কফির ব্যবহার

শুধু পানীয় হিসেবেই নয়, রূপচর্চা ও চুলে রং করা থেকে শুরু করে হাতের দুর্গন্ধ দূর করতেও ব্যবহার করা যায় কফি।

লাইফস্টাইল ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 27 Oct 2015, 08:34 AM
Updated : 27 Oct 2015, 08:34 AM

রূপচর্চাবিষয়ক একটি ওয়েবসাইটে কফির এমনই কিছু উপকারিতার বিষয় উল্লেখ করা হয়।

স্ক্রাব তৈরিতে কফি

ত্বকের মৃত কোষ দূর করতে এক্সফলিয়েটিং স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করা যায়।  শুষ্ক এবং প্রাণহীন ত্বকে জেল্লা ফেরাতেও পারে।

খানিকটা নারিকেল তেল, কয়েক ফোঁটা ভ্যানিলা এসেন্স এবং পরিমাণ মতো কফি মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরি করে তা মুখের ত্বক, শরীর, পা এবং হাত স্ক্রাবিং করতে ব্যবহার করা যাবে।

চোখের ফোলাভাব কমাতে কফি

শুধু মস্তিষ্কই নয়, ত্বকও সজিব করতে পারে কফি। সকালে কফি বানানোর পর নিচে যতটুকু কফির গুঁড়া পড়ে থাকে সেটা সংগ্রহ করুণ। তারপর ঠাণ্ডা করে চোখের নিচের অংশে দিয়ে ২০ মিনিট অপেক্ষা করতে হবে। এতে ফোলাভাব কমে আসবে।

পায়ের স্ক্রাব

পায়ের ত্বক সাধারণত শুষ্ক হয়। তাই বিশেষ যত্নে প্রয়োজন। গুঁড়া করা কফির সঙ্গে একটি পাকা কলা চটকে স্ক্রাবার তৈরি করে ব্যবহার করা যায়

চুল রং ধরে রাখতে

চুলে গাঢ় বাদামি এবং কালো রং করা হলে তা দীর্ঘদিন ধরে রাখতে সাহায্য করবে কফি।

দুই কাপ গাঢ় কফি তৈরি করে নিতে হবে। এই কফি ঠাণ্ডা করে পুরো চুল ভিজিয়ে ‘শাওয়ার ক্যাপ’ বা তোয়ালে দিয়ে চুল পেঁচিয়ে রাখতে হবে।  এক ঘণ্টা পর পরিষ্কার পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে।

হাতের গন্ধ দূর করতে

রান্নার পর হাতে অনেক সময় মাছ বা মসলার গন্ধ থেকে যায়, যা বেশ অস্বস্তিকর। এই গন্ধ দূর করতে প্রথমে ভালোভাবে হাত সাবান দিয়ে ধুয়ে  খানিকটা কফির গুঁড়া হাতে নিয়ে ঘষতে হবে। তারপর হাত ভিজিয়ে স্ক্রাব করে ধুয়ে ফেলতে হবে। কফি প্রাকৃতিক ডিওডোরেন্ট হিসেবে কাজ করে যা দুর্গন্ধ দূর করতে কার্যকর।

বয়স ধরে রাখতে কফি

ত্বকের বলিরেখা দূর করতে বেশ উপকারী কফি। খানিকটা কফি নিন। এর অর্ধেক পরিমাণ পানি মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন। সঙ্গে কয়েক ফোঁটা টি ট্রি এসেনশিয়াল তেল মিশিয়ে হাত ঘুরিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করতে হবে। এরপর পরিষ্কার পানি দিয়ে ত্বক ধুয়ে ফেলতে হবে।

চুল পরিষ্কার করতে কফি

চুল স্টাইল করতে বিভিন্ন ধরনের প্রসাধনী ব্যবহার করা হয়। যা ভালোভাবে পরিষ্কার না করলে চুলের ক্ষতি হয়। মিহিগুঁড়া করা কফি চুলে কিছুক্ষণ ঘষে শ্যাম্পু করতে হবে। এতে চুল পরিষ্কার হয়ে যাবে। তবে কারও চুলে হালকা রং করা থাকলে কফি এড়িয়ে চলতে হবে। কারণ কফি চুলের রং গাঢ় করে ফেলতে পারে।

ত্বকে জেল্লা ফেরাতে কফি

সকালে অনেকের ত্বক নিষ্প্রাণ দেখায়। সকালে শরীরকে যেমন তাজা করে কফি তেমনি ত্বকের জন্যও উপকারী।

কফি তৈরি করে তা বরফ করে নিতে হবে। সকালে ওই বরফ কফি ত্বকে ঘষতে হবে। চোখের চারপাশের ত্বকে হালকা হাতে কফি কিউব ঘষতে হবে। এতে ত্বকে রক্ত চলাচল বৃদ্ধি পেয়ে দেখতে উজ্জ্বল ও ঝরঝরে লাগবে।

ফেইস মাস্ক তৈরিতে কফি

গুঁড়া করা দুই চামচ কফির সঙ্গে দুই চামচ কোকো পাউডার, তিন টেবিল-চামচ টক দই এবং এক টেবিল-চামচ মধু ভালোভাবে মিশিয়ে নিতে হবে। তারপর ত্বকে লাগিয়ে ১৫ মিনিট অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে।

ছবি: রয়টার্স।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক