সম্পর্ক যখন মানসিক চাপের কারণ

সঙ্গীর সঙ্গে যোগযোগ করলে ভালোলাগার পরিবর্তে উল্টো দুঃশ্চিন্তার স্রোত বয়ে যায়।

লাইফস্টাইলডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 29 April 2021, 05:00 PM
Updated : 29 April 2021, 05:00 PM

মনমেজাজের বারোটা বাজে, সম্পর্ক ভাঙার ভয় জাগে। আর এসব বিষয় মনের ওপর আরও চাপ তৈরি করতে থাকে।

বিরক্তি, অকারণ ভয় ইত্যাদি দেখা দিলে বুঝতে হবে উদ্বেগের সমস্যায় ভুগছেন। এটা মানসিক ও শারীরিক অবস্থার ওপর বাজে প্রভাব ফেলে।

মানসিক স্বাস্থ্যবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদন অবলম্বনে এরকম মানসিক উদ্বেগ চিহ্নিত করার কয়েকটি উপায় সম্পর্কে জানানো হল।

আবেগকে প্রশ্রয় দেওয়া: অনেকেই নিজের উদ্বেগ বা মানসিক চাপ সম্পর্কে আবগত থাকেন না। যদি ছোট খাট কোনো বিষয় আপনার আবেগকে আক্রান্ত করে তাহলে বুঝতে হবে এটা উদ্বেগের একটা লক্ষণ। উদ্বেগের কারণে যে কোনো ছোটখাট বিষয় আপনার কাছে অনেক বড় হয়ে উঠতে পারে। সঙ্গীর সঙ্গে ছোট খাট কথা কাটাকাটি বা রাগারাগির কারণে আপনার অতিরিক্ত প্রতিক্রিয়া প্রকাশ বা কান্না পাওয়া ইত্যাদি দেখা দিতে পারে। এর মানে হল, সম্পর্কে কোনো বিষয় হয়ত আপনাকে বিব্রত করছে বা কোনো বিষয় নিয়ে আপনি বেশ আশঙ্কায় ভুগছেন।

মত প্রকাশ নিয়ে ভীতি: উদ্বেগের কারণে দ্বিধার সৃষ্টি হয় এবং নিজের কোনো মতামত বা সঙ্কটের কথা সঙ্গীর সঙ্গে মন খুলে বলার ক্ষেত্রেও আশঙ্কা সৃষ্টি হতে পারে। এত কিছু চিন্তা না করে নিজের মনের কথা খুলে বলুন যা হওয়ার হোক, এতে দুজনের মাঝে বোঝাপড়া ভালো হবে। একে অপরের অনুভূতি বুঝতে পারবে। নিজের মতামত ও অনুভূতি শান্তিপূর্ণভাবে প্রকাশ করুন।

আবেগ চেপে রেখে কখনও উদ্বেগের সৃষ্টি হতে দেওয়া ঠিক নয়। এটা নানান শারীরিক ও মানসিক সমস্যার সৃষ্টি করতে পারে।

সবসময় সম্পর্ক নিয়ে দুশ্চিন্তা: যে কোনো কিছুই বাড়াবাড়ি ক্ষতিকর। অতিরিক্ত চিন্তা করাও এর ব্যতিক্রম নয়। সঙ্গী ও সম্পর্কে নিয়ে চিন্তা করা খারাপ কিছু নয়। কিন্তু এর মাত্রাতিরিক্ততা ক্ষতিকারক। যদি নিজেও বুঝতে পারেন যে, খুব বেশি চিন্তা করছেন তাহলে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে প্রতিদিন কমপক্ষে ১৫ মিনিট ধ্যান বা শ্বাসের ব্যায়াম করুন। এটা নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে, দুশ্চিন্তা, অতিচিন্তা এবং উদ্বেগ কমাতে সহায়তা করবে।

আরও পড়ুন

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক