খেলার মাঠে খেলার উপায় নেই

  • চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন আউটার স্টেডিয়ামকে এক সময় বলা হতে খেলোয়াড় তৈরির সূতিকাগার, অযত্ন অবহেলায় এখন সেখানে হাঁটারও উপায় নেই। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

    চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন আউটার স্টেডিয়ামকে এক সময় বলা হতে খেলোয়াড় তৈরির সূতিকাগার, অযত্ন অবহেলায় এখন সেখানে হাঁটারও উপায় নেই। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

  • চট্টগ্রাম কলেজের মাঠটি নগরবাসীর কাছে প্যারেড গ্রাউন্ড হিসেবেই পরিচিত; অযত্ন আর অবহেলায় এ মাঠটিও খেলার অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

    চট্টগ্রাম কলেজের মাঠটি নগরবাসীর কাছে প্যারেড গ্রাউন্ড হিসেবেই পরিচিত; অযত্ন আর অবহেলায় এ মাঠটিও খেলার অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

  • চট্টগ্রাম কলেজের মাঠটি নগরবাসীর কাছে প্যারেড গ্রাউন্ড হিসেবেই পরিচিত; অযত্ন আর অবহেলায় এ মাঠটিও খেলার অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

    চট্টগ্রাম কলেজের মাঠটি নগরবাসীর কাছে প্যারেড গ্রাউন্ড হিসেবেই পরিচিত; অযত্ন আর অবহেলায় এ মাঠটিও খেলার অনুপোযোগী হয়ে পড়েছে। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

  • নিষেধাজ্ঞা ওঠার পর খেলোয়াড়রা মাঠে ফিরতে শুরু করলেও চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন ক্রিকেট নেটটি এখনও খোলেনি। সেখানে এখনও রাখা হয় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের অ্যাম্বুলেন্স। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

    নিষেধাজ্ঞা ওঠার পর খেলোয়াড়রা মাঠে ফিরতে শুরু করলেও চট্টগ্রাম এমএ আজিজ স্টেডিয়াম সংলগ্ন ক্রিকেট নেটটি এখনও খোলেনি। সেখানে এখনও রাখা হয় একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের অ্যাম্বুলেন্স। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

  • চট্টগ্রামের পলোগ্রাউন্ড এখন বছরের অর্ধেক সময় জুড়ে থাকে বিভিন্ন মেলার জন্য বরাদ্দ। মেলা শেষে মাঠে পড়ে থাকে ইট কাঠ; খেলাধুলার পরিবেশই আর নেই। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

    চট্টগ্রামের পলোগ্রাউন্ড এখন বছরের অর্ধেক সময় জুড়ে থাকে বিভিন্ন মেলার জন্য বরাদ্দ। মেলা শেষে মাঠে পড়ে থাকে ইট কাঠ; খেলাধুলার পরিবেশই আর নেই। ছবি: উত্তম সেনগুপ্ত

সাম্প্রতিক ছবিঘর