হানিফ পাপ্পুর ক্যানভাস বদল

  • সময়ের সাথে সাথে বদলে গেছে হানিফ পাপ্পুর আঁকার ক্ষেত্র। এখন সৌখিন মানুষের ফরমায়েশ মতো রিকশা পেইন্টিং করে দেন তিনি। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    সময়ের সাথে সাথে বদলে গেছে হানিফ পাপ্পুর আঁকার ক্ষেত্র। এখন সৌখিন মানুষের ফরমায়েশ মতো রিকশা পেইন্টিং করে দেন তিনি। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • হানিফ পাপ্পুর আঁকা রিকশা পেইন্টগুলো রপ্তানি হচ্ছে বিভিন্ন দেশে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    হানিফ পাপ্পুর আঁকা রিকশা পেইন্টগুলো রপ্তানি হচ্ছে বিভিন্ন দেশে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • ছবি আঁকায় মগ্ন হানিফ পাপ্পু। ক্যানভাস কাপড়ের ওপর আঁকা এই ছবি যাবে ফ্রান্সে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    ছবি আঁকায় মগ্ন হানিফ পাপ্পু। ক্যানভাস কাপড়ের ওপর আঁকা এই ছবি যাবে ফ্রান্সে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • হানিফ পাপ্পুর দোকনে তার সহকারী হিসেবে কাজ করে এখন চারজন। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    হানিফ পাপ্পুর দোকনে তার সহকারী হিসেবে কাজ করে এখন চারজন। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • হানিফ পাপ্পুর আঁকা রিকশা পেইন্টগুলো রপ্তানি হচ্ছে বিভিন্ন দেশে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    হানিফ পাপ্পুর আঁকা রিকশা পেইন্টগুলো রপ্তানি হচ্ছে বিভিন্ন দেশে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • দেশিয় সিনেমার সবচেয়ে বড় ব্যানারটি এঁকেছিলেন হানিফ পাপ্পু। আর সেটির স্থান হয়েছিল একসময়ের গুলিস্তান সিনেমা হলে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    দেশিয় সিনেমার সবচেয়ে বড় ব্যানারটি এঁকেছিলেন হানিফ পাপ্পু। আর সেটির স্থান হয়েছিল একসময়ের গুলিস্তান সিনেমা হলে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • হানিফ পাপ্পু তার আঁকায় ব্যবহার করেন এনামেল রঙ। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    হানিফ পাপ্পু তার আঁকায় ব্যবহার করেন এনামেল রঙ। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • সময়ের প্রয়োজনে বকশিবাজার লেইনে হানিফ পাপ্পুর দোকানেও এখন ডিজিটাল ছোঁয়া। দেশ-বিদেশ থেকে অনেকে রিকশা পেইন্টিংয়ের ফরমায়েশ দেন। তাই কম্পিউটার, ইন্টারনেটের ব্যবস্থাও করতে হয়েছে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    সময়ের প্রয়োজনে বকশিবাজার লেইনে হানিফ পাপ্পুর দোকানেও এখন ডিজিটাল ছোঁয়া। দেশ-বিদেশ থেকে অনেকে রিকশা পেইন্টিংয়ের ফরমায়েশ দেন। তাই কম্পিউটার, ইন্টারনেটের ব্যবস্থাও করতে হয়েছে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • সময়ের প্রয়োজনে বকশিবাজার লেইনে হানিফ পাপ্পুর দোকানেও এখন ডিজিটাল ছোঁয়া। দেশ-বিদেশ থেকে অনেকে রিকশা পেইন্টিংয়ের ফরমায়েশ দেন। তাই কম্পিউটার, ইন্টারনেটের ব্যবস্থাও করতে হয়েছে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    সময়ের প্রয়োজনে বকশিবাজার লেইনে হানিফ পাপ্পুর দোকানেও এখন ডিজিটাল ছোঁয়া। দেশ-বিদেশ থেকে অনেকে রিকশা পেইন্টিংয়ের ফরমায়েশ দেন। তাই কম্পিউটার, ইন্টারনেটের ব্যবস্থাও করতে হয়েছে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    পুরান ঢাকার বকশীবাজার লেইনে নিজের দোকানে হানিফ পাপ্পুর আঁকা বিভিন্ন শিল্পকর্ম। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • সময়ের সাথে সাথে বদলে গেছে হানিফ পাপ্পুর আঁকার ক্ষেত্র। এখন সৌখিন মানুষের ফরমায়েশ মতো রিকশা পেইন্টিং করে দেন তিনি। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    সময়ের সাথে সাথে বদলে গেছে হানিফ পাপ্পুর আঁকার ক্ষেত্র। এখন সৌখিন মানুষের ফরমায়েশ মতো রিকশা পেইন্টিং করে দেন তিনি। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • বাবার হাত ধরে মাত্র সাত বছর বয়সে সিনেমার পোস্টার-ব্যানার আঁকায় হাতেখড়ি হানিফ পাপ্পুর। পঞ্চাশ বছর ধরে এঁকেই চলেছেন। শুধু বদলেছে তার ক্যানভাস; পোস্টার-ব্যানার ছেড়ে থিতু হয়েছেন রিকশা পেইন্টে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    বাবার হাত ধরে মাত্র সাত বছর বয়সে সিনেমার পোস্টার-ব্যানার আঁকায় হাতেখড়ি হানিফ পাপ্পুর। পঞ্চাশ বছর ধরে এঁকেই চলেছেন। শুধু বদলেছে তার ক্যানভাস; পোস্টার-ব্যানার ছেড়ে থিতু হয়েছেন রিকশা পেইন্টে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

  • বাবার হাত ধরে মাত্র সাত বছর বয়সে সিনেমার পোস্টার-ব্যানার আঁকায় হাতেখড়ি হানিফ পাপ্পুর। পঞ্চাশ বছর ধরে এঁকেই চলেছেন। শুধু বদলেছে তার ক্যানভাস; পোস্টার-ব্যানার ছেড়ে থিতু হয়েছেন রিকশা পেইন্টে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

    বাবার হাত ধরে মাত্র সাত বছর বয়সে সিনেমার পোস্টার-ব্যানার আঁকায় হাতেখড়ি হানিফ পাপ্পুর। পঞ্চাশ বছর ধরে এঁকেই চলেছেন। শুধু বদলেছে তার ক্যানভাস; পোস্টার-ব্যানার ছেড়ে থিতু হয়েছেন রিকশা পেইন্টে। ছবি: আব্দুল্লাহ আল মমীন

সাম্প্রতিক ছবিঘর