হাত ও পায়ের যত্ন

ঈদের বেশ কিছুদিন আগে থেকেই শুরু হয় ঈদের প্রস্তুতি। ঈদুল আজহায় কেনাকাটা আর সাজসজ্জার সঙ্গে যোগ হয় গরু কেনা এবং এর কাটাকাটির বিষয়।

ইরা ডি. কস্তাবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Oct 2014, 11:52 AM
Updated : 2 Oct 2014, 11:52 AM

কোরবানিরঈদে ব্যস্ততা, রোজার ঈদের চাইতে বরাবরই বেশি।তাছাড়া এই ঈদে কাজও থাকে অনেক। তাইবলে ঈদের বেড়ানো আর নতুন জামা পরার আনন্দ তো আর বাদ দেওয়া যায় না। তবে মাংস কাটা এবং নানান ব্যস্ততায় এইসময় হাতেরনখ এবং ত্বকের ক্ষতি হয়। আর তাই ঈদের বেশ কিছুদিনআগে থেকেই হাতের যত্ন শুরু করা ভালো। তাহলে ত্বকে ক্ষতির পরিমাণ কিছুটা হলেও কম হয়।

ঈদের আগেসাধারণ কিছু পরিচর্যা করলেই হাতের ত্বক সুন্দর রাখা সম্ভব। এ বিষয়ে সহজ কিছু পরামর্শ দিয়েছেন রেড বিউটি স্যালুনের কর্ণধার আফরোজা পারভিন।

আফরোজাপারভিন বলেন, “ঈদুল আজহায় হাঁটাহাঁটি এবং কাজের পরিমাণ বেশি থাকে। তাই হাত ও পায়ের ত্বকের ক্ষতিও হয় বেশি। ঈদের কিছুদিন আগে থেকেই হাত ও পায়ের যত্ন নেওয়া শুরু করতে হবে।আর ঘরে বসেইএই চর্চাগুলো নিয়মিত চালালে হাতের ত্বকের ক্ষতি কিছুটা কম হবে।”

“ঈদের আগেএকবার পার্লার থেকে ম্যানিকিউর এবং পেডিকিউর করিয়েনিতে হবে। এরপর নখ পছন্দমতো শেইপ করে ছোট করে কেটে নিন। কারণ ঈদে মাংস কাটাকাটি করতে গিয়ে অনেক সময়ই নখ ভেঙে বা ফেটেযেতে পারে। তখন আরও বেশি সমস্যা হতে পারে। তাই আগেই নখের শেইপ ঠিক করে নেওয়া জরুরি। এরপর নখ শক্ত করতে সাহায্যকরে এমন লোশন লাগিয়ে নিলে নখ ভালো থাকবে।তাছাড়া নিয়মিতহাতে ময়েশ্চারাইজার বা ভ্যাজলিন ব্যবহারকরতে হবে।” বলেন আফরোজা পারভিন।

মাংস কাটারফলে হাতে 'বোটকা' একটা গন্ধ হয়ে থাকে। আর গন্ধটা অত্যন্ত অস্বস্তিকরওবটে। সহজে এই গন্ধ যেতেও চায় না। এক্ষেত্রে হাত পানি দিয়ে ধুয়ে হাতে ও পায়ে খানিকটাহলুদ মাখিয়ে নিন। হলুদ দিয়ে ভালো করে হাত ঘষে তারপর হ্যান্ডওয়াশ বা সাবান দিয়েহাত ধুয়ে নিতে হবে। তাহলে হাত থেকে বিরক্তিকরগন্ধ দূর করা যাবে। এরপর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতে হবে প্রতিবার হাত ধোয়ার পর।

এছাড়া সরিষার তেলও হাতের নমনীয়তা বজায় রাখবে এবং গন্ধ দূর করবে, জানিয়েছেনআফরোজা পারভিন।

আফরোজাপারভিন জানান, এ সময়ে হাতের কাছে সবসময় ময়েশ্চারাইজার রাখতে হবে। কারণআবহাওয়া পরিবর্তনের কারণে এখন হাত শুষ্ক হয়ে যায়, তাই প্রতিবারই হাত ও পা ধোয়ার পর ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করতেহবে।

ঈদের পরপ্রায় এক সপ্তাহ টানা হাতের যত্ন চালিয়ে যেতে হবে।সম্ভব হলেআবারও ম্যানিকিউর এবং পেডিকিউর করে নেওয়াযায়।

ছবি: অপূর্ব খন্দকার।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক