পরীমনির বিরুদ্ধে নাসিরের মামলার তদন্তে সিআইডি

চিত্রনায়িকা পরীমনির মামলায় বিচারের মুখোমুখি ব্যবসায়ী নাসিরউদ্দিন মাহমুদ যে মামলা করেছেন, তা সিআইডিকে তদন্ত করতে বলেছে আদালত।

আদালত প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 18 July 2022, 12:36 AM
Updated : 18 July 2022, 12:41 AM

সোমবার ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম রাজিব হাসান এ আদেশ দেন বলে ওই আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর আনোয়ারুল কবীর বাবুল জানিয়েছেন। সিআইডিকে অভিযোগ তদন্ত করে ৬ অক্টোবরের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

গত ৬ জুলাই আদালতে মামলার আরজি নিয়ে গিয়েছিলেন নাসির। সেদিন বিচারক তার জবানবন্দি নিয়েছিলেন।

নাসিরের এই মামলায় পরীমনির বিরুদ্ধে মারধর, হত্যাচেষ্টা, ভাঙচুর ও ভয়ভীতি দেখানোর অভিযোগ আনা হয়েছে। এতে আসামি করা হয়েছে পরীমনির দুই সহকারী ফাতেমা তুজ জান্নাত বনি ও জুনায়েদ বোগদাদী জিমিকে।

২০২১ সালের ৯ জুন রাতে বিরুলিয়ায় তুরাগ তীরে ঢাকা বোট ক্লাবে গিয়েছিলেন হালের জনপ্রিয় চিত্রতারকা পরীমনি ও তার সঙ্গীরা। তা ধরেই এই ঘটনার সূত্রপাত। 

সেদিন সেখানে ধর্ষণচেষ্টার শিকার হয়েছিলেন বলে পরীমনি অভিযোগ তুললে তা নিয়ে দেশজুড়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়।

পরে পরীমনি মামলা করলে ব্যবসায়ী নাসিরকে গ্রেপ্তার করা হয়। সেই মামলায় গত মে মাসে নাসিরসহ তিনজনের বিচারও শুরু হয়েছে ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালে।

ওই মামলায় জামিনে মুক্ত থাকা নাসির ‍তার দুই মাসের মধ্যে পাল্টা মামলা করলেন। নাসির বোট ক্লাবের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য ছিলেন। তিনি উত্তরা ক্লাবেরও সাবেক সভাপতি।

মামলার আরজিতে বলা হয়, পরীমনি ও তার সহযোগীরা সেদিন ক্লাবে ঢুকে মদ পান করে অর্থ পরিশোধ না করেই যেতে চাচ্ছিলেন। তিনি ওই রাতে যখন বোট ক্লাব ছাড়ছিলেন, তখন পরীমনি ‘উদ্দেশ্যমূলকভাবে’ তাকে ডেকে নেন এবং একটি ব্লু লেবেল অ্যালকোহলের বোতল বিনামূল্যে পার্সেল দেওয়ার জন্য চাপ দেন। তিনি এতে রাজি না হওয়ায় পরীমনি তাকে গালমন্দ করেন। বাদানুবাদের একপর্যায়ে পরীমনি তার দিকে একটি সারভিং গ্লাস ছুড়ে মারেন এবং হাতে থাকা মোবাইল ফোনটিও ছুড়ে মারেন। এতে তিনি মাথায় এবং বুকে আঘাত পান।

র‌্যাবের হাতে গ্রেপ্তার পরীমনি গত বছরে ১ সেপ্টেম্বর কারামুক্ত হন। ফাইল ছবি

নাসিরের দাবি, সেই ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার জন্য পরীমনি সাভার থানায় ধর্ষণচেষ্টা ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা করেন।

সাভার থানায় পরীমনির করা গত বছরের মামলায় অভিযোগ ছিল, পূর্ব পরিচিত তুহিন সিদ্দিকী অমি গত ৮ জুন রাতে তাকে ‘পরিকল্পিতভাবে’ বোট ক্লাবে নিয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে নাসির তাকে ‘ধর্ষণের চেষ্টা’ করেন।

ওই মামলায় নাসির এবং বোট ক্লাবের সদস্য অমি ও শহিদুল আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দেয় সিআইডি। তার উপর ভিত্তি করে আদালতে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে বিচার শুরু হয়।

উত্তরা ক্লাবের সাবেক সভাপতি নাসিরকে পরীমনির মামলায় গ্রেপ্তারের পর তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে এবং মানবপাচার ও পাসপোর্ট আইনেও মামলা করে পুলিশ।

এদিকে সেই ঘটনার পর পরীমনিকে তার বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। তার বিরুদ্ধে মাদক আইনে মামলা হয়। সেই মামলায়ও তার বিচার চলছে।

নড়াইলের মেয়ে শামসুন্নাহার স্মৃতির ২০১৫ সালে ঢাকার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে পরীমনি নামে। এরপর দুই ডজন চলচ্চিত্রে নায়িকার চরিত্র রূপায়ন করেছেন তিনি।

গত বছরের ঝড় তোলা ঘটনার মধ্যে কিছু দিন কারাগারে থেকে বেরিয়ে আসার পর গত ১০ জানুয়ারি হঠাৎ করেই সন্তানসম্ভবা হওয়ার খবর দেন পরীমনি; তখন চিত্রনায়ক শরিফুল রাজের সঙ্গে বিয়ের কথা প্রকাশ্যে আনেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক