সিআরবিতে হাসপাতাল না করতে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি

সিআরবিতে সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বে (পিপিপি) প্রস্তাবিত হাসপাতাল প্রকল্প বাতিলের আবেদন জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন চট্টগ্রামের ২৫ জন নাগরিক।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 July 2021, 06:47 PM
Updated : 28 July 2021, 06:47 PM

চট্টগ্রামের ‘শেষ প্রকৃতি-ঋদ্ধ স্থান এবং বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতিধন্য’ সিআরবিকে রক্ষা করতে এই আবেদন জানানো হয়।

যারা চিঠিতে স্বাক্ষর করেছেন তাদের মধ্যে আছেন- আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য সমাজবিজ্ঞানী অনুপম সেন, শহীদজায়া বেগম মুশতারী শফি, দৈনিক আজাদী সম্পাদক এম এ মালেক, দৈনিক পূর্বকোণ সম্পাদক ম রমিজউদ্দিন চৌধুরী, শিল্পী অধ্যাপক আবুল মনসুর, কবি-সাংবাদিক আবুল মোমেন, নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী, আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের প্রসিকিউটর রানা দাশগুপ্ত, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মাহফুজুর রহমান, চট্টগ্রাম পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদের সভাপতি ডা, একিউএম সিরাজুল ইসলাম।

আরও আছেন- নগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন ও ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, নাট্যজন আহমেদ ইকবাল হায়দার, চট্টগ্রাম চেম্বারের সভাপতি মাহবুবুল আলম, শিক্ষাবিদ ফেরদৌস আরা আলীম, শিক্ষাবিদ ড. আনোয়ারা আলম, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সভাপতি আলী আব্বাস, দৈনিক সুপ্রভাত বাংলাদেশ সম্পাদক রুশো মাহমুদ, দৈনিক পূর্বদেশ সম্পাদক মুজিবুর রহমান, দৈনিক বীর চট্টগ্রাম মঞ্চ সম্পাদক সৈয়দ উমর ফারুক, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম মহানগরের কমান্ডার মোজাফফর আহমদ, বিজয় মেলা পরিষদের মহাসচিব বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. ইউনুস, কবি প্রাবন্ধিক কামরুল হাসান বাদল ও জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এএইচএম জিয়াউদ্দিন।

চিঠিটি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের ঠিকানায় পাঠানো হয়েছে বলে বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান ড. অনুপম সেন।

চট্টগ্রাম নগরীতে পূর্ব রেলের সদর দপ্তর (সিআরবি) এলাকায় সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বে (পিপিপি) ৫০০ শয্যার হাসপাতাল, ১০০ আসনের মেডিকেল কলেজ ও ৫০ আসনের নার্সিং ইনস্টিটিউট স্থাপনের প্রকল্প নিয়েছে রেল বিভাগ, যার বিরোধিতা হচ্ছে নানা অঙ্গন থেকে।

২৫ নাগরিকের চিঠিতে বলা হয়, “শতবর্ষী বৃক্ষরাজি, পাহাড়, টিলা ও উপত্যকায় ঘেরা বাংলাদেশের ইতিহাস ও ঐতিহ্যমণ্ডিত একটি অনন্য প্রাকৃতিক স্থান এই সিআরবি। এরকম উন্মুক্ত স্থান চট্টগ্রামে আর নেই।”

সিআরবিতে (সেন্ট্রাল রেল বিল্ডিং) বছরজুড়ে ননা অনুষ্ঠান আয়োজনের কথাও বলা হয় চিঠিতে।

“তাই, চট্টগ্রামের নাগরিক সমাজের আপনার কাছে ঐকান্তিক আবেদন, চট্টগ্রামের এই অপরূপ প্রকৃতি-ঋদ্ধ সিআরবি এলাকাটিকে রক্ষা করুন।”

২০০৯ সালে সিডিএ কর্তৃক প্রণীত ডিটেইল এরিয়া প্ল্যানে (ড্যাপ) যে সিআরবিকে ‘সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য’ হিসেবে সংরক্ষণের কথা উল্লেখ রয়েছে, তাও বলা হয় চিঠিতে।

২৫ নাগরিক সিআরবিকে বাদ রেখে রেলওয়ের মালিকানাধীন বিজিএমই ভবনের কাছে, ইউএসটিসি এবং ইম্পেরিয়াল হাসপাতালের পাশে নতুন হাসপাতালটি নির্মাণের প্রস্তাব দেন।

মুক্তিযুদ্ধে বীর শহীদ চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক শহীদ আব্দুর রব ও আরও ৮ জন শহীদের সমাধিস্থল এই সিআরবি এলাকা উল্লেখ করে চিঠিতে বলা হয়, “বাঙালির শ্রেষ্ঠ সন্তান এসব বীর শহীদদের গৌরব স্মৃতি এখানে অম্লান ও অক্ষুণ্ন থাকুক এই আমাদের কামনা।”

এদিকে সিআরবি রক্ষার আন্দোলন এগিয়ে নিতে বুধবার বিকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সভা থেকে নাগরিক সমাজ, চট্টগ্রাম এর কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে জানান বিএফইউজে’র যুগ্ম মহাসচিব মহসীন কাজী।

তিনি বলেন, সমাজবিজ্ঞানী ড. অনুপম সেনকে চেয়ারম্যান ও বর্ষীয়ান আইনজীবী ইব্রাহিম হোসেন বাবুলকে সদস্য সচিব করে নাগরিক সমাজ, চট্টগ্রাম এর কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সিআরবি রক্ষা আন্দোলন এবং পরবর্তীতে চট্টগ্রামের বিভিন্ন নাগরিক আন্দোলন পরিচালনায় এই কমিটি গঠন করা হল।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক