বিশ্ব শব্দ করে পড়া দিবসে সনদ পেলো শিক্ষার্থীরা

ওয়ার্ল্ড রিড অ্যালাউড ডে বা বিশ্ব শব্দ করে পড়া দিবস উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনলাইন কুইজ প্রতিযোগিতায় সনদ পেয়েছেন বিজয়ী শিক্ষার্থীরা।

কিডস ডেস্কবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 2 Feb 2021, 05:31 AM
Updated : 2 Feb 2021, 05:31 AM

সোমবার ঢাকার জাতীয় প্রেস ক্লাবে শব্দ করে পড়ার বিভিন্ন উপকারিতা নিয়ে আয়োজিত সেমিনার থেকে শিক্ষার্থীদের এ সনদ দেওয়া হয় বলে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায় আয়োজক প্রতিষ্ঠান ‘রিড অ্যালাউড বাংলাদেশ’।

‘শব্দ করে পড়ি, নিজেকে আবিষ্কার করি’ স্লোগানে এ সেমিনারে প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

আয়োজক সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা রূপক সিংহের সভাপতিত্বে এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইলিয়াস খান, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. ওমর ফারুক।

অধ্যাপক আরেফিন সিদ্দিক বলেন, “মাদ্রাসা-মসজিদে শব্দ করে পড়ানোর ঐতিহ্য ছিল, এখনও আছে। আগে গ্রামের বাড়িগুলো থেকে শব্দ করে পড়ার আভাস পাওয়া যেত, এখন পাওয়া যায় না। সময়ের সঙ্গে অনেককিছুই হারিয়ে যায়। কিন্তু কিছু কিছু বিষয় হারিয়ে গেলে ঐতিহ্যও হারিয়ে যায়।”

তিনি আরও বলেন, “ফেব্রুয়ারি মাসে আমরা এ দিবস উদযাপন করছি। কিন্তু আমি বলবো, আমরা কি সচেতনভাবে বাংলা শেখার চেষ্টা করি বা বাংলা উচ্চারণ শিখি, যতটা সচেতনভাবে ইংরেজি ভাষা শেখার চেষ্টা করি? আর যে কোনো ভাষার উচ্চারণ শিখতে হলে শব্দ করে পড়ার কোনো বিকল্প নেই। বিশেষ করে আমরা যারা বাঙালি, তাদেরকে শুদ্ধ বাংলা উচ্চারণ শিখতে শব্দ করে পড়তে হবে। তা না হলে তো বাংলা ভাষার শুদ্ধ উচ্চারণ হারিয়ে যাবে।”

ইলিয়াস খান বলেন, “আসলে আমরা কখনো চিন্তাই করিনি শব্দ করে পড়া বিষয়টি কতটা জরুরি। এ প্রসঙ্গে আমি একটা গল্প বলি- আমার এক কাজিন ইংরেজিতে পড়ছিল ইসল্যান্ড ইসল্যান্ড! তো আমি বললাম, দেখিতো তুই কি ইসল্যান্ড ইসল্যান্ড পড়ছিস। তখন সে আমাকে বলল এই যে ইসল্যান্ড। আসলে তা হবে আইল্যান্ড। এতেই বোঝা যাচ্ছে শব্দ করে পড়া কতটা জরুরি।”

সেমিনারে আরও বক্তব্য দেন মেহেদি হাসান ও শরিফুল ইসলাম দুলু।

কিডস পাতায় বড়দের সঙ্গে শিশু-কিশোররাও লিখতে পারো। নিজের লেখা ছড়া-কবিতা, ছোটগল্প, ভ্রমণকাহিনী, মজার অভিজ্ঞতা, আঁকা ছবি, সম্প্রতি পড়া কোনো বই, বিজ্ঞান, চলচ্চিত্র, খেলাধুলা ও নিজ স্কুল-কলেজের সাংস্কৃতিক খবর যতো ইচ্ছে পাঠাও। ঠিকানা kidz@bdnews24.com। সঙ্গে নিজের নাম-ঠিকানা ও ছবি দিতে ভুলো না!