১১ এপ্রিল ২০২০

  • নভেল করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া একজনকে শনিবার খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে দাফন করার আগে পড়া হচ্ছে জানাজা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নভেল করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া একজনকে শনিবার খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে দাফন করার আগে পড়া হচ্ছে জানাজা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • নভেল করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া একজনকে শনিবার খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে দাফন করা হয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নভেল করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া একজনকে শনিবার খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে দাফন করা হয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • নভেল করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া একজনকে শনিবার খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে দাফন করা হয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নভেল করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া একজনকে শনিবার খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে দাফন করা হয়। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • নভেল করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া একজনকে খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে দাফনের পর পিপিইসহ ব্যবহৃত জিনিসপত্র পুড়িয়ে দিচ্ছেন দাফনকারীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নভেল করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া একজনকে খিলগাঁও তালতলা কবরস্থানে দাফনের পর পিপিইসহ ব্যবহৃত জিনিসপত্র পুড়িয়ে দিচ্ছেন দাফনকারীরা। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • রাজধানীর রামপুরা মহানগর প্রজেক্ট এলাকার পাশে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের উলন বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে শনিবার আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিট প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    রাজধানীর রামপুরা মহানগর প্রজেক্ট এলাকার পাশে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের উলন বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে শনিবার আগুন লাগে। ফায়ার সার্ভিসের সাতটি ইউনিট প্রায় এক ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রনে আনে । ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে অগ্নিকাণ্ড দেখতে রাস্তায় মানুষের ভিড়। শনিবার রাজধানীর রামপুরা মহানগর প্রজেক্টের পাশে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের উলন বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে আগুন লাগে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

    নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে অগ্নিকাণ্ড দেখতে রাস্তায় মানুষের ভিড়। শনিবার রাজধানীর রামপুরা মহানগর প্রজেক্টের পাশে ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের উলন বিদ্যুৎ উপকেন্দ্রে আগুন লাগে। ছবি: মাহমুদ জামান অভি

  • চিকিৎসককে দেখিয়ে কোনো যানবাহন না পেয়ে অসুস্থ ছেলেকে নিয়ে ভ্যানে করে বাড়ি ফিরছেন এক ব্যক্তি। মিরপুর ১ নম্বরের চিত্র। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    চিকিৎসককে দেখিয়ে কোনো যানবাহন না পেয়ে অসুস্থ ছেলেকে নিয়ে ভ্যানে করে বাড়ি ফিরছেন এক ব্যক্তি। মিরপুর ১ নম্বরের চিত্র। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দূরত্ব নিশ্চিতের চেষ্টায় ঢাকার একটি সুপার শপের ভেতরে এক সঙ্গে ২০ জনের বেশি ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না; ফলে ঢোকার জন্য লাইনে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দূরত্ব নিশ্চিতের চেষ্টায় ঢাকার একটি সুপার শপের ভেতরে এক সঙ্গে ২০ জনের বেশি ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না; ফলে ঢোকার জন্য লাইনে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দূরত্ব নিশ্চিতের চেষ্টায় ঢাকার একটি সুপার শপের ভেতরে এক সঙ্গে ২০ জনের বেশি ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না; ফলে ঢোকার জন্য লাইনে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দূরত্ব নিশ্চিতের চেষ্টায় ঢাকার একটি সুপার শপের ভেতরে এক সঙ্গে ২০ জনের বেশি ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না; ফলে ঢোকার জন্য লাইনে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

  • প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দূরত্ব নিশ্চিতের চেষ্টায় ঢাকার একটি সুপার শপের ভেতরে এক সঙ্গে ২০ জনের বেশি ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না; ফলে ঢোকার জন্য লাইনে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

    প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে দূরত্ব নিশ্চিতের চেষ্টায় ঢাকার একটি সুপার শপের ভেতরে এক সঙ্গে ২০ জনের বেশি ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না; ফলে ঢোকার জন্য লাইনে অপেক্ষা করতে হচ্ছে। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

সাম্প্রতিক ছবিঘর