শুষ্ক মৌসুমে উজ্জ্বল চুল

প্রকৃতিতে এখন শীতের বার্তা। উত্তরের হাওয়া বইতে শুরু করলে প্রাকৃতিক শুষ্কতার সঙ্গে চুলও ম্রিয়মাণ দেখায়।

মনি ইয়াছিনবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 19 Nov 2014, 10:06 AM
Updated : 19 Nov 2014, 10:26 AM

শীতেও চুল ঝলমলে রাখতে চাই বাড়তি যত্ন। ধরণ বুঝে তাই পরিচর্যা করতে হবে। বিস্তারিত জানাচ্ছেন মিউনি’জ ব্রাইডালের রূপ বিশেষজ্ঞ তানজিমা শারমিন মিউনি।

তৈলাক্ত চুল: শ্যাম্পু করলেও তৈলাক্ত চুল নির্জীব থাকে। তাই শ্যাম্পুর সঙ্গে সামান্য বেকিং পাউডার মিশিয়ে নিলে চুলের গোড়ার অতিরিক্ত তেল শুষে যায়।

শুষ্ক চুল: সপ্তাহে দুবার রাতে চুলের গোড়ায় অলিভ অয়েল বা ক্যাস্টর অয়েল লাগাতে হবে এবং সকালে শ্যাম্পু করতে হবে। এতে চুলে আদ্রভাব বজায় থাকবে। চুলে প্রোটিন সমৃদ্ধ কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। তাহলে চুলের পুষ্টি বজায় থাকবে। শুষ্ক চুলের জন্য ভিটামিন-ই, অ্যালোভিরা সমৃদ্ধ শ্যাম্পু এবং কনডিশনার ব্যবহার করতে হবে।

শীত ঋতুতে চুলের জন্য সবচেয়ে বড় সমস্যা হল চুলে খুশকি। চুলের গোড়ায় ময়লা জমে খুশকি হয়। আর শীতকালে চুলের গোড়ায় খুব তাড়াতাড়ি ময়লা জমে। তাই খুশকির প্রবণতাও বাড়ে।

শুষ্ক মৌসুমে খুশকিকে টাটা বাইবাই বলতে চাই একটু বাড়তি যত্ন।

  • - শ্যাম্পু করার আগে ভেজা চুলে লবণ ঘষতে পারেন।
  • - মেথি পেস্ট করে চুলের গোড়ায় লাগিয়ে আধা ঘণ্টা পর রিঠা দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।
  • - রাতে ঘুমাবার আগে লেবুর রস ও আমলকীর রস মিশিয়ে মাথায় লাগিয়ে সকালে শ্যাম্পু করতে হবে।
  • - সকালে পাতিলেবুর রসের সঙ্গে লবণ মিশিয়ে ঘষে ঘষে গোড়ায় মেসেজ করতে হবে। এক ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করতে হবে।
  • - সপ্তাহে দুবার পাতি লেবুর রসের সঙ্গে নিম পাতার রস মিশিয়ে মাথায় লাগিয়ে আধা ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করতে হবে।
  • - নারিকেল তেল ও কর্পুর মিশিয়ে গরম করে মাথায় লাগিয়ে এক ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করতে হবে।
  • - খুশকির জন্য পেঁয়াজ আদর্শ। এতে প্রচুর পরিমাণে সালফার থাকে। পেঁয়াজের রস মাথায় লাগিয়ে এক ঘণ্টা পর শ্যাম্পু করতে হবে।

উপরের যে কোনো একটি পদ্ধতি অনুসরণ করলেই হয়। তবে খুশকির পরিমাণ বেশি হলে দুই তিনটি পন্থা একসঙ্গে চালিয়ে গেলে দ্রুত উপকার পাওয়া যাবে।

শীতে চুলের উজ্জ্বলতা

  • - ফ্রুট অ্যাসিড চুলের তেল এবং ময়লা পরিষ্কার করে। ফলে চুল হয়ে উঠে ঝরঝরে। তাই লেবু বা ফলের রস আছে এরকম শ্যাম্পু ব্যবহার করুন।
  • - শ্যাম্পুর সঙ্গে একটি ডিম মিশিয়ে নিন। ডিমের প্রোটিন চুলের উজ্জ্বলতা বাড়ায়।
  • - শ্যাম্পু করার পর ভিনেগার মিশ্রিত পানিতে চুল ধুয়ে নিতে হবে। তাহলে চুল চকচকে হবে।
  • - শ্যাম্পু করার পর লেবুর রস দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। তাহলে চুল চকচকে হওয়ার পাশাপাশি চিটচিটেভাব দূর হবে।
  • - শ্যাম্পুর পর বিটের রস মেশানো পানিতে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে। তাহলে চুল লালচে রং হবে।
  • - চাল ধোয়া পানিতে বেসন মিশিয়ে চুলে লাগিয়ে কয়েক মিনিট পর ধুযে ফেলুন।

সতর্কতা

  • * চুলে যাতে মরা কোষ না জমে সেদিকে লক্ষ রেখে চুল পরিষ্কার করতে হবে।
  • * প্রতিদিন শ্যাম্পু ব্যবহার করলে মাইল্ড বা বেবি শ্যাম্পু ব্যবহার করা ভালো।
  • * মাথা মালিশ করার সময় নখ লাগানো যাবে না।
  • * চুলে শ্যাম্পু বা কন্ডিশনার লাগানোর আগে চুল ভালোভাবে ধুয়ে নিতে হবে।
  • * শ্যাম্পুর সঙ্গে দুটি ভিটামিন-ই ক্যাপসুল মিশিয়ে নিলে উপকার পাওয়া যাবে।

এছাড়াও বাড়িতে পরিচর্যার পাশাপাশি মাসে একবার পার্লারে গিয়ে ট্রিটমেন্ট নিতে পারেন। এতে মাথায় ত্বকের কোষগুলো সক্রিয় থাকে, চুলে খুশকি হয় না এবং অনেক সমস্যা থেকে সমাধান পাওয়া যায়।

চুলের ধরণ অনুযায়ী বেছে নিন প্রয়োজনীয় যত্ন। ভেজা চুল কখনও বেঁধে রাখা বা আঁচড়ানো ঠিক না। গোড়া নরম থাকে বলে চুল ঝরে যেতে পারে এবং চুল রুক্ষ্ম হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে।

সুন্দর ও ঝলমলে চুল পেতে এবং চুলের আর্দ্রতা ধরে রাখতে পরিচর্যার পাশাপাশি প্রচুর শাকসবজি, পানি ও ফলমূল খাওয়ার অভ্যেস করুন।

মডেল: সারাহ ফারহানা।

ছবি: ই স্টুডিও।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক