মামলা পরিচালনায় ‘ইচ্ছুক’ নন হ্যাপীও

ক্রিকেটার রুবেল হোসেনের বিরুদ্ধে চিত্রনায়িকা নাজনীন আক্তার হ্যাপীর দায়ের করা মামলাটি তার আইনজীবী কুমার দেবুল দে আর পরিচালনা করবেন না বলে সিদ্ধান্ত নেওয়ায় বিস্ময় প্রকাশ করেছেন হ্যাপী। তবে স্পষ্টভাবেই জানালেন তিনি নিজেও মামলাটি পরিচালনা করতে ‘ইচ্ছুক’ নন।

গ্লিটজ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 10 March 2015, 09:32 AM
Updated : 10 March 2015, 09:32 AM

ইংল্যান্ডেরবিপক্ষে রুবেলের দুর্দান্ত বোলিং পারফরম্যান্সের পর আইনজীবী কুমার দেবুল দে সামাজিকযোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে স্ট্যাটাস দেন, “এখন থেকে আমি আর হ্যাপীর আইনজীবী নই। শুভেচ্ছা বাংলাদেশ ক্রিকেট দল!”

তিনি আরও লিখেছেন “বাংলাদেশের ক্রিকেট সমর্থকদের জ্ঞাতার্থে জানাচ্ছি যে, একজন পেশাজীবী হিসাবে হ্যাপীর পক্ষে মামলা পরিচালনার দায়িত্ব নিয়েছিলাম। বাংলাদেশের এহেন সফলতায় রুবেলের বিপক্ষে মামলায় লড়ার আমার আর ইচ্ছে নেই এবং তাই হ্যাপীর আইনজীবী হিসাবে এখুনি নিজের নাম প্রত্যাহার করে নিলাম।”

দেবুলের এই সিদ্ধান্ত বিষয়ে হ্যাপী গ্লিটজকে বলেন, “দুইসপ্তাহ আগেই আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি রুবেলের বিরুদ্ধে আমি মামলাটি আর পরিচালনা করতেচাই না। আমার দায়ের করা মামলায় রুবেল যখন জামিন পেয়ে গেলো, তখন আমার আইনজীবীব্যারিস্টার পারভেজ আহমেদ ও কুমার দেবুলের তো কোনো কাজ ছিল না। শুধু নামেই তারা এইমামলার আইনজীবী ছিল। আর আমি যখন বলেই দিয়েছি মামলাটি আর চালাবো না, দেবুলের এমনবক্তব্যের তো কোনো মানে নেই।”

ক্রিকেটার রুবেলের বিরুদ্ধে ‘প্রতারণা’র অভিযোগ আনা হ্যাপীবলেছিলেন রুবেল রাজী হলেও তাকে বিয়ে করবেন না তিনি। এখন বলছেন, “রুবেল যদি সত্যিআমার জীবনে আবার ফিরে আসে, তবে তাকে বিয়ে করবো। আমি তার জন্য সারা জীবন অপেক্ষাকরতে রাজি। আমি যদি বিয়ে করি তবে শুধু রুবেলকেই বিয়ে করবো, অন্য কাউকে নয়।”

তবে কেন বলেছিলেন ‘বিয়ে করবো না রুবেলকে’- গ্লিটজের এমনপ্রশ্নে হ্যাপীর তড়িৎ জবাব, “আমি রাগের মাথায় কি না কি বলেছি আল্লাহ জানেন। কিন্তুসত্যি হলো, আমি রুবেলকে খুব ভালোবাসি। ওর জন্য মায়া লাগে আমার। সবকিছুর পরে আমিতাকে ভুলতে পারি না।”

এদিকে হ্যাপীর ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় সিনেমা ‘রিয়েল ম্যান’রয়েছে মুক্তির অপেক্ষায়। সিনেমাতে তিনিই থাকছেন প্রধান নায়িকা হিসেবে।

রুবেলের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর হ্যাপী কোনো সিনেমারইশুটিং করেননি। বেশ কটি সিনেমার প্রস্তাব পেলেও পরে আর কথা এগোয়নি।

হ্যাপী বলছেন, “আমার সিনেমার ক্যারিয়ার সত্যিই অনিশ্চিত।সিনেমাতে অভিনয় করবো কি না তা জানি না। কোনো নতুন সিনেমাও নেই হাতে। জানি না কিআছে কপালে। সবকিছু ভাগ্যের উপর ছেড়ে দিয়েছি।”

২০১৩ সালে ‘কিছু আশা কিছু ভালোবাসা’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রেক্যারিয়ার শুরু করা হ্যাপী ২০১৪ সালের শেষে এসে দাবি করেন, ক্রিকেটার রুবেলেরসঙ্গে তার ‘প্রেমের সম্পর্ক’ ছিল। তার বিরুদ্ধে মিরপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতনআইনে মামলা ঠোকেন হ্যাপী। সেই মামলায় কারাগারেও যেতে হয়েছিলো রুবেলকে। এমনকিরুবেলের বিশ্বকাপে খেলা ঠেকাতে উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছিলেন হ্যাপী।  কিন্তু তাতে সফল হননি।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক