জলবায়ুর পরিবর্তন: চট্টগ্রামে চলছে শিল্পকর্ম প্রদর্শনী

জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাবে মানুষের আবাসস্থল এই ‍পৃথিবী কীভাবে বসবাসের অযোগ্য হয়ে উঠছে, নানা মাধ্যমের শিল্পকর্মে তা তুলে ধরা হয়েছে চট্টগ্রামে আয়োজিত এক প্রদর্শনীতে।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 1 July 2022, 03:33 PM
Updated : 1 July 2022, 03:33 PM

শুক্রবার বিকালে খুলশীর চিত্রভাষা গ্যালারিতে ‘বিপন্ন জল, মাটি, বায়ু, আগুন...গোটা পৃথিবী’ শিরোনামে এ প্রদর্শনী উদ্বোধন করা হয়।

ভাস্কর অলক রায় অনুষ্ঠানে বলেন, জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রভাব মোকাবিলা বিষয়ক প্রদর্শনীটি সময়োপযোগী। কিন্তু বাস্তবায়নের কাজটা মূলত রাজনৈতিক কর্মীদের। শিল্পীরা কেবল ভাবাতে পারেন।

“আমরা পরিবেশ সংরক্ষণে আন্তর্জাতিক মহলে রাজনীতিবিদদের উপস্থিতি দেখি, কিন্তু মাঠ পর্যায়ে তাদের দেখা মেলে না। যদি আমরা সত্যিই পরিবর্তন চাই, তাহলে মাঠে নামতে হবে। যারা শ্রমিক লীগ, কৃষক লীগে আছেন, তারা যদি কেবল কেন্দ্রে বসে থাকেন এবং তৃণমূলের দুঃখ-দুর্দশা উপলব্ধি না করেন, তবে পরিবেশ নিয়ে সমস্ত কাজই প্লে-কার্ডে সীমাবদ্ধ হয়ে যাবে।”

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বন ও পরিবেশবিদ্যা বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কামাল হোসাইন বলেন,  “আমি নিজে কক্সবাজারের মানুষ। আমাদের ইকো সিস্টেম যেভাবে বদলে যাচ্ছে তা নিয়ে আমরা যতদূর কথা বলছি; কিন্তু আন্তর্জাতিক মহলে তাদের রাজনৈতিক আবহের কারণে আমাদের পরিস্থিতি বদলাচ্ছে না।”

আগে জেলেরা তাদের অভিজ্ঞতা থেকে আবহাওয়া পরিবর্তন নিয়ে পূর্বাভাস বলতেন, কিন্তু তারাও এখন পরিবেশের এই বদল নিতে পারছেন না মন্তব্য করে উন্নয়নকর্মী কমল সেনগুপ্ত বলেন, “আমাদের পৃথিবীর বর্তমান অবস্থা আরও বেগতিক হবে, যদি আমরা এসবে নজর না দিই।”

চিত্রভাষা গ্যালারির উদ্যোগে শুরু হওয়া এ প্রদর্শনীতে সহযোগিতা করছে শিল্প সংগঠন ‘একান্ন যোগ‘।

অন্যদের মধ্যে সংগঠনটির প্রতিনিধি পংকজ চৌধুরী রনি, অনুবাদক আলম খোরশেদ, পরিবেশবাদী সংগঠন গ্রিন ফিঙ্গারের রিতু পারভীন, শিল্পী জাহেদ আলী চৌধুরী যুবরাজ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।

প্রদর্শনীতে এগারজন শিল্পীর নানা মাধ্যমের শিল্প-সৃষ্টি প্রদর্শিত হচ্ছে। এরা হলেন জয়া বড়ুয়া, ফজলে রাব্বি, নুসরাত শাওন, রনি জাবালি, রাজীব দত্ত, পংকজ চৌধুরী রনি, আসমা বীথি, রাসেল চৌধুরী, তানবীর সারওয়ার রানা, দেবাশীষ মজুমদার ও মইনুল আলম।

শিল্প সংগঠন একান্ন যোগ এর আয়োজনে এবং চিত্রভাষার সার্বিক সহযোগিতায় এ বছরের ১০ থেকে ১৮ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত হয় মাল্টিডিসিপ্লিনারি আর্ট ক্যাম্প।

শুকনো মরা কাঠের গুঁড়ি, চারপাশে ছড়িয়ে থাকা প্লাস্টিক আর অপচনশীল আবর্জনা, জলহীন মাটির হাহাকার-ফাটল, ঢেউয়ে-ঢেউয়ে ভেসে আসা অপচনশীল উচ্ছিষ্ট ইত্যাদি কুড়িয়ে এনে শিল্পরূপ দেওয়ার চেষ্টা করা হয় সেই ক্যাম্পে।  সেই শিল্প-সৃষ্টিগুলোই এখন প্রদর্শন করা হচ্ছে।

তিনদিনের প্রদর্শনীটি চলবে রোববার পর্যন্ত।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক