পূর্বাচলে বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার

  • ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর আয়োজনের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারটি। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর আয়োজনের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারটি। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর আয়োজনের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারটি। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর আয়োজনের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারটি। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর আয়োজনের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারটি। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার ২৬তম আসর আয়োজনের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারটি। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • পূর্বাচলে রাজউকের নতুন শহরে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    পূর্বাচলে রাজউকের নতুন শহরে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • পূর্বাচলে রাজউকের নতুন শহরে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    পূর্বাচলে রাজউকের নতুন শহরে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • পূর্বাচলে রাজউকের নতুন শহরে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    পূর্বাচলে রাজউকের নতুন শহরে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • পূর্বাচলে রাজউকের নতুন শহরে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    পূর্বাচলে রাজউকের নতুন শহরে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টার। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে ঢুকতে হবে ডিজিটাল কার্ডের মাধ্যমে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে ঢুকতে হবে ডিজিটাল কার্ডের মাধ্যমে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে স্থায়ী অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে স্থায়ী অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে ৯ বর্গফুট আয়তনের ৮০০টি স্টলের জন্য রয়েছে আলাদা বিদ্যুৎ, পানি ও ইন্টারনেটের ব্যবস্থা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে ৯ বর্গফুট আয়তনের ৮০০টি স্টলের জন্য রয়েছে আলাদা বিদ্যুৎ, পানি ও ইন্টারনেটের ব্যবস্থা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের প্রতিটি পিলারের সঙ্গে রয়েছে স্বয়ংক্রিয় অগ্নি র্নিবাপন ব্যবস্থা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    বাংলাদেশ-চায়না ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের প্রতিটি পিলারের সঙ্গে রয়েছে স্বয়ংক্রিয় অগ্নি র্নিবাপন ব্যবস্থা। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলায় রয়েছে ৫০০ আসন বিশিষ্ট একটি কনফারেন্স রুম। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলায় রয়েছে ৫০০ আসন বিশিষ্ট একটি কনফারেন্স রুম। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলায় রয়েছে ৫০০ আসন বিশিষ্ট একটি কনফারেন্স রুম। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    পূর্বাচলে নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলায় রয়েছে ৫০০ আসন বিশিষ্ট একটি কনফারেন্স রুম। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • রাজধানীর পূর্বাচলে নবনির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলার কনফারেন্স কক্ষে যাওয়ার জন্য এই চলন্ত সিঁড়ি দেওয়া হয়েছে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    রাজধানীর পূর্বাচলে নবনির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারের দ্বিতীয় তলার কনফারেন্স কক্ষে যাওয়ার জন্য এই চলন্ত সিঁড়ি দেওয়া হয়েছে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • পূর্বাচলে বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে ফুড কোর্ট। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    পূর্বাচলে বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে ফুড কোর্ট। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • রাজউকের নতুন শহর পূর্বাচলে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে দুটি বড় হলরুম। এখানেই বসবে ৯ বর্গফুট আয়তনের ৮০০টি স্টল। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    রাজউকের নতুন শহর পূর্বাচলে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে দুটি বড় হলরুম। এখানেই বসবে ৯ বর্গফুট আয়তনের ৮০০টি স্টল। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • রাজউকের নতুন শহর পূর্বাচলে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে দুটি বড় হলরুম। এখানেই বসবে ৯ বর্গফুট আয়তনের ৮০০টি স্টল। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    রাজউকের নতুন শহর পূর্বাচলে ২০ একর জমির উপর নির্মিত বাংলাদেশ-চীন ফ্রেন্ডশিপ এক্সিবিশন সেন্টারে রয়েছে দুটি বড় হলরুম। এখানেই বসবে ৯ বর্গফুট আয়তনের ৮০০টি স্টল। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি