মহিউদ্দিন সোহেল হত্যা: কাউন্সিলর সাবেরকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ

চট্টগ্রামের পাহাড়তলীতে সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা মহিউদ্দিন সোহেল হত্যা মামলায় আদালতে আত্মসর্মপণ করা ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাবের আহম্মেদকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 28 May 2019, 10:01 AM
Updated : 28 May 2019, 10:01 AM

মঙ্গলবার মহানগর দায়রা জজ আকবর হোসেন মৃধার আদালত এ আদেশদেন।

সাবের আহম্মেদ নগরীর ১২ নম্বর সরাইপাড়া ওয়ার্ডেরকাউন্সিলর এবং পাহাড়তলি বাজার রেলওয়ে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির আহ্বায়ক।

চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবীপিপি ফখরুদ্দিন চৌধুরী বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, মহিউদ্দিন সোহেল হত্যামামলায় উচ্চ আদালতে জামিন চেয়ে পাননি সাবের আহম্মেদ।

“উচ্চ আদালত তাকে চার সপ্তাহের মধ্যে নিম্ন আদালতেআত্মসমর্পণ করতে বলেছিলেন। সেই আদেশ অনুসারে ২৮ এপ্রিল এখানে আত্মসমর্পণ করেজামিনের আবেদন করেন। তখন আদালত জামিন শুনানির জন্য আজ সময় নির্ধারণ করেন।”

ফখরুদ্দিন চৌধুরী বলেন, জামিন শুনানি শেষে তা নামঞ্জুরকরে আদালত সাবের আহম্মেদকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

এর আগে গত ২৩ এপ্রিল আগ্রাবাদ জাম্বুরি মাঠে পুলিশের সাথেকথিত ‘বন্দুকযুদ্ধে’ মারা যান এ মামলার আসামি মো. জাবেদ (২২)।

ঘটনার দুই দিন পর ৯ জানুয়ারি পাহাড়তলি এলাকা থেকেগ্রেপ্তার হন এ মামলার আরেক আসামি জাতীয় পার্টির নগর কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক এবংপাহাড়তলি রেলওয়ে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ওসমান খান।

পাহাড়তলী রেলওয়ে বাজারে গত ৭ জানুয়ারি সকালে মহিউদ্দিনসোহেলকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। পুলিশ ও ব্যবসায়ীরা সে সময় বলেছিলেন, বাজারের লোকজন‘চাঁদাবাজি’তে অতিষ্ঠ হয়ে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

কিন্তু মহিউদ্দিন সোহেলের পরিবার পরদিন সংবাদ সম্মেলন করেদাবি করে, ‘পরিকল্পিতভাবে’ এই হত্যাকাণ্ড ঘটনো হয়েছে।

এরপর সোহেলের ভাই শাকিরুল ইসলাম শিশির হত্যা, অগ্নিসংযোগও লুটপাটের অভিযোগে ২৭ জনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতপরিচয় আরও দেড়শ জনকে আসামিকরে মামলা করেন।

পাহাড়তলী রেলওয়ে বাজার ব্যবসায়ী সমিতির আহ্বায়ক ওয়ার্ডকাউন্সিলর সাবের আহম্মেদ, জাতীয় পার্টির নেতা ওসমান খান ও যুবদল নেতা শওকত খানরাজুকেও সেখানে আসামি করা হয়। ওসমান ও রাজুকে পুলিশ ইতোমধ্যে গ্রেপ্তার করেছে।

আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সাবেক সহ সম্পাদক সোহেলতার আগে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে ছিলেন। চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছিরউদ্দীনের অনুসারী হিসেবে তিনি পরিচিতি ছিলেন এলাকায়।

তৌফিক ইমরোজ খালিদী
প্রধান সম্পাদক ও প্রকাশক