আয় সাড়ে তিন কোটি, হল বেড়েছে পনেরোটি

অমিতাভ রেজা চৌধুরী পরিচালিত ‘আয়নাবাজি’র পর দীপঙ্কর দীপন পরিচালিত ‘ঢাকা অ্যাটাক’ এগোচ্ছে বাণিজ্যিক সফলতার দিকে।

গ্লিটজ প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 Oct 2017, 01:05 PM
Updated : 14 Oct 2017, 01:18 PM

হলসংখ্যা বেড়েছে, বেড়েছে আয় ক্রমশ দর্শকও বাড়ছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ চলচ্চিত্রের। প্রথম সপ্তাহ পেরিয়ে এখনও হাউজফুল ছবিটি। প্রায় পাঁচ কোটি টাকা ব্যয়ের চলচ্চিত্রটি প্রথম সপ্তাহে আয় করেছে সাড়ে তিন কোটি টাকা। যদিও পুরো টাকা প্রযোজকের ভাগ্যে মিলছে না। এর অর্ধেকটাই পাবেন হল মালিকরা। তবু চলচ্চিত্রটির ব্যবসায়িক সাফল্যের ব্যাপারে আশাবাদের কথা শোনালেন চলচ্চিত্রটির পরিবেশক জাহিদ হাসান অভি।

অভি কথাচিত্রের সিইও অভি শনিবার গ্লিটজকে বলেন, “চলচ্চিত্রটির ক্যাশ বাজেট ছিলো সাড়ে তিন কোটি টাকা। আরও দেড় কোটি টাকার লজিস্টিক সাপোর্ট আমরা পেয়েছি বিভিন্ন জায়গা থেকে। গত সপ্তাহে আমাদের আয় হয়েছে সাড়ে তিন কোটি টাকা। এর মধ্যে অর্ধেক পাবেন হল মালিকরা।”

সারাদেশে ১২৩টি হলে মুক্তি পাওয়া ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এর হল সংখ্যা বেড়েছে আরও সাতটি। এর মধ্যে পুরনো আটটি হল বাদ গিয়ে নতুন যুক্ত হয়েছে ১৫টি হল। সর্বশেষ গতকাল শুক্রবারও সারাদেশে হাউজফুল গেছে সিনেমা হলগুলো।

অভির ভাষ্যে, “গতকালও সারাদেশে কোথাও একটি কোথাও দু’টি এমনকি ক্ষেত্রবিশেষে তিনটি শো’ই হাউজফুল গেছে। স্টার সিনেপ্লেক্সে ছয়টা শো হাউজফুল গেছে, বলাকায় তিনটি শো’ই হাউজফুল গেছে, শ্যামলীতে একটি শো হাউজফুল গেছে। আজ থেকে বসুন্ধরা স্টার সিনেপ্লেক্সে মোট তিনটি হলে আটটি শো চলছে।”

অভির দাবি, প্রথম সপ্তাহে ছবির প্রচার প্রচারণার জোরে দর্শক হলে এলেও এ সপ্তাহ থেকে মুখে মুখে ছড়িয়েছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’-এর সুনাম। এভাবে টানা তিন সপ্তাহ চললে পুঁজি ওঠার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেন তিনি।

দেশের গণ্ডি পেরিয়ে আগামী ২০ অক্টোবর থেকে কানাডা, আমেরিকা, দুবাই ও কাতারে মুক্তির মাধ্যমে প্রবাসী দর্শকদের কাছে যাচ্ছে ‘ঢাকা অ্যাটাক’। পরবর্তীতে বিশ্বের অন্যান্য দেশগুলোতেও চলচ্চিত্রটি মুক্তির পরিকল্পনা চলছে।     

গত ৬ অক্টোবর রাজধানীসহ সারাদেশের ১২৩টি হলে মুক্তি পায় পুলিশ-অ্যাকশনধর্মী চলচ্চিত্র ‘ঢাকা অ্যাটাক’। দীপঙ্কর দীপনের নির্মাণে চলচ্চিত্রটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন-আরেফিন শুভ, মাহী, এবিএম সুমন, নওশাবা, শতাব্দী ওয়াদুদ, হাসান ইমাম, আলমগীর, আফজাল হোসেন প্রমুখ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক