খবর > কিডজ > দাদাইয়ের গল্প

  • ভোর রাতে পরি আসে

    ভোর রাতে পরি আসে হঠাৎ করে সৌরভের ঘুম ভেঙে যায় খুব ভোরে। তখনো শেষ রাতের তারাটি আকাশে আলো ছড়াচ্ছিল। চাঁদের নিয়ন আলোয় আবছা দেখা যাচ্ছিল ঘরের ভেতর।

  • প্রাচীনবাড়ির রহস্য

    প্রাচীনবাড়ির রহস্য রাহুলের মায়ের বকবকানি অসহ্য পর্যায়ে এসে ঠেকেছে। সেই কখন থেকে যে বাক্যব্যয় শুরু করেছেন তা সাশ্রয়ের কোনো লক্ষণই দেখা যাচ্ছে না।

  • রম্যগল্প: রসচোর

    রম্যগল্প: রসচোর এই যাবি?

  • নতুন বছরে মামার বাড়িতে

    নতুন বছরে মামার বাড়িতে বার্ষিক পরীক্ষা শেষ। মামা বাড়ি যাওয়ার কথা শুনে খুব খুশি হয় আরিক। মামা বাড়ির কথা ভাবতেই তার ঘুম আসে না। সারাক্ষণ মনের মধ্যে মামা বাড়ির স্মৃতিগুলো ভাসতে থাকে।

  • নববর্ষের হাসি

    নববর্ষের হাসি বাবার সীমিত আয়ের কথা শাহান জানে। তাই সে যখন-তখন এটা-সেটা আবদার করে না। কোন কিছু পাওয়ার জন্য গো ধরে না।

  • ছবি আঁকার পাতা থেকে উড়ে গেলো প্রজাপতি

    ছবি আঁকার পাতা থেকে উড়ে গেলো প্রজাপতি চার বছরের মৌমি নার্সারিতে পড়ে। রাইমস পারে, কাউন্টিং পারে, ছবিও আঁকতে পারে।

  • দুই বেড়াল বোনের আত্মকাহিনী, পর্ব ২

    দুই বেড়াল বোনের আত্মকাহিনী, পর্ব ২ পরদিন সকালে এ নিয়েতো বাসায় মহা হুলুস্থুল লেগে গেলো, 'বেড়াল ভাগাও' আলোচনাটা শুরু হলো। কিন্তু কোনো অ্যাকশন নেয়া হলো না।

  • রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া কুকুরছানা

    রাস্তায় কুড়িয়ে পাওয়া কুকুরছানা একটি কুকুর ছানা দৌড়ে এসে উঠল রোহিতের কোলে। এমনভাবে দৌড়ে এলো যেন রোহিতই তার আসল মালিক।

  • রাজাকার ও মুক্তিযোদ্ধার পার্থক্য

    রাজাকার ও মুক্তিযোদ্ধার পার্থক্য বাবার কাঁধে বসে আছে তৃনা। আজ তার বাবা তাকে সারা মাঠ ঘুরে ঘুরে সবকিছু দেখাচ্ছে। তাই তৃনা খুব খুশি।

  • বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে আমার প্রথম সাক্ষাৎ

    বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে আমার প্রথম সাক্ষাৎ প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাঁর কার্যালয়ে বসে কচি-কাঁচার মেলার খুদে শিল্পীদের আঁকা মুক্তিযুদ্ধের ছবি দেখছেন উচ্ছ্বসিত ভঙ্গিতে। ছবির ডানে বঙ্গবন্ধুর কাঁধ ঘেঁষে দাঁড়ানো বালকটির নাম লুৎফর রহমান রিটন। ছবিটি ১৯৭২ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি ছাপা হয়েছিলো দেশের সবক'টি বাংলা ও ইংরেজি দৈনিকের প্রথম অথবা শেষের পাতায়।

  • দুই বেড়াল বোনের আত্মকাহিনী, পর্ব ১

    দুই বেড়াল বোনের আত্মকাহিনী, পর্ব ১ আমাদের জন্ম হয়েছিল আরও ৩ ভাই-বোনের সঙ্গে একই দিনে ঢাকার আশুলিয়াতে, কোনো এক বাড়ির সিঁড়িঘরে বা চিলেকোঠায়। আমাদের তা মনে নেই এবং অতো ছোট বয়সে যখন আমাদের চোখই ফোটেনি, তখনকার কথা আমাদের মনে থাকার কথাও না।

  • নাচের ইঁদুর

    নাচের ইঁদুর বনে ছিল এক নাচের ইঁদুর। সে আপন মনে নাচছিল।

  • নতুন ধানে নতুন স্বপ্ন

    নতুন ধানে নতুন স্বপ্ন পূর্ব-দক্ষিণ আকাশের মিষ্টি আলোতে হলদে-সোনালি ধানের শীষগুলো সোনা রূপ ধারণ করেছে। এক টুকরো রোদের ঝলক মাঠে ধান কাটা মানুষগুলোকে ভালবাসার পরশ বুলিয়ে দিচ্ছে।

