রোদ বৃষ্টির খেলা

রহীম শাহ

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 23 July 2013, 10:05 AM
Updated : 23 July 2013, 10:07 AM

রোদ ভেসে যায়, মাঠের পাড়ে,
তাইছুটেছি মাঠে,
সোনারচাদর বিছিয়ে যেন
রোদরামাঠে হাঁটে।
রোদহেঁটে যায় এদিক-সেদিক,
বেশতো স্বাধীন তারা,
রোদ-ঝলমলদিন দুপুরে
ঘুমিয়েপড়ে পাড়া।

সূর্যযখন পশ্চিমে যায়,
রোদহেঁটে যায় পুবে
একটিমেঘের পাহাড় পেয়ে
সূর্যগেল ডুবে।
রোদপালাল এদিক-সেদিক,
ডানপাশে বাম পাশে
আকাশভরা মেঘ দেখে রোদ
গড়িয়েপড়ে ঘাসে।

দাঁড়িয়েআছি মাঠের উপর
মেঘেরভাঙা শুরু
বজ্রপাতেরঝলকানিতে
বুকটাদুরু-দুরু।
বৃষ্টিনেমে ভিজিয়ে দিল
মিষ্টিবিকেলটাকে
আমারদুচোখ সাঁতার কাটে
মেঘেরফাঁকে-ফাঁকে।

আকাশজুড়ে কান্না বুঝি
বৃষ্টিঝুপুর-ঝুপুর
বনহিজলেরপাতায় পাতায়
বাজছেযেন নূপুর।
ঝুপকরে সাঁঝ নামল বুঝি
কাকেরপিঠের মতো
ওইদিকে মা খোকনকে তার
ডাকছেঅবিরত।

মাডেকেছেন-- ফিরব বাড়ি;
হঠাৎকরি খেয়াল,
মাঠও বাড়ির মধ্যিখানে
বৃষ্টিহল দেয়াল।
মায়েরকাছে ছুটে যাব
বাড়িয়েদিলাম হাত
নীলআকাশের কান্না যেন
থামলঅকস্মাৎ।

মেঘেরপাহাড়ে দুফাঁক করে
সূর্যদিল উঁকি
এখনঠিকই নিতে হবে
বাড়িফেরার ঝুঁকি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক