দিনে চার থেকে ছয় কাপ চা-কফি পান স্ট্রোক ও স্মৃতিভ্রংশের ঝুঁকি কমাতে পারে

সাম্প্রতিক গবেষণা থেকে জানা যায়, কফি ও চা পান মস্তিষ্কের দীর্ঘস্থায়ী সুস্বাস্থ্যে ভূমিকা রাখে।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Nov 2021, 03:53 PM
Updated : 27 Nov 2021, 03:53 PM

‘পিএলওএস মেডিসিন’ সাময়িকীতে প্রকাশিত সমকক্ষ পর্যালোচিত গবেষণায় দেখা গেছে, প্রাপ্ত বয়স্করা যারা দিনে দুই তিন কাপ চা বা কফি পান করেন বা এই দুই পানীয় মিলিতভাবে ছয়বার কেউ পান করেন তবে তাদের মাঝে স্মৃতিভ্রংশ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি অন্যাদের তুলনায় কম হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। 

চীনের তিয়ানজিন মেডিকেল ইউনিভার্সিটি’র ‘স্কুল অফ পাবলিক হেল্থ’য়ের গবেষকরা যুক্তরাজ্যের ‘বায়ো ব্যাংক’য়ে অংশ নেওয়া ৩ লাখ ৬০ হাজার জন অংশগ্রহণকারীর ওপর ১০ থেকে ১৪ বছরের বেশি সময় ধরে এই পর্যবেক্ষণ চালান।

গবেষণায় ৫০ থেকে ৭৪ বছর বয়সিদের ওপর লক্ষ্য রাখা হয়। আর স্ট্রোক বা স্মৃতিভ্রংশ রোগ ছিল এমন অংশগ্রহণকারীদের বাদ দেওয়া হয়।

গবেষণার ফলাফলে দেখা গেছে, যারা একেবারেই পান করেন না তাদের তুলনায় যারা দুতিন কাপ কফি, তিন থেকে পাঁচ কাপ চা বা এর সংমিশ্রণ পান করেন তাদের মাঝে স্মৃতিভ্রংশ বা স্ট্রোকের ঝুঁকি সবচেয়ে কম ছিল।

আর যারা দুতিন কাপ পান করতেন তাদের মাঝে স্ট্রোকের ঝুঁকি ৩২ শতাংশ এবং স্মৃতিভ্রংশের ঝুঁকি ২৮ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে।

কফি পানকারীদেরও স্ট্রোকের পরে স্মৃতিভ্রংশ হওয়ার ঝুঁকি কম ছিল। তবে যারা শুধুমাত্র চা পান করেন তাদের ওপর একই প্রভাব দেখা যায়নি।

এই গবেষণার উদ্ধৃতি দিয়ে ইনসাইডার ডটকম’য়ে প্রকাশিত প্রতিবেদনে জানানো হয়, চা ও কফিতে ক্যাফেইন থাকে। আগের অনেক গবেষণায় দেখা গেছে এটা মস্তিষ্কের কার্যকারিতা বাড়ায়। 

কফি ও চা’তে রয়েছে একই রকমের পলিফেনল; এক ধরনের মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট, যা উদ্ভিজ্জ উৎস থেকে আসে। এছারাও এগুলোতে থাকা অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট মস্তিষ্কের অবক্ষয় এবং অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যার বিরুদ্ধে কাজ করতে সহায়তা করে।

গবেষণাপত্রের শেষে সতর্ক করে দিয়ে জানানো হয়, “চা ও কফির সঙ্গে মস্তিষ্কের সম্পর্ক রয়েছে। তবে মনে রাখতে হবে অতিরিক্ত চা বা কফি পান স্ট্রোক ও স্মৃতিভ্রংশ রোগে আক্রান্ত হওয়া থেকে প্রতিহত করতে পারে না।”

ছবি: রয়টার্স।

আরও পড়ুন

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক