বিখ্যাত হতে চেয়েছিলাম: অঞ্জন দত্ত

অঞ্জন দত্ত চেয়েছিলেন 'অন্তত বিখ্যাত কোনো একজন’ হতে। বিখ্যাত তিনি হয়েছেন ঠিকই। তবে লোকে প্রথমত তাকে চেনে একজন সংগীতশিল্পী হিসেবে। কিন্তু তার কাছে সংগীতের স্থান চলচ্চিত্রের পরে।

চিন্তামন তুষারচিন্তামন তুষারবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 30 July 2014, 05:38 PM
Updated : 30 July 2014, 05:38 PM

নব্বইয়ের দশকে ‘বেলা বোস’, ‘রঞ্জনা’, ‘আমি বৃষ্টি দেখেছি’ - গানগুলোর সঙ্গে সঙ্গেই বাংলাদেশ ও পশ্চিমবঙ্গে দারুণ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেন অঞ্জন দত্ত। যদিও সিনেমায় অভিনয় করছেন ১৯৮১ সাল থেকে। ১৯৯৮ সাল থেকে সিনেমা নির্মাণও শুরু করেন।

বললেন, গান গাওয়ায় সিনেমার দর্শক বেড়েছে তার।

“একজন সফল অভিনেতার পরিচালিত সিনেমা কিছু লোক দেখতে নিশ্চয় যাবে। আমার গান যারা শোনে তারা সিনেমা দেখতে আসে। সেই সঙ্গে অন্য কারো গান পছন্দ করে, আমারটা করে না, তারাও দেখতে আসে।”

“এটাও ঠিক আমার সিনেমাও আমার গানকে সাহায্য করেছে। শুধু দর্শক পাওয়ার জন্য না। নিজের কাজও নানাভাবে অনেক বেশি পরিণত করেছে।”

আরও বললেন, তার প্রত্যেকটা গানই একেকটা চিত্রনাট্যের মতো।

“ধরেন আমি গান লিখছি, প্রথমে মনে আসে লোকটার বয়স কতো। লোকটা কিভাবে বড়ো হয়েছে। লোকটার বড়ি দেখতে কেমন। কতো টাকা মাইনে পায় সে। গানে নেই কিন্তু একটা চিত্রনাট্য লিখতে যেমন দরকার হয় এসব। তেমনি এসব বিষয় আছে বলেই গানগুলো জ্যান্ত হয়ে গেছে।”

তিনি আরও বলেন, “এসব খানিকটা সহায়তা করে। আমার মনে হয় রংয়ের জ্ঞান না থাকলে ভালো সংগীতশিল্পী হওয়া যায় না।”

“আমি কী সব সময় নীলকে (অঞ্জন দত্তের ছেলে) বলছি যে, নীল আমাকে একটা খুব টেনশন করে দাওতো এখানে? এটা হয় না৤ মিউজিক মানে কী, টেনশন মানে কী। এরকম হয় না। আমাকে কিছু রংয়ের কথা বলতে হয়। পুরো জিনিসটা একটা লাল অথবা কালো, বা হালকা নীল আলো- এরকমভাবে বললে ও কিছু একটা দেবে আমাকে।"

ছবি: নয়ন কুমার/ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

ছবি: নয়ন কুমার/ বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

দেশটিভির আমন্ত্রিত শিল্পী হিসেবে ঈদের দিন রাতে ঢাকা আসেন অঞ্জন দত্ত। ঢাকা ক্লাবের গেস্ট হাউজে এ উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলন আয়োজিত হয়। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন অঞ্জনের সংগীত পরিচালক ছেলে নীল দত্ত ও ৩ দশকের বন্ধু ও সঙ্গী গিটারিস্ট অমিত দত্ত এবং দেশ টিভি অনুষ্ঠান প্রধান রবিউল করিম।

ঈদের পরদিন দেশ টিভির সরাসরি গানের অনুষ্ঠান ‘কলের গান’-এ সংগীত পরিবেশন করে পরদিনই ঢাকা ছাড়বেন ‘দত্তত্রয়ী’ হিসেবে বেশি পরিচিত অঞ্জন, নীল ও অমিত।

 
তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক