্ত্রীকে নিয়ে আলাদা হয়ে গেছে। নিজে ভুগছেন হৃদরোগে, তারপরও রিনা বেগম কারও কাছে হাত পাতেননি। বেঁচে থাকার জন্য কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় ফুটপাতে বসে পুরান কাপড় বিক্রি করেন তিনি। ছবি: মাহমুদ জামান অভি