যৌন নিপীড়নের ঘটনার পর চবির ছাত্রী হলে রাত ১০টার মধ্যে ঢোকার নির্দেশনা

যৌন নিপীড়নের এক ঘটনার পর চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলের ছাত্রীদের রাত ১০টার মধ্যে ঢোকার নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 20 July 2022, 11:03 AM
Updated : 20 July 2022, 01:25 PM

বুধবার এ সংক্রান্ত একটি নোটিস ছাত্রীদের চারটি আবাসিক হলে দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. রবিউল হাসান ভূঁইয়া।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমতে বলেন, “মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে বিভিন্ন হলের প্রভোস্ট, প্রক্টরিয়াল বডির সদস্য ও ছাত্র উপদেষ্টার সমন্বয়ে অনুষ্ঠিত বৈঠকে ছাত্রীদের রাত ১০টার মধ্যে হলে প্রবেশের নির্দেশনা দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়।”

ছাত্রীদের হলে নির্দিষ্ট সময়ে ঢোকার নির্দেশনা থাকলেও ছাত্রদের হলগুলোতে এই সংক্রান্ত কোনো বিধি-নিষেধ নেই, যা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে আন্দোলন হয়েছে।

প্রক্টর রবিউল বলেন, “রাত ১০টার মধ্যে হলে প্রবেশের নির্দেশনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হলগুলোতে আগেও ছিল। কিন্তু ছাত্রীদের শাটল ট্রেনে করে শহর থেকে ক্যাম্পাসে ফেরা ও নানাবিধ অসুবিধার কারণে তা শিথিল ছিল।”

এক নারী শিক্ষার্থীর যৌন নিপীড়নের শিকার হওয়ার সঙ্গে ছাত্রী হলে ঢোকার সময়সীমা নির্ধারণের যোগসূত্র রয়েছে কি না, তা স্পষ্ট করেননি প্রক্টর।

ছাত্রীদের ‘নিরাপত্তার স্বার্থে’ রাত ১০টার মধ্যে হলে প্রবেশের নিয়ম দেশের অন্যান্য বিশ্ববিদ্যালয়ে কার্যকর রয়েছে বলে জানান তিনি।

প্রক্টর বলেন, “রোববার প্রীতিলতা হলের এক ছাত্রী হেনস্তার শিকার হয়েছেন বলে আমরা একটি অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।”

রোববার রাত সাড়ে ৯টার দিকে হলে ফেরার সময় ক্যাম্পাসের হতাশার মোড় এলাকায় আক্রান্ত হন ওই ছাত্রী ও তার এক বন্ধু।

ওই তরুণী অভিযোগ করেছেন, ৫ জন অজ্ঞাতনামা যুবক জোর করে তাদের দুজনকে বোটানিক্যাল গার্ডেন এলাকায় নিয়ে যায়। সেখানে বিবস্ত্র করে মোবাইল ফোনে ভিডিও ধারণ করে এবং সেটি ইন্টারনেটে ছেড়ে দেওয়ার হুমকি দেয়।

ওই পাঁচ যুবক মেয়েটিকে ধর্ষণের চালিয়ে ব্যর্থ হয়ে মারধর করে বলেও অভিযোগে বলা হয়েছে।

এই অভিযোগ তদন্তে প্রক্টরের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক