জাহাজের আয়ে কর দিতে হবে না ৮ বছর

সমুদ্রগামী জাহাজ শিল্প থেকে অর্জিত আয়কে ‘সেবা রপ্তানির’ মর্যাদা দেওয়ার পাশাপাশি এ আয়কে আট বছর করমুক্ত রাখার প্রস্তাব দিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

নিজস্ব প্রতিবেদকবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 9 June 2022, 01:09 PM
Updated : 9 June 2022, 01:52 PM

বৃহস্পতিবার বাজেট বক্তব্যে তিনি বাংলাদেশি পতাকাবাহী জাহাজের আয় বৈদেশিক মুদ্রায় ব্যাংকিং চ্যানেলের মাধ্যমে আনলে ২০৩০ সাল পর্যন্ত করমুক্ত রাখার প্রস্তাব করেন।

কোভিড পরবর্তী অর্থনীতি পুনরুদ্ধার শুরু হলে দেশে দেশে পণ্যের চাহিদা বাড়লে জাহাজের সংকট দেখা যায়। জাহাজ ভাড়াও বাড়ছে।

এমন প্রেক্ষাপটে সমুদ্রগামী বাংলাদেশি জাহাজের উদ্যোক্তাদের জন্য সুখবর দিলেন অর্থমন্ত্রী।

তিনি বলেন, “আধুনিক অর্থনীতির সাথে তাল মিলিয়ে পণ্যের পাশাপাশি সেবা রপ্তানিকে প্রাধান্য দিতে হবে। এ উদ্যোগের অংশ হিসেবে সেবা রপ্তানিকে রপ্তানি হিসেবে সংজ্ঞায়িত করার প্রস্তাব করছি।

“এ সকল প্রস্তাব গৃহীত হলে সেবা রপ্তানি খাতকে বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে একটি সম্ভাবনাময় শিল্প হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে।”

গত দুই বছর ধরে সারাবিশ্বে মূল্যস্ফীতির চলমান অস্থিরতাকে আরেক ধাপ বাড়িয়ে দিচ্ছে জাহাজ ভাড়া। এ পরিস্থিতিতে দেশীয় জাহাজ শিল্পে এই ধরনের নীতিগত সহায়তা এই শিল্পকে আরও শক্তিশালী করবে বলে আশা করছেন খাত সংশ্লিষ্টরা।

সমুদ্রগামী জাহাজ কোম্পানি কেএসআরএম গ্রুপের অঙ্গ প্রতিষ্ঠান এসআর শিপিংয়ের সিইও মেহেরুল করিম বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এটা নিঃসন্দেহে সরকারের একটা ভালো উদ্যোগ। এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে সমুদ্রগামী জাহাজ শিল্পের ওপর এটা খু্বই ইতিবাচক ভূমিকা রাখবে।

“এতদিন ফ্রেইটচার্জ বাবদ আয় থেকে সরকার ৩ শতাংশের কিছু বেশি কর কেটে নিত। সেটা যদি রহিত করা হয়, তাহলে সেটাও একটা ইতিবাচক পদক্ষেপ হবে।”

দেশে ১৫টি সমুদ্রগামী জাহাজ কোম্পানি রয়েছে। তবে বাংলাদেশের আমদানি-রপ্তানির ক্ষেত্রে বিদেশি কোম্পানির এদেশীয় এজেন্টরাই বেশি ভূমিকা রাখেন।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক