‘রংবাজ’ সিনেমার মহরতে শাকিব ও বুবলি

শুক্রবার রাতে রাজধানীর গুলশানের একটি অভিজাত রেস্তোঁরায় অনুষ্ঠিত হলো বহু আলোচিত ‘রংবাজ’ সিনেমার মহরত। সিনেমাটি নির্মাণ করছেন শামীম আহমেদ রনী।

তানজিল আহমেদ জনিবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 14 April 2017, 06:58 PM
Updated : 15 April 2017, 03:54 AM

সাম্প্রতিককালের আলোচিত সিনেমাটির মহরত অনুষ্ঠানে ডাক্তারের পরামর্শে হাসপাতাল থেকে এসে অংশগ্রহণ করেন ঢালিউডের সুপারস্টার শাকিব খান। যদিও অনুষ্ঠান স্থলে শাকিব খান পৌঁছানোর বেশ কিছুক্ষণ আগেই গণমাধ্যমের চোখ এড়িয়ে পৌঁছে যান বুবলি। এই জুটি ছাড়াও মহরত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিনেমার কলাকুশলী, প্রযোজক ও গণমাধ্যমকর্মীরা।

‘রংবাজ’ সিনেমার মাধ্যমে চতুর্থবারের মত পর্দায় জুটিবেঁধে অভিনয় করতে যাচ্ছেন ঢালিউডের আলোচিত শাকিব-বুবলি জুটি। সাম্প্রতিক সময়ের আলোচিত সিনেমা ‘রংবাজ’কে খুব বেশি প্রাধান্য দিচ্ছেন বলেই সিনেমা সংশ্লিষ্ট ও শাকিবের নিন্দুকেরা মনে করছেন। আসলেই কি তাই?

এমন প্রশ্নে গ্লিটজকে শাকিব খান বলেন, “আমি এর আগেও অনেক রাতদিন সিনেমার শুটিং শেষ করে ভোর বেলায় ছবির মহরতে এসেছি। এটা আমার কাছে নতুন কিছু না। আমার এমনও হয়েছে আমি ঈদের দিনও অনেক ছবির শুটিং করেছি। বিগত বছরগুলোতে লক্ষ্য করলে দেখা যাবে ঈদের দিন নামাজ শেষেও আমি দেশের বাইরে ছবির শুটিং করেছি। এটা প্রতিনিয়তই হচ্ছে। ভাগ্যক্রমে এই বছর পহেলা বৈশাখে আমি এখানে (বাংলাদেশে) কিন্তু গত বছর পহেলা বৈশাখে আমি ‘শিকারি’ সিনেমার শুটিংয়ে ছিলাম।”

তিনি আরো বলেন,“আমার জীবন থেকে অনেক কিছু আত্মত্যাগ করতে হয়েছে। সেটাকে আমি আত্মত্যাগ বলবো না, আমার কাজের স্বার্থেই আমাকে তা করতে হয়েছে। আমাদের চলচ্চিত্রের সঙ্গে যারা জড়িত আছে তাদের সবাইকে আত্মত্যাগ করতে হয়। যুগে যুগে যারা চলচ্চিত্রে নিয়মিত  প্রযোজক, পরিচালক ও শিল্পী ছিলেন, তারা সবাই সামাজিক জীবনে অনেক আত্মত্যাগ করেছেন। যাই হোক ছবি আজ থেকে শুরু হয়ে গিয়েছে আগামী ঈদ ‘রংবাজ’ময় হবে।”

অন্যদিকে সিনেমার নায়িকা নির্বাচনের মুহুর্ত থেকেই সিনেমাকে ঘিরে সকল আলোচনার কেন্দ্রে ছিলেন সিনেমার সম্ভাব্য নায়িকা শবনম বুবলি। সেক্ষেত্রে এই সিনেমাকে ঘিরে নিজের ভিতরে কোনো বাড়তি মানসিক চাপ অনুভব করছেন কি না জানতে চাইলে গ্লিটজকে বুবলির কৌশলী উত্তর,“ সিনেমাটি কেন আলোচিত হয়েছে তা সবাই ভালো করে জানেন। আমি কোন ধরণের মানসিক চাপ একদমই অনুভব করছি না। কারণ আমি তো প্রেফেশনাল আর্টিস্ট।”

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে চলতি মাস থেকেই শুরু হবে সিনেমার দৃশ্যধারণের কাজ। পাবনা জেলা থেকে শুরু হবে সিনেমার প্রথম লটের কাজ। এছাড়াও পরবর্তীতে ভারতের বিভিন্ন লোকেশনে সিনেমার দৃশ্যধারণের কাজ করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্মাতা।

যৌথ প্রযোজনায় নির্মিতব্য সিনেমাটি প্রযোজনা করছেন বাংলাদেশের মের্সাস রূপরঙ চলচ্চিত্র ও কলকাতার শ্রী ভেঙ্কটেশ ফিল্মস।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক