দুর্ঘটনার পর ধাওয়া করে চালককে ধরলেন মেয়র

চট্টগ্রামে দুর্ঘটনার পর পালানোর চেষ্টারত এক সিএনজিচালিত অটোরিকশা ধাওয়া করে চালককে ধরে পুলিশে দিলেন মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন।

চট্টগ্রাম ব্যুরোবিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম
Published : 22 March 2016, 09:51 AM
Updated : 22 March 2016, 11:51 AM

আগের দিন দুর্ঘটনার পর এক স্কুলশিক্ষার্থীকে নিজের প্রটোকলের গাড়িতে হাসপাতালে পাঠিয়েছিলন তিনি।  

মঙ্গলবার দুপুরে নগরীর লাভ লেইন মোড় থেকে মিলন নামের ওই অটোরিকশা চালককে আটক করা হয় বলে কোতোয়ালি থানার ওসি জসীম উদ্দিন জানান।

এর কিছুক্ষণ আগে নগরীর নেভাল এভিনিউয়ে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় চট্টগ্রাম কেন্দ্রের সামনে অন্য একটি অটোরিকশাকে ধাক্কা দিয়ে উল্টে ফেলে পালাচ্ছিলেন তিনি।

এ সময় সেখান দিয়ে যাচ্ছিলেন মেয়র নাছির।

তার ব্যক্তিগত সহকারী উজ্জ্বল দত্ত বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “নগরীর সিটি গেট এলাকা থেকে আমরা কদমতলী ও সিআরবি হয়ে ফিরছিলাম।

আ জ ম নাছির উদ্দিন, ফাইল ছবি

“উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে পৌঁছে দেখি রাস্তার ওপর একটি অটোরিকশা উল্টে আছে। অন্য একটি অটোরিকশা পালিয়ে যাচ্ছে। স্থানীয়রা সেটিকে ধাওয়া করছে।”

এ ঘটনা দেখে মেয়র প্রটোকলের পুলিশ সদস্যদের পলায়নরত ওই অটোরিকশাকে ধাওয়া করতে বলেন। নিজের গাড়িতে করে তিনি নিজেও সেটির পিছু নেন।

“প্রটোকলের পুলিশের গাড়ি থেকে সংকেত দেওয়ার পর মিলন নামের ওই চালক মাঝ সড়কে উল্টাপাল্টা গাড়ি চালিয়ে লাভ লেইন মোড়ে চলে আসে।

“সেখানে গাড়িসহ তাকে আটক করা হয়। এসময় মেয়র মহোদয় গাড়ি থেকে নেমে কোতোয়ালি থানায় ফোন করেন।”

কোতোয়ালির ওসি জসীম বলেন, “মেয়র মহোদয় খবর দেওয়ার পর আমাদের একটি দল ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই চালককে আটক করে।”

তার অটোরিকশাটিও (চট্ট মেট্রো থ-১২-১৮৯১) থানায় আনা হয়েছে।

দুঘর্টনার শিকার অটোরিকশা চালক সাইফুল বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমার গাড়িকে ধাক্কা দিয়ে উল্টে দেয় ওই গাড়ি। আমার গাড়িতে একজন পুরুষ যাত্রী ছিল।

“তিনিও সামান্য আঘাত পেয়েছেন। তবে ঘটনার পর তিনি নিজেই চলে গেছেন। আমি এখন ভালো আছি।”

এর আগে সোমবার দুপুরে নগরীর হাজী মোহাম্মদ মহসীন স্কুলের সামনে দুঘর্টনায় পড়া এক শিশুকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠাতে নিজের প্রটোকলের গাড়ি দেন মেয়র। তার এ ভূমিকা নগরীতে বেশ প্রশংসিত হয়েছে।