  • যাদুকরের দেশে

    যাদুকরের দেশে এক দেশে এক যাদুকর ছিল। যাদুকরই দেশের রাজা।

  • বিজয়ের গল্প: দাদুর হাসি

    বিজয়ের গল্প: দাদুর হাসি বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের শোচনীয় পরাজয়ে মন ভালো নেই কাউসারের। এত্তটুকুন ছেলে তার কী দেশপ্রেম। ভাবতে অবাকই লাগে। আর এই দেশপ্রেম আছে বলেই তো আমরা আজ স্বাধীন।

  • বিজয়ের গল্প: মুক্তিচাচা

    বিজয়ের গল্প: মুক্তিচাচা ঊনিশশো একাত্তর সাল। সারাদেশে চলছে যুদ্ধ। তখন একদল মুক্তিযোদ্ধা এসে আশ্রয় নেয় আমাদের গ্রামে।

  • তুতুন আর বেড়ালের বাচ্চা

    তুতুন আর বেড়ালের বাচ্চা তুতুনরা তিন মাস হলো যুক্তরাষ্ট্রে এসেছে। দেশে থাকতে মামা যখন যুক্তরাষ্ট্র থেকে ভিডিও কল দিত বা কার্টুন সিনেমায় দেখে যুক্তরাষ্ট্রে আসতে খুব ইচ্ছা করত তার। আসার পরও প্রথম প্রথম খুব ভালো লাগছিল, কিন্তু সমস্যা হলো স্কুল শুরুর পর।

  • পাতার চশমা

    পাতার চশমা ইমা ছাদের উপর দাঁড়িয়ে শহর দেখছে। নিচে দুই-একটা রিকশা যাচ্ছে, দূরে বড় রাস্তার বড় বড় গাড়ি, পাশের রাস্তাতে কতগুলো দোকান, দূর আকাশে চিল আর কাকেদের উড়াউড়ি সবই সে দেখছে।

  • শেয়াল যেভাবে নেতা হলো

    শেয়াল যেভাবে নেতা হলো তিনি অনেকটা পথ হেঁটে এলেন। গাছের ছায়ায় বিশ্রাম নিলেন, তারপর ঘুমিয়ে পড়লেন।

  • পারুলের পাতিহাঁস

    পারুলের পাতিহাঁস একটি পাতিহাঁসের গল্প এটি। সন্ধ্যার কালো পানিতে ভেসে বেড়াতো সেই হাঁস। সাদা-কালো ডোরাকাটা পালকে মোড়া ছিল হাঁসটি।

  • হোমওয়ার্ক করতে আরাফের যে কারণে ভালো লাগে না

    হোমওয়ার্ক করতে আরাফের যে কারণে ভালো লাগে না আমাদের লক্ষ্মীবাচ্চা আরাফ হঠাৎ করে বিগড়ে গেছে। বিগড়ে গেছে মানে সে ঘোষণা দিয়েছে সে হোমওয়ার্ক করবে না। তার হোমওয়ার্ক করতে ভালো লাগে না।

  • রিনির রঙিন ছাতা

    রিনির রঙিন ছাতা আজ মেঘলা দিন। বাইরে বৃষ্টি হচ্ছে। রিনি জানালার ধারে মন খারাপ করে বসে আছে। বৃষ্টির কারণে সে স্কুল যেতে পারে নি। সে গুণছে ২২,২৩,২৪...

  • মুক্তিযোদ্ধার মা

    মুক্তিযোদ্ধার মা এইখানে শুয়ে শুয়ে আকাশ দেখা যায় অনেক দূর। কালাম একমনে তাকিয়ে থাকে আকাশের দিকে। আকাশ যে কত রঙের খেলা দেখায়। কখনো নীল, কখনো সাদা, কখনো ছাইছাই।

  • হেমাপ্যাথি, এ্যালাপ্যাথি

    হেমাপ্যাথি, এ্যালাপ্যাথি তিরিশ পঁয়ত্রিশ বছর আগে আমাদের গাঁয়ে দু’জন ডাক্তার ছিলেন। একজন হেমাপ্যাথি আর একজন এ্যালাপ্যাথি।

  • শহর থেকে গ্রামে

    শহর থেকে গ্রামে ‘আসতে পারি স্যার।’ কথাটা শুনেই সবার চোখ পড়ল ক্লাসরুমের দরজার দিকে। চটপটে ধরনের একটি মেয়ে দাঁড়িয়ে আছে অনুমতির অপেক্ষায়।