৪টি মিঠাই

জিনাত জোয়ার্দার রিপা, চাকরি করছেন। পাশাপাশি ‘স্যালুট টু পুলিশ’ কর্মযজ্ঞের অন্যতম ব্যক্তি। অবসরে রান্না করা শখ। তিনি দিয়েছেন মুখরোচক ৪টি মজার মিষ্টি খাবারের রন্ধন পদ্ধতি।

>>বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 Oct 2013, 02:13 AM
Updated : 1 Oct 2013, 02:18 AM

স্পঞ্জ রসগোল্লা

স্পঞ্জ রসগোল্লা

উপকরণ
:
ছানার জন্য— দুধ ১ লিটার। লেবু ১/৪ কাপ, পানি ১/৪ কাপ একসঙ্গে মিশিয়ে নিন। সিরার জন্য— চিনি দেড় কাপ। পানি ৩ কাপ।

পদ্ধতি : দুধ জ্বাল দিয়ে ফুটে উঠলে চুলার আগুন বন্ধ করে দিন। এখন এতে লেবুপানি একটু একটু করে দিয়ে নাড়তে থাকুন। দুধ থেকে সবুজ পানি আলাদা হয়ে গেলে পরিষ্কার পাতলা কাপড়ে ছানা ছেঁকে নিন। ১ কাপ পানি ছানার মধ্যে ঢেলে ঝুলিয়ে রাখুন কিছুক্ষণ।

পানিতে চিনি মিশিয়ে জ্বাল দিয়ে সিরা তৈরি করে নিন। ফুটে উঠলে আঁচ কমিয়ে রাখুন। ছানার পানি ঝরে গেলে হাত দিয়ে ভালো করে ময়ান দিয়ে রসগোল্লার মতো ছোট ছোট বল তৈরি করুন। ফুটন্ত সিরায় ছানার বলগুলো ছেড়ে দিন। চুলার আঁচ বাড়িয়ে ঢেকে দিন। কিছুক্ষণ পর একটি বড় চামচ দিয়ে রসগোল্লা সিরায় ডুবিয়ে দিন।

মাঝারি আঁচে রেখে রসগোল্লা ফুটাতে হবে ১০-১৫ মিনিট। এরপর চুলার আগুন নিভিয়ে দিন। ঠাণ্ডা হলে পরিবেশন করুন।


রসগোল্লা

রসগোল্লা

উপকরণ
: মিষ্টির জন্য— ছানা ৩ কাপ। ময়দা ১ কাপের ৪ ভাগের ১ ভাগ। সুজি ২ চা-চামচ। চিনি ২ টেবিল-চামচ। খাওয়ার সোডা ১ চিমটি। এলাচি গুঁড়া সামান্য। সিরার জন্য— ৫ কাপ চিনি, ৫ কাপ পানি দিয়ে জ্বাল দিয়ে পাতলা সিরা তৈরি করে নিতে হবে।

পদ্ধতি : ১. একটি ছড়ানো পাত্রে মুঠমুঠ করে ময়ান করা ছানা দিয়ে একে একে সব শুকনা উপকরণ ছড়িয়ে দিন। ২. হাতের তালু দিয়ে সব উপকরণ ভালোভাবে মেখে নিন। ৩. এবার হাতে তেল মেখে ছানার মিশ্রণকে গোল গোল মিষ্টি বানান। ৪. এবার পাতলা সিরায় মিষ্টি দিয়ে চুলার আঁচ বাড়িয়ে ঢেকে দিন। ৫. মিষ্টি যখন ফুলে দ্বিগুণ হয়ে যাবে, তখন চামচে করে গরম সিরার মধ্যে ঠাণ্ডা পানি মিলিয়ে দিন। ৬. মিষ্টি সেদ্ধ হলে নামিয়ে ৭-৮ ঘণ্টা সিরায় রেখে এরপর পরিবেশন করুন।

পুডিং

পুডিং

উপকরণ : ঘন দুধ ২ কাপ। চিনি ১ কাপ। মুরগির ডিম ৪টি। ২টি এলাচগুঁড়া। ক্রিম ২ টেবিল-চামচ।

পদ্ধতি : ১ লিটার দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে অর্ধেক করে নিতে হবে। ডিমের সঙ্গে চিনি মিশিয়ে দুধ, ডিম, চিনি, এলাচগুঁড়া ও ক্রিম ভালো করে ব্লেন্ড করে নিতে হবে। বার একটা পাত্র চুলায় দিয়ে তাতে সামান্য ঘি বা তেল বা মাখনের সঙ্গে চিনি দিয়ে ক্যারামেল করে নিতে হবে। এবার চিনি দিয়ে ক্যারামেল করা পাত্রে ডিমের মিশ্রণটি ঢেলে পাত্রের মুখ ঢাকনা দিয়ে ঢেকে ভাপে সেদ্ধ অথবা প্রেসার কুকারে পানি দিয়ে ১৫-২০ মিনিট ভাপে রাখতে হবে। পুডিং ঠাণ্ডা হতে দিন। ছুরি দিয়ে ছাঁচের চারপাশে ঘুরিয়ে কেটে নিতে হবে। প্লেট ছাঁচের মুখে চেপে ধরে উল্টে দিতে হবে। ফ্রিজে রেখে ঠাণ্ডা হলে পরিবেশন করুন সুস্বাদু ক্রিম পুডিং।

জাফরানি জর্দা

জাফরানি জর্দা

উপকরণ
:
পোলাওয়ের চাল ২ কাপ। চিনি ৩ কাপ। ঘি ৫ টেবিল চামচ। কমলার রস আধা কাপ। পেস্তা বাদাম কুচি ২ টেবিল-চামচ। খাবার রং সিকি চা-চামচ। কিশমিশ ২ টেবিল-চামচ। দারুচিনি ৪ টুকরা। এলাচ ৪ টুকরা। গোলাপ পানি ১ টেবিল-চামচ। মোরব্বা আধা কাপ। জর্দার গুল্লি ১ কাপ। মালাই সিকি কাপ। জাফরান সিকি চা-চামচ।

পদ্ধতি : গোলাপ পানিতে জাফরান ভিজিয়ে রাখতে হবে। চাল ধুয়ে পানি ঝরিয়ে ২০-২৫ মিনিট পর ফুটানো পানিতে দিয়ে ভাত রান্না করতে হবে। ভাত সেদ্ধ হওয়া মাত্র মাড় ঝরান। আধা কাপ পানিতে চিনি গুলিয়ে লেবুর রস বা দুধ দিয়ে চিনির ময়লা কাটাতে হবে। ঘি দিতে হবে। এলাচ, দারুচিনি দিতে হবে। এবার ভাত সেদ্ধ আঁচে রান্না করুন। কিশমিশ দিন। পানি শুকিয়ে গেলে জাফরান মিশ্রিত গোলাপ পানি দিতে হবে। চুলা থেকে নামিয়ে বাকি উপকরণ দিয়ে পরিবেশন করুন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